রিয়াদের কাছে সৌদি তেল স্থাপনায় হুথিদের ড্রোন হামলা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:২২, মে ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:২৪, মে ১৪, ২০১৯

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কাছে কয়েকটি তেলের পাম্পিং স্টেশনে ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা। মঙ্গলবার সকালে এই হামলা চালানো হয়। এই হামলার দুই দিন আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপকূলে সৌদি আরবের দুটি তেলের ট্যাংকার নাশকতার শিকার হয়েছিল। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

সৌদি আরবের জ্বালানিমন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ জানান, দুটি পাম্পিং স্টেশনে বিস্ফোরকবাহী ড্রোন দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে। তবে এর ফলে তেলের উৎপাদন বা রফতানিতে কোনও ব্যাঘাত ঘটেনি।

সৌদির সরকারি বার্তা সংস্থাকে জ্বালানিমন্ত্রী জানান, সাম্প্রতিক দুটি হামলার ঘটনায় বিশ্বের তেল সরবরাহ ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এতে প্রমাণ হয় ইয়েমেনের হুথিসহ এমন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িতদের মোকাবিলা করা প্রয়োজন।

এর আগে মঙ্গলবার হুথিদের পরিচালিত মাসিরাহ টেলিভিশন এক সামরিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানায়, গুরুত্বপূর্ণ সৌদি স্থাপনা লক্ষ্য করে হুথিরা ড্রোন হামলা চালিয়েছে।

রবিবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজায়রা সমুদ্রবন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে।  এতে সাতটি তেলবাহী ট্যাংকার পুড়ে গেছে। আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, আমিরাতের পানিসীমার কাছে এই ‘অন্তর্ঘাতমূলক হামলা’ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। বন্দরের চারটি বাণিজ্যিক জাহাজকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে এ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।  বিস্ফোরণের ঘটনায় ইরানকে দুষছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার একজন মার্কিন কর্মাকর্তা বলেছেন, মার্কিন একটি সামরিক দলের প্রাথমিক ধারণা অনুযায়ী, ইরানের ইন্ধনেই ওই হামলা চালানো হয়েছে।

 

/এএ/

লাইভ

টপ