X
মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২
২১ আষাঢ় ১৪২৯

ঢাবি শিক্ষার্থীর উদ্যোগে শশীভূষণে প্রথম গ্রন্থাগার

আপডেট : ২৭ আগস্ট ২০২১, ১১:১১

দ্বীপজেলা ভোলার থানা শশীভূষণ; প্রায় এক লাখ মানুষের এই জনপদটি আর্থসামাজিক উন্নয়নে এখনও অনেকটাই পিছিয়ে। এলাকার উন্নয়নে শিক্ষার গুরুত্ব অনুধাবন করে একটি গ্রন্থাগার স্থাপন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সোহানুর রহমান। বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় সোহানের গড়া এই গ্রন্থাগারটিতে রয়েছে সাহিত্য, মুক্তিযুদ্ধ ও অনুবাদ সাহিত্যসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির ২৫০টিরও অধিক বই আছে।

শশীভূষণে বেড়ে ওঠা সোহান বলেন, ‘শিক্ষা, সামাজিক ও অর্থনৈতিক- প্রায় সকল ক্ষেত্রে পিছিয়ে রয়েছে আমাদের শশীভূষণ। এখানকার ছেলেমেয়েরা পড়ালেখার ক্ষেত্রে অনেক বাধা মোকাবিলা করতে হয়। বিশেষ করে মেধাবীরা পর্যাপ্ত পরিচর্যার অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে এখানকার শিক্ষার্থীরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে না। 

বর্তমানে তরুণ-তরুণীরা বইপড়া থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। তারা মোবাইলে আসক্ত হয়ে পড়ছেন কিংবা জড়িয়ে পড়ছে নানা অপকর্মে, হারিয়ে যাচ্ছে মাদকের অন্ধকার জগতে। ঢাবির লোকপ্রশাসন বিভাগে অধ্যায়নরত সোহানের ভাষ্য, করোনার এই সময়ে এই অবস্থা এখন আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। তাই শিক্ষার্থীদের বইয়ের প্রতি ফিরিয়ে আনতে একটি লাইব্রেরির চিন্তা মাথায় আসে, যা এর আগে এখানে কখনোই ছিল না।

লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠার প্রচারণা ও তহবিল সংগ্রহ সম্পর্কে সোহান বলেন, শুরুতে আমরা বিভিন্নভাবে যে তহবিল সংগ্রহ করেছিলাম সেটা দিয়ে ঘর ভাড়া নিই এবং তিনটি বইয়ের তাক ও তিনটি চেয়ার স্থাপন করি। নিজেদের বাসা থেকেও কিছু ফার্নিচার এনে লাইব্রেরি সাজিয়েছি। সমাজের বিত্তবানদের দ্বারস্থ হয়েছি,কারও পুরাতন বই থাকলে তা সংগ্রহ করেছি। এভাবেই পাঁচ থেকে ছয়জনের বসার পরিবেশ তৈরি করে ‘এসো সবাই বই পড়ি, সুন্দর এক সমাজ গড়ি’ স্লোগানে যাত্রা শুরু করে ‘শশীভূষণ গ্রন্থাগার’।

নিজ উদ্যোগে গড়া গ্রন্থাগারে ঢাবি শিক্ষার্থী সোহান

সোহানের সহযোদ্ধা খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আমিনুল ইসলাম নাঈম লাইব্রেরির বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে বলেন,"আমাদের লাইব্রেরিতে আর্থিক সংকট রয়েছে। পর্যাপ্ত আসবাবপত্র ও লাইব্রেরিয়ান নেই। তারপরও আমরা স্বেচ্ছাসেবকরা মাসিক চাঁদা দিয়ে ঘরভাড়া এবং যাবতীয় খরচ চালিয়ে নিচ্ছি। গ্রন্থাগারটি আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাঝে বই পড়ার মানসিকতা জাগিয়ে তুলতে সহায়ক হবে। ফলে তাদের শিক্ষাগ্রহণ হবে মানসম্মত ও আনন্দপূর্ণ। সুস্থ মস্কিষ্কের ধারার বিকাশ ঘটবে।’

সোহানদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে স্থানীয় রসুলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘গ্রন্থাগারটি আমাদের এলাকায় একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এর ফলে শিক্ষার্থীরা পড়ালেখার প্রতি আগ্রহী হবে। আমি সর্বদা এই গ্রন্থাগারের যে কোনও প্রয়োজনে পাশে আছি।’

/ইউএস/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
‘সরকার পতন আন্দোলনের মনোভাবে বিএনপির ঘাটতি আছে’
‘সরকার পতন আন্দোলনের মনোভাবে বিএনপির ঘাটতি আছে’
‘গোপন বৈঠক’ থেকে কারাগারে বিএনপির ১২ নেতাকর্মী 
‘গোপন বৈঠক’ থেকে কারাগারে বিএনপির ১২ নেতাকর্মী 
পাননি ছুটি, বাধ্য হয়ে কাজের সময় অসুস্থ পোশাককর্মীর মৃত্যু
পাননি ছুটি, বাধ্য হয়ে কাজের সময় অসুস্থ পোশাককর্মীর মৃত্যু
ধর্ম নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, স্কুলশিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড
ধর্ম নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, স্কুলশিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড
এ বিভাগের সর্বশেষ
বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট
বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট
ব্যাংককে অ্যাওয়ার্ড পেলেন সীমা হামিদ
ব্যাংককে অ্যাওয়ার্ড পেলেন সীমা হামিদ
বন্যার্তদের সহায়তায় চলচ্চিত্র প্রদর্শনী
বন্যার্তদের সহায়তায় চলচ্চিত্র প্রদর্শনী
এসডিজি ইয়ুথ সামিটের নিবন্ধন শুরু
এসডিজি ইয়ুথ সামিটের নিবন্ধন শুরু
যেখানে বিনামূল্যে ইফতার করেন হাজার মানুষ
যেখানে বিনামূল্যে ইফতার করেন হাজার মানুষ