১০০০ নারীকে অভিনন্দনপত্র দিলো ‘আমরাই পারি’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৮, নভেম্বর ১৪, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৫৩, নভেম্বর ১৪, ২০১৭

অনুষ্ঠানে অতিথি ও আয়োজকরাবিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত দেশের প্রায় এক হাজার নারীকে অভিনন্দনপত্র দিয়েছে ‘আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট’। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে ‘নির্যাতনকে করেছি জয়’ শীর্ষক আয় বর্ধনমূলক কারিগরি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারীদের এ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেন, ‘সমাজ, সংস্কৃতি ও ধর্ম যেভাবে নারীদের রাখতে চায়, তারা যদি সেভাবে থাকেন, তাহলে তাদের জীবনে যেমন কোনও পরিবর্তন আসবে না তেমনি সমাজেও কোনও প্রভাব পড়বে না। যুগে যুগে নারীদের ঘরে বন্দি করে রাখার চেষ্টা হয়েছে, কিন্তু সুফিয়া কামাল, বেগম রোকেয়াদের মতো নারীদের কারণে তা সম্ভব হয়নি।’ এ সরকার নারীর অধিকার রক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা রাখছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীরাঅনুষ্ঠানে ‘আমরাই পারি’ জোটের চেয়ারপারসন সুলতানা কামাল সভাপ্রধানের বক্তব্যে বলেন, ‘ধর্ম-বর্ণ-নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সব স্বাধীনতাকামী মানুষ মুক্তিযুদ্ধ করে যে দেশ পেয়েছে, তার মূল আকাঙ্ক্ষা ছিল এদেশে কোনও বৈষম্য থাকবে না, নির্যাতন থাকবে না। এ দেশ হবে নারী-পুরুষ সবার।’ মুক্তিযুদ্ধে নারীর অবদান কোনও অংশেই পুরুষের থেকে কম নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সুলতানা কামাল বলেন, ‘শুধু কাগজে-কলমে নয়, নারীর অধিকারকে সমুন্নত রাখতে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগকে সমন্বিত করতে হবে। তবে নারীকে আগে নির্যাতনমুক্ত পরিবেশের নিশ্চয়তা দিতে হবে। একটি নির্যাতনমুক্ত পরিবেশ থেকেই নারী শিক্ষা, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সমাজে ও পরিবারে অবদান রাখার জন্য নিজেকে তৈরি করবে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. অ্যানি ভেস্টজেন্স বলেন, ‘আমরাই পারি জোট ঢাকা শহরের ১৫টি বস্তির সুবিধাবঞ্চিত নারীদের অবস্থা পরিবর্তনের জন্য যে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে, তাতে আমি খুবই উৎসাহ বোধ করছি।’

নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের আর্থিক সহায়তায় ‘সখি’ প্রকল্পের আওতায় আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চেঞ্জমেকারদের সাফল্য, সুযোগ ও বাধাবিপত্তির কথা ওঠে আসে। নারী বলেই যে শুধুমাত্র সেলাই, ব্লক বাটিকের কাজ করতে হবে এমন ধারণা থেকে বের হওয়ার কথা ওঠে আসে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারীদের অধিকাংশই ইলেক্ট্রনিক্স, উড ওয়ার্ক, ড্রাইভিংসহ বিভিন্ন কারিগরি প্রশিক্ষণে সঙ্গে অংশ নিয়ে এখন উপার্জন করছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি (এসআরএইচআর  অ্যান্ড জেন্ডার) ড. এ্যানি ভেস্টজেন্স। এছাড়াও এসিড সারভাইভরস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সেলিনা আহমেদসহ চেঞ্জমেকার সদস্য, নারী সংগঠনের নেত্রী, সমমনা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি, সাংবাদিক, সংস্কৃতিকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ‘আমরাই পারি’ জোটের জাতীয় সমন্বয়কারী জিনাত আরা হক।

/আরএআর/এএম/

লাইভ

টপ