X
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘নির্যাতনের বাইরে থাকা নারীরাও লকডাউনে পারিবারিক সহিংসতার শিকার হচ্ছে’

আপডেট : ০৬ মে ২০২০, ১৭:৫৪

 

মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন

করোনা পরিস্থিতিতে এপ্রিল মাসে দেশে ৪ হাজার ২৪৯ জন নারী এবং ৪৫৬টি শিশু পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে এক হাজার ৬৭২ জন নারী ও ৪২৪টি শিশু আগে কখনও নির্যাতনের শিকার হয়নি। শিশুদের মধ্যে শতকরা ৯২ জন তাদের বাবা-মা ও আত্মীয়দের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছে। এ তথ্য জানিয়েছে বেসরকারি সংগঠন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ)।  সংগঠনটি জানায়, লকডাউন পরিস্থিতিতে যে নারী আগে কখনও পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়নি, সেও সহিংসতার শিকার হচ্ছে।

বুধবার (৬ মে) সকালে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে জরিপের এসব তথ্য তুলে ধরে এমজেএফ।

সংবাদ সম্মেলনে এমজেএফের পক্ষ থেকে জানানো হয়,  করোনাজনিত লকডাউন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের নারী ও শিশুরা কেমন আছে, তা জানতে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ) তার ২৭টি কর্ম এলাকার নারী ও শিশুদের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করে এই তথ্য সংগ্রহ করেছে। এমজেএফের দুইটি প্রকল্পের ২৪টি সহযোগী সংগঠন ২৭টি জেলার ৫৮ উপজেলার ৬০২টি গ্রাম ও ৪টি সিটি করপোরেশনের ১৭ হাজার ২০৩ জন নারী ও শিশুদের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে এপ্রিল মাসে সংঘটিত সহিংসতা ও নির্যাতনের এই ভয়াবহ তথ্য উদ্ঘাটন করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরে বলেন, ‘লকডাউনের সময় টেলিফোনের মাধ্যমে নারী ও শিশুদের কাছ থেকে পারিবারিক সহিংসতার তথ্য সংগ্রহ সত্যিকার অর্থেই চ্যালেঞ্জিং ও কষ্টসাধ্য ছিল। জরিপের তথ্য অনুযায়ী, স্বামীর হাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ৮৪৮ জন  নারী। মানসিক নির্যাতনের শিকার ২ হাজার ৮ জন, যৌন নির্যাতনের শিকার ৮৫ জন এবং অর্থনৈতিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ১ হাজার ৩০৮ জন নারী। এর বাইরে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৪ জন,হত্যা করা হয়েছে এক জনকে এবং যৌন হয়রানি করা হয়েছে ২০ জন নারীকে।’ 

তিনি আরও  বলেন,  ‘লকডাউন পরিস্থিতিতে যে নারী আগে কখনও পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়নি, সেও সহিংসতার শিকার হচ্ছে।’

এমজেএফ জানায়,  উত্তরদাতা ৪ হাজার ২৪৯ শিশুর মধ্যে ৪২৪টি শিশু পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়েছে। এর মধ্যে বাল্যবিয়ে হয়েছে ৩৩টি এবং অন্যান্য সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে ৪২টি। ১৪টি শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে, ১৬ জনকে ধর্ষণ চেষ্টা করা হয়, অপহৃত  হয়েছে ২ জন, যৌন হয়রানির শিকার ১০ জন। ধর্ষণের শিকার ১৪ জনের মধ্যে রিলিফ নেওয়ার সময় ১০ শিশু ধর্ষণের শিকার হয়।

সংবাদ সম্মেলনে কিছু সুপারিশ তুলে ধরে বলা হয়, যে হেল্প লাইনগুলো নারীদের সহিংসতা বন্ধে সহায়তা করে থাকে, যেমন— নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে-১০৯ ও পুলিশের সহায়তা জন্য-৯৯৯, সেগুলো আরও  কার্যকর রাখা, যেন সহিংসতার শিকার নারীরা ফোন করার সঙ্গে সঙ্গে তাদের সহায়তা পেয়ে যায়। অনেক নারীকে সহিংসতার কারণে ঘর থেকে বের হয়ে যেতে হচ্ছে বা বের করে দেওয়া হচ্ছে, সেক্ষেত্রে সেই নারীর আশ্রয় প্রয়োজন। তাই সরকারি আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে নারীরা যাতে আশ্রয় পেতে পারে, সেই ব্যবস্থা করতে হবে। কারণ, কোভিড-১৯ এর কারণে অনেকেই আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়ে বা ফোন করে আশ্রয় পাচ্ছে না। অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করা এবং বিচারের আওতায় নিয়ে আসা এবং করোনা পরিস্থিতিতেও নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম চলমান রাখার জন্য ‘ভার্চুয়াল কোর্ট অর্ডিন্যান্স’ দ্রুত মহামান্য রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের ব্যবস্থা করার সুপারিশ করা হয়।

এমজেএফের সিনিয়র মিডিয়া কোঅর্ডিনেটর শাহানা হুদার সঞ্চালনায় সংবাদ-সম্মেলনে সহযোগী সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসও/ এপিএইচ/

সম্পর্কিত

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

১৪০ কোটি টাকার ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত

১৪০ কোটি টাকার ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত

কাল থেকে নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানও খোলা

কাল থেকে নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানও খোলা

অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট শুরু, ব্যস্ততা বেড়েছে বিমানবন্দরে

অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট শুরু, ব্যস্ততা বেড়েছে বিমানবন্দরে

জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০ ও সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা

জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০ ও সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা

বিআরটিএ’র দালালচক্র ভাঙতে হবে: কাদের

বিআরটিএ’র দালালচক্র ভাঙতে হবে: কাদের

ব্যাংকের চেক নিষ্পত্তির নতুন সময় নির্ধারণ

ব্যাংকের চেক নিষ্পত্তির নতুন সময় নির্ধারণ

শেয়ার বাজারে টানা ৫ দিন ধরে উত্থান

শেয়ার বাজারে টানা ৫ দিন ধরে উত্থান

খালেদা জিয়ার সঙ্গে বাবুুনগরীর কখনও সাক্ষাৎ হয়নি: হেফাজত

খালেদা জিয়ার সঙ্গে বাবুুনগরীর কখনও সাক্ষাৎ হয়নি: হেফাজত

লিপ সার্ভিস না দিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ান: বিএনপিকে কাদের

লিপ সার্ভিস না দিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়ান: বিএনপিকে কাদের

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

সর্বশেষ

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

খুলে দেওয়া হলো সরকারি অ্যাকাউন্টস অফিস

খুলে দেওয়া হলো সরকারি অ্যাকাউন্টস অফিস

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

খিলক্ষেতে এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ

খিলক্ষেতে এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ

৫৮ লাখ টাকার কোকেনসহ চার মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

৫৮ লাখ টাকার কোকেনসহ চার মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

করোনায় মারা গেলে বীমা কর্মকর্তার পরিবার কত টাকা পাবে?

করোনায় মারা গেলে বীমা কর্মকর্তার পরিবার কত টাকা পাবে?

লোকসানের শঙ্কায় পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা

লোকসানের শঙ্কায় পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা

১৪০ কোটি টাকার ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত

১৪০ কোটি টাকার ওষুধ কেনার সিদ্ধান্ত

এপ্রিলে ভ্যাট রিটার্ন দেননি প্রায় দেড় লাখ ব্যবসায়ী

এপ্রিলে ভ্যাট রিটার্ন দেননি প্রায় দেড় লাখ ব্যবসায়ী

মহারাষ্ট্রে ট্যাংকারে লিক, হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে ২২ রোগীর মৃত্যু

মহারাষ্ট্রে ট্যাংকারে লিক, হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে ২২ রোগীর মৃত্যু

‘আ.লীগের সকল নেতাকর্মীর মূল্যবোধে আঘাত করেনি নূর’

‘আ.লীগের সকল নেতাকর্মীর মূল্যবোধে আঘাত করেনি নূর’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

কওমি মাদ্রাসায় সরকারি প্রণোদনা দেওয়ার দাবি

অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট শুরু, ব্যস্ততা বেড়েছে বিমানবন্দরে

অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট শুরু, ব্যস্ততা বেড়েছে বিমানবন্দরে

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

লকডাউনে ৬ বেঞ্চে চলবে হাইকোর্টের বিচারিক কাজ: সুপ্রিম কোর্ট

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

তিন দিনে বিদেশ গেছেন সাড়ে ৮ হাজার প্রবাসী

তিন দিনে বিদেশ গেছেন সাড়ে ৮ হাজার প্রবাসী

আইনজীবীর সঙ্গে পুলিশের অসৌজন্যমূলক আচরণ, ঢাকা বারের প্রতিবাদ

আইনজীবীর সঙ্গে পুলিশের অসৌজন্যমূলক আচরণ, ঢাকা বারের প্রতিবাদ

আজও তাপমাত্রার রেকর্ড, রাজশাহীতে ৪০.৩ ডিগ্রি 

আজও তাপমাত্রার রেকর্ড, রাজশাহীতে ৪০.৩ ডিগ্রি 

‘নারী চিকিৎসকের প্রতি পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের অসৌজন্যমূলক আচরণ দেখা যায়নি’

‘নারী চিকিৎসকের প্রতি পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেটের অসৌজন্যমূলক আচরণ দেখা যায়নি’

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ৬ জুন

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ৬ জুন

লকডাউনে মাঠে পুলিশ, ঝুঁকি এড়াতে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান

লকডাউনে মাঠে পুলিশ, ঝুঁকি এড়াতে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune