বিদ্যালয় ভবন নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের ধারণা তদন্ত কমিটির

Send
বরগুনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৫৩, এপ্রিল ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫৪, এপ্রিল ০৮, ২০১৯

বরগুনার তালতলী উপজেলার পিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদের গ্রেড ভিম ভেঙে পড়ে মানসুরা বেগম নামে তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত ও পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়। ওই বিদ্যালয় ভবনটি নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছিল বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে তদন্ত কমিটি।
সোমবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে বরগুনার তালতলী উপজেলার ছোটবগি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটি পরিদর্শন শেষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) মো. সাবের হোসেন সাংবাদিকদের এ ধারণার কথা বলেন।
এসময় তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী শিশুদের প্রতি অত্যন্ত সহানুভূতিশীল। একটি শিশু বিদ্যালয়ের ছাদ ধসে নিহত হয়েছে এটা অত্যন্ত মর্মান্তিক।’
এর আগে সোমবার সকাল পৌনে ১১টায় প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয় গঠিত দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি ও ১১টায় বরগুনা জেলা প্রশাসনের পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির নেতৃত্ব দেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) ও তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক মো. সাবের হোসেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব (বিদ্যালয়-০১) মো. মাহবুবুর রশিদ।
এছাড়াও জেলা প্রশাসনের পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটির নেতৃত্ব দেন তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাহবুব আলম। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী এএসম কবীর, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এম এম মিজানুর রহমান, তালতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপায়ন দাস শুভ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের প্রতিনিধি তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত হুমায়ুন কবীর।

এসময় তারা ভবনের ছাদ ধসে যে কক্ষে শিক্ষার্থী নিহত হয়েছিল সেই কক্ষসহ সম্পূর্ণ বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেন। এসময় তদন্তকারী টিমের সদস্যরা বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিবাবক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলেন।
উল্লেখ্য, শনিবার (৬ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে তালতলী উপজেলার ছোটবগী পিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গ্রেড ভীম ধসে তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী মানসুরা বেগম মারা যায়। এসময় আহত হয় আরও পাঁচজন। এ ঘটনায় আমতলী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

/এআর/

লাইভ

টপ