X
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ৭ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল!

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২০, ১৫:৫২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল করোনা পরিস্থিতির মধ্যে জেলার লকডাউন উপেক্ষা করে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখেই লাখো মানুষের জমায়েত হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়। খ্যাতিমান ইসলামী আলোচক ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা জোবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম হয়েছে। আজ শনিবার (১৮ এপ্রিল) সকালে এই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় প্রশাসন এ অবস্থায় নীরব ভূমিকা পালন করে বলে অভিযোগ উঠেছে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, এই সমাবেশের মধ্য দিয়ে করোনা ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়লো।

আজ শনিবার সকালে জামিয়া রাহমানিয়া বেড়তলা মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল থেকে পিকআপ ভ্যানসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহনে করে রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলা এবং আশপাশের বিভিন্ন স্থান থেকে বেড়তলা মাদ্রাসায় আসতে থাকে লোকজন। পরে সকাল ১০টার দিকে জানাজা শুরু হয়। মাদ্রাসা মাঠ ছাড়িয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে ছড়িয়ে যায় মানুষ। একদিকে বিশ্বরোড মোড় হয়ে সরাইলের মোড় পর্যন্ত, অন্যদিকে আশুগঞ্জের কাছাকাছি গিয়ে ঠেকে মানুষের ঢল। এছাড়া ওই এলাকার আশপাশের বিভিন্ন ভবনের ছাদেও মানুষের উপচেপড়া ভিড় ছিল। তবে সেখানে কিছু পুলিশ উপস্থিত থাকলেও তারা ছিলেন এক রকম নীরব দর্শক। গত শনিবার (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় লকডাউন চলছে।

বিষয়টি জানতে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও কারও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

এ ব্যাপারে জেলা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংক্রান্ত কমিটির সদস্য এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল-মামুন সরকার বলেন, ‘বর্তমান করোনাভাইরাসের কারণে দুই জনের বেশি লোকসমাগম নিষিদ্ধ। সেখানে হাজারও বা লাখো লোকসমাগম হওয়াটা জনস্বার্থের পরিপন্থী। ঘটনাটি বিব্রতকর ও বেদনাদায়ক। তবে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ দিয়ে এমন পরিস্থিতি সামাল দেওয়া মোটেও সম্ভব ছিল না।’

সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহাদাৎ হোসেন টিটু সাংবাদিকদের কাছে লাখো মানুষ সমাগমের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছাড়াও ঢাকা থেকে লোকজন আসে। আমরা চিন্তাও করতে পারিনি যে এত লোকসমাগম হবে। লোকজন আসতে শুরু করার পর আমাদের আর কিছু করার ছিল না।’ তবে তিনি দাবি করেন, বলার পর উপস্থিত লোকজন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়ায়। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিভিল সার্জন ডা. একরাম উল্লাহ বলেন, ‘যেখানে করোনা ঝুঁকির কারণে একসঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় না করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, সেখানে কীভাবে এতো লোকসমাগম হলো তা বোধগম্য নয়। এই লোকসমাগমের কারণে করোনা ঝুঁকির আশঙ্কা তো থেকেই যায়।’

এদিকে জনসমাগমের ব্যাপারে সরাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার এএস মুছার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, ‘এক্ষেত্রে আমার বলার কিছু নাই। জেলার ওপর মহল থেকে বক্তব্য নিন।’

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, ‘সকাল থেকে বেড়তলা মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলাম। আমাদের পক্ষ থেকে ওনাদের বোঝানোর চেষ্টা করেছিলাম সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য। এ নিয়ে এলাকায় মাইকিংও করা হয়। কিন্তু আমরা শেষ চেষ্টা করেও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে পারিনি।’

লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান বলেন, ‘উনারা (মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ) আমাদের বলেছিলেন সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করবেন। কিন্তু সেটা তারা কেন করেননি তা খতিয়ে দেখা হবে।’

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) বিকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের মার্কাসপাড়ায় নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মাওলানা জোবায়ের আহমেদ আনসারী (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। জোবায়ের আহমেদ বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির এবং বেড়তলা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ছিলেন। এছাড়া তিনি একাধিক মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। ইসলামি আলোচক হিসেবে তার বিশ্বজুড়ে খ্যাতি রয়েছে। লকডাউন ভেঙে জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

লাখো মানুষ সমবেত হওয়ার কথা স্বীকার খেলাফতে মজলিসের

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা জোবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় লাখ লাখ মানুষ সমবেত হয় বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় অফিস ও সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুর রহমান হেলাল। শনিবার দুপুরে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, ‘মরহুমের জানাজা তার প্রতিষ্ঠিত জামিআ রাহমানিয়া বেড়তলা মাদ্রাসার পাশে ঈদগাহ মাঠে আজ সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার নামাজের ইমামতি করেন মরহুমের দ্বিতীয় ছেলে হাফেজ আসাদুল্লাহ আনসারী।’ 

তিনি জানান, জানাজার নামাজে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমির ইসমাঈল নূরপুরী, নায়েবে আমির মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমী, মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহ-সভাপতি মাওলানা জুনাঈদ আল হাবীব, বেফাকের সহ-সভাপতি মাওলানা সাজিদুর রহমান, জামিআ ইউনুছিয়ার মুহতামিম মাওলানা মোবারক উল্লাহ, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা মুহসিনুল হাসান, রাবেতাতুল ওয়াজিনের উপদেষ্টা মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হাসান জামিল, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস বি-বাড়িয়া জেলা সভাপতি মাওলানা আব্দুল আজিজ, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা খন্দকার মঈনুল ইসলামসহ স্থানীয় ওলামায়ে কেরাম ও রাজনৈতিক নেতারা।

তিনি বলেন, জানাজায় বিভিন্ন স্থান থেকে হাজার হাজার আলেম উলামা ও তার ভক্তবৃন্দ উপস্থিত হন। জানাজা শেষে মরহুমের লাশ তারই প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসার প্রাঙ্গণে সমাহিত করা হয়।

 

/সিএ/এসটিএস/এফএস/এমএমজে/

সম্পর্কিত

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

করোনায় মৃত্যুতে আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলো ভারত

করোনায় মৃত্যুতে আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলো ভারত

ভারতের ডাবল মিউট্যান্ট করোনাভাইরাস কি অধিক বিপজ্জনক?

ভারতের ডাবল মিউট্যান্ট করোনাভাইরাস কি অধিক বিপজ্জনক?

মৃত্যু আরও  বাড়ার আশঙ্কা!

মৃত্যু আরও  বাড়ার আশঙ্কা!

৫ মে’র আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছিলেন বাবুনগরী

হেফাজতের এক নেতার জবানবন্দি৫ মে’র আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছিলেন বাবুনগরী

করোনা নয়, আগে পশ্চিমবঙ্গ জিততে চান মোদি

করোনা নয়, আগে পশ্চিমবঙ্গ জিততে চান মোদি

গড়ে ১০১ মৃত্যু, বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে যাদের

গড়ে ১০১ মৃত্যু, বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে যাদের

বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে আটকে রাখা যায়?

বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে আটকে রাখা যায়?

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ২৬ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ২৬ লাখ ছাড়িয়েছে

‘স্থিতিশীল পর্যায়ে খালেদা জিয়া’

‘স্থিতিশীল পর্যায়ে খালেদা জিয়া’

মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ড: সোনারগাঁও থানার ওসিকে বাধ্যতামূলক অবসর

মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ড: সোনারগাঁও থানার ওসিকে বাধ্যতামূলক অবসর

সর্বশেষ

ভুট্টার বাম্পার ফলন, দামও ভালো

ভুট্টার বাম্পার ফলন, দামও ভালো

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

করোনায় মৃত্যুতে আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলো ভারত

করোনায় মৃত্যুতে আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলো ভারত

ভারতের ডাবল মিউট্যান্ট করোনাভাইরাস কি অধিক বিপজ্জনক?

ভারতের ডাবল মিউট্যান্ট করোনাভাইরাস কি অধিক বিপজ্জনক?

কারা হাসপাতালে নাভালনি

কারা হাসপাতালে নাভালনি

মৃত্যু আরও  বাড়ার আশঙ্কা!

মৃত্যু আরও  বাড়ার আশঙ্কা!

৫ মে’র আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছিলেন বাবুনগরী

হেফাজতের এক নেতার জবানবন্দি৫ মে’র আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছিলেন বাবুনগরী

ইন্দোনেশিয়ায় ৬ মাত্রার ভূমিকম্প

ইন্দোনেশিয়ায় ৬ মাত্রার ভূমিকম্প

হাত-পা কেটে রক্ত বের হলে রোজা ভেঙে যাবে?

হাত-পা কেটে রক্ত বের হলে রোজা ভেঙে যাবে?

দিলশা‌দের মৃত‌্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি

দিলশা‌দের মৃত‌্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি

করোনা নয়, আগে পশ্চিমবঙ্গ জিততে চান মোদি

করোনা নয়, আগে পশ্চিমবঙ্গ জিততে চান মোদি

মুঘল আমলের জাফরি ইটের মসজিদটি আছে ঝাউদিয়ায়

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদমুঘল আমলের জাফরি ইটের মসজিদটি আছে ঝাউদিয়ায়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

সড়কে যুবকের সঙ্গে হাতাহাতি, এসআইসহ ৩ সদস্য প্রত্যাহার

ভাইয়ের হাতে পুলিশ কর্মকর্তা খুনের অভিযোগ

ভাইয়ের হাতে পুলিশ কর্মকর্তা খুনের অভিযোগ

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য, হেফাজত সমর্থক গ্রেফতার

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য, হেফাজত সমর্থক গ্রেফতার

নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরতে বললেন বাবুনগরী

নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরতে বললেন বাবুনগরী

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune