শেষ কোথায় জানেন না তিনি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:০৯, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৯, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০

অধিনায়ক হিসেবে শেষ সিরিজ কিনা জানেন না মাশরাফিসিলেটে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে বিপুল আগ্রহ। তবে আগ্রহের পারদটা চড়েছে অধিনায়ক হিসেবে এটি মাশরাফির শেষ সিরিজ বলেই। বিসিবি সভাপতির ঘোষণা অনুযায়ী ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটিই হতে যাচ্ছে অধিনায়ক মাশরাফির শেষ সিরিজ! সত্যিই কি মাশরাফি, রবিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অধিনায়ক হিসেবে শেষ সিরিজটির প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবেন? কিন্তু  অধিনায়ক হিসেবে তার শেষ সিরিজি কি না এ ব্যাপারে মাশরাফি নিজে রহস্যই রেখে দিলেন।

আগামী ৮ মার্চ নতুন ওয়ানডে অধিনায়কের নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছিলেন বোর্ড সভাপতি। মাশরাফি অবশ্য শনিবার সংবাদ সম্মেলনে কোনও কিছুই খোলাসা করেননি। বলটি তিনি পাঠিয়ে দিয়েছেন বোর্ড প্রধানের কোর্টে, ‘সব তো বোর্ড সভাপতি বলেছেন। আমার সঙ্গে কী কী কথা হয়েছে বোর্ড সভাপতির আমার মনে হয় না সেটা আপনাদের বলার প্রয়োজন আছে। ক্রিকেট বোর্ড যেটা বলেছে আপনারা তো জানেনই। অতটুকুই তো যথেষ্ট। আমার মুখ থেকে আবার শুনতে হবে কেন?’

আবারও পাল্টা প্রশ্ন অধিনায়ক মাশরাফির কি এটা শেষ সিরিজ, ‘সেটা তো আমি জানি না। আমি তো বলেছি এটা নিয়ে বলার কিছু নেই। যদি থাকতো অবশ্যই বলতাম। বোর্ড সভাপতি যেটা বলেছেন আপনারা তো সেটা জেনেছেনই। আমার মুখ থেকে শোনার কী দরকার?’

আরও একটি প্রশ্নে মাশরাফি খোলাসা করেই জানিয়েছেন, কোথায় গিয়ে থামবেন দেশসেরা অধিনায়ক মাশরাফি, ‘যদি থামতে হয় আপনারা জানবেন। থামাথামির বিষয়ে তো অনেক কথা বলেছি। বারবার এ ব্যাপারে একই প্রশ্ন করার তো কিছু নেই। আমার জায়গায় আপনারা কি অস্পষ্ট আছেন? একই প্রশ্ন তো বারবার করার কিছু নেই। আর বোর্ড থেকে যদি কিছু বলে বা বোর্ড থেকে কিছু জানার থাকে, তাহলে অবশ্যই বোর্ড থেকে জানবেন। বোর্ড বোর্ডের সিদ্ধান্ত জানাবে। আমার সাথে যেটা আলোচনা হবে পাপন ভাই (বিসিবি সভাপতি) বা বোর্ড সম্পৃক্ত যারা আছে, সেটা আপনাদের বলার কিছু নেই।’

সম্প্রতি মাশরাফির পারফরম্যান্স নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হচ্ছে। ক্রিকেটমনস্ক জনতার বড় অংশই মাশরাফিকে আর দলে চায় না। এ বিষয়ে স্পষ্ট করেই জানালেন তার করার কিছু নেই, ‘এটা নিঃসন্দেহে আমার ভাবনার জায়গা না। ম্যানেজমেন্টের ভাবনার জায়গা। এটা নিয়ে আমি একদমই ভাবছি না। দল নির্বাচনের আগেও আমি একদমই ভাবিনি। বোর্ডের সিদ্ধান্ত, টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত।’

গত ১৩ জানুয়ারি চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের কাছে সেমিফাইনালে হেরে শেষ হয়েছে মাশরাফির ঢাকা প্লাটুনের বিপিএল। ওইদিনই অবসরের ব্যাপারে নিজের অবস্থান ব্যাখা করেছিলেন মাশরাফি, ‘ক্রিকেট বোর্ডকে আন্তরিক ধন্যবাদ যে ক্রিকেট বোর্ড চেয়েছে আমার বিদায়ী ম্যাচ বা অবসরের বিষয়ে চিন্তা করেছে। আমি পরিষ্কার বার্তা দিয়েছি, আমার ইচ্ছা নাই। তবে যদি কখনও সুযোগ আসে, তাহলে দেখা যাবে। আবার কার কাছ থেকে নেবো সেটাও কথা। আমার কোনো ইচ্ছা নাই। জাতীয় দলকে কেন্দ্র করেই কেউ ক্রিকেট খেলে না। সামনে যে খেলা (ঘরোয়া লিগ) আসবে, সেটাই উপভোগ করবো। জাতীয় দলের চিন্তা যারা করছে, বিসিবিতে যারা আছে তারা চিন্তা করবে।’

প্রায় দুই মাস আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের বিষয়টি খোলসা করলেও শনিবার অধিনায়ক মাশরাফির শেষ কোথায় সে ব্যাপারে মুখে কুলপ এঁটে রাখলেন দেশসেরা অধিনায়ক।

/আরআই/পিকে/

লাইভ

টপ