ভূমধ্যসাগর অঞ্চলে মার্কিন যুদ্ধবিমানের পথরোধ করলো রাশিয়া

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৪:০০, জুন ০৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:১৩, জুন ০৬, ২০১৯

ভূমধ্যসাগর অঞ্চলে একটি মার্কিন বিমান প্রতিহত করেছে রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় থাকার পরও রুশ বিমান তাদের প্রতিহত করেছে এবং আন্তর্জাতিক নিয়ম মানেনি। অন্যদিকে রাশিয়ার দাবি, ‍বিমানটিকে তারা আন্তর্জাতিক আইন মেনেই সরিয়ে এনেছেন।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রশাসন জানায়, মার্কিন বিমান পি-এইটএ পোসাইডন ভূমধ্যসাগরের ওপর দিয়ে আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় প্রবেশ করে। তখনই রওশ এসইউ-৩৫ বিমান ১৭৫ মিনিটের মধ্যে তিনবার পথরোধ করে। এর মধ্যে দ্বিতীয় চেষ্টাটি খুবই অনিরাপদ ছিলো বলে দাবি করে তারা। তারা জানায়. তাদের বিমানের সামনে দিয়ে উচ্চ গতিতে রুশ বিমানটি অতিক্রম করে। এতে করে তাদের চালক ও ক্রু ঝুঁকির মুখে পড়েছিলো।

যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, রুশ বিমানটিও আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছিলো। ফলে তাদের এমন আচরণ দায়িত্বজ্ঞানহীন। আমরা আশা করি তারা আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে এমন আচরণ করবেন। অনিরাপদ আচরণে সংঘর্ষের ঝুঁকি তৈরি হয়।

হবে রুশ সেনাবাহিনী এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করে, সবধরনের কার্যক্রম আন্তর্জাতিক আইন মেনেই করা হয়েছে। আকাশসীমায় প্রবেশ করা মার্কিন বিমানটিকে ‘সব ধরনের সতর্কতা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা মেনে’ নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, বিমানটি আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় অবস্থান করছিলো। ‘অনিরাপদ ও অপেশাদার’ কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে একে প্রতিহত করা হয়েছে।

বেশ কিছুদিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়া উত্তেজনা চলছে। দুই সপ্তাহ আগেই এমন একটি ঘটনা ঘটেছিলো। গদ মাসে মিার্কিন এফ-২২ বিমান চারটি রুশ বোমারু বিমান ও দুইটি এসইউ-৩৫ ফাইটার জেটকে প্রতিহত করে। আলাস্কা উপকূলের আন্তর্জাতিক সীমারেখা থেকে সেগুলো সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

 

 

/এমএইচ/

লাইভ

টপ