X
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২
১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মধ্যবিত্তদের জন্য লামিয়ার উদ্যোগ

তারুণ্য ডেস্ক
০৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:০০আপডেট : ৩০ মার্চ ২০২২, ১৩:১৮

‘হোম ডেকর’ পণ্য ঘরের শোভা বৃদ্ধি করে। ফলে সৌখিন মানুষ এ ধরনের পণ্য নিজের ঘরে রাখতে চান। কিন্তু দেশের বাজারে হোম ডেকর পণ্যের বাড়তি দামের কারণে অনেকের শখ থাকলেও তা সহসা পূরণ হয় না। মধ্যবিত্ত পরিবারের সেই ছোট ছোট শখগুলো পূরণ করতে ইসরাত লামিয়া গড়ে তুলেছেন ‘নন্দিতা কুটির’ ও ‘ক্রাফট বাংলাদেশ’ নামের দুটি প্রতিষ্ঠান। 

 

 ইসরাত লামিয়া

তরুণ উদ্যোক্তা ইসরাত লামিয়া রাজধানীর কবি নজরুল সরকারি কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। পড়াশোনা শেষ করে চাকরি খোঁজার আগেই নিজের পায়ে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নেন। 

ব্যবসার শুরুর গল্পটা জানতে চাইলে লামিয়া জানান, কলেজের পড়াশোনা শেষ করার পরেই স্বাবলম্বী হওয়ার ইচ্ছে জেঁকে বসে তার। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আগেই ব্যবসার উদ্যোগ নেন। শুরুর দিকে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে তাকে। একাকী নানান বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করতে হয়েছে।

২০১৯ সালের মাঝামাঝি ‘হোম ডেকর’ পণ্য নিয়ে কাজ শুরু করেন। ২০১৯ সালে ‘নন্দিতা কুটির’ নামে একটি ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করেন তিনি। অল্প সময়ের মধ্যেই বেশ সাড়া পান। এখন সেই প্রতিষ্ঠানকে তিনি নিয়ে যেতে চান বহুদূর। পরে ‘ক্রাফট বাংলাদেশ’ নামে আরও একটি প্রতিষ্ঠান ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় করিয়েছেন তিনি। এখন একাধারে কাজ করছেন দুইটি পেইজের মাধ্যমে। 

লামিয়া জানান, শুরুতে কাঠের পাশাপাশি মাটি ও পাটের জিনিসপত্র নিয়ে কাজ করেছিলেন তিনি। কিন্তু তিন মাসের মাথায় মাটি ও পাটের পণ্য থেকে সরে আসেন। পুরোপুরি মনোযোগ দেন কাঠের পণ্যের দিকে। 

লামিয়া বলেন, ‘আমি তিন ধরনের পণ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছিলাম। কিন্তু একটা সময় অনুভব করলাম, সব কিছু নিয়ে কাজ না করে নির্দিষ্ট একটা খাতে থাকি। তখন শুধু কাঠের পণ্যকে বেছে নিলাম।’

‘হোম ডেকর’ পণ্যের চাহিদা বাড়ছে বলে মনে করেন এই তরুণ উদ্যোক্তা। বলেন, ‘হোম ডেকরের একটা বড় জায়গা জুড়ে রয়েছে কাঠের পণ্য। ইউরোপ ও আমেরিকায় অনেক আগে থেকেই এ ধারা বজায় আছে। কয়েক বছর আগেও আমাদের দেশে নির্দিষ্ট কিছু আসবাবপত্র বাদে কাঠের ব্যবহার তেমন চোখে পড়তো না। তবে সম্প্রতি উন্নত বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও কাঠের হোম ডেকরের চাহিদা বেড়েছে।’ 

শুরুতে অন্য কারখানা থেকে নিজের ডিজাইনে দিয়ে পণ্য তৈরি করিয়ে নিতেন তিনি। সম্প্রতি নিজেই একটি কারখানা দিয়েছেন লামিয়া। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘উদ্যোক্তা হতে অনেক বাধা রয়েছে। বাজেটটা অনেক বড় একটা সমস্যা। সব কিছু অতিক্রম করে এগিয়ে যাচ্ছি। কারখানা দিয়েছি। এখন আমার নিজস্ব ডিজাইনার আছে, মিস্ত্রি আছে। রুচিশীল ক্রেতার চাহিদা মেটাতে নন্দিতা কুটির এখন সম্পূর্ণ প্রস্তুত।’

মধ্যবিত্ত উপযোগী পণ্য বিক্রির বিষয়ে জানতে চাইলে লামিয়া বলেন, ‘মধ্যবিত্ত পরিবারের শখ থাকে। কিন্তু সাধ্যটা সীমাবদ্ধ। তাদের আয়ের পরিমাণটা যেমন হিসেব করা, তেমনি ব্যয়টাও হিসেবের মধ্যে থাকে। ফলে উচ্চমূল্যে কিছু একটা কিনতে হলে তাদেরকে বারবার ভাবতে হয়। এক্ষেত্রে অনেক সময় তাদের অনেক শখই অপূর্ণ থেকে যায়। আমি চাই, ঘর সাজানোর শখটা যেন কারও অপূর্ণ না থাকে। তাই কম লাভে, বেশি বিক্রিকে গুরুত্ব দিচ্ছি।’

নিয়মিত ও বৈশ্বিক ডিজাইনের পাশাপাশি প্রতি সপ্তাহে নতুন কিছু নিয়ে আসতে চান এই উদ্যোক্তা। সে লক্ষ্য নিয়ে প্রতিদিনই ‘নন্দিতা কুটির’ ও ‘ক্রাফট বাংলাদেশ’ এর ডিজাইনরা কাজ করে চলেছেন বলে জানান লামিয়া।

/এনএ/
নেইমারকে ছাড়াও জিততে জানে ব্রাজিল
নেইমারকে ছাড়াও জিততে জানে ব্রাজিল
উদ্যমী নারীদের নিয়ে পশিয়ান কনফারেন্স
উদ্যমী নারীদের নিয়ে পশিয়ান কনফারেন্স
ডিফেন্স ডিফেন্স আর ডিফেন্স, এক মন্ত্র সুইসদের
ডিফেন্স ডিফেন্স আর ডিফেন্স, এক মন্ত্র সুইসদের
ক্যাসিমিরোর গোলে শেষ ষোলোতে ব্রাজিল
ক্যাসিমিরোর গোলে শেষ ষোলোতে ব্রাজিল
সর্বাধিক পঠিত
ইতালিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা
ইতালিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা
মঙ্গলবার বাজারে আসছে দুই ও পাঁচ টাকার নতুন নোট
মঙ্গলবার বাজারে আসছে দুই ও পাঁচ টাকার নতুন নোট
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
চাকরি ছাড়ছেন ডিএনসিসির পাঁচ ভেটেরিনারি কর্মকর্তাই!
টিভিতে আজকের খেলা (২৮ নভেম্বর ২০২২)
টিভিতে আজকের খেলা (২৮ নভেম্বর ২০২২)
এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ
এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ