X
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

গড়াইয়ের ভাঙনে তিন শতাধিক বসতবাড়ি বিলীনের পথে

আপডেট : ১২ জুলাই ২০২০, ১৩:২৯

ভাঙন পাড়ের মানুষের মানববন্ধন ঝিনাইদহের শৈলকুপার তিনটি ইউনিয়নের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে গড়াই নদী। নদীটির ভাঙনে ওই এলাকার ৫টি গ্রামের কয়েকশ' বসতবাড়ি ও ফসলি জমি হুমকির মুখে। গত কয়েকদিনে নতুন করে ভাঙন দেখা দেওয়ায় এবং ওই এলাকায় প্রতিরক্ষা বাঁধ না থাকায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী। ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে গত শুক্রবার মানববন্ধন করেছেন সারুটিয়া ইউনিয়নের বড়ুরিয়া গ্রামের ভাঙনকবলিত মানুষ।

যেকোনও সময় নদীগর্ভে বিলীন হতে পারে টিউবওয়েল ক্ষতিগ্রস্তরা বলেন, 'নদীর হিংস্র থাবায় এ উপজেলার সারুটিয়া, হাকিমপুর ও ধলোহরাচন্দ্র ইউনিয়নের নদীর পাড়ভিত্তিক গ্রামগুলোর শতশত বিঘা ফসলি জমি ও বাড়ির একাংশ হারিয়ে গেছে। নদীর করাল গ্রাসে হুমকির মুখে পড়েছে বড়ুরিয়া মসজিদ ও পাশের বাজারসহ তিন শতাধিক বসতবাড়ি।' তারা আরও বলেন, 'দ্রুত নদী ভাঙন ঠেকানো না গেলে গ্রামের শতশত পরিবার পথে বসবে।' ক্ষতিগ্রস্তরা অভিযোগ করেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ভাঙন প্রতিরোধে গুরুত্ব না দেওয়ায় তারা স্থায়ী প্রতিরক্ষা বাঁধ পাচ্ছেন না।

ভাঙনকবলিত এলাকা এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা সরোয়ার জাহান সুজন বলেন, 'জরুরি প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণের জন্য প্রকল্প চেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ পেলেই কাজ শুরু করা হবে।' তিনি আরও বলেন, 'স্থায়ী প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ ছাড়া ভাঙন প্রতিরোধ করা সম্ভব না।'

এলাকাবাসীর মানববন্ধন উল্লেখ্য, কুষ্টিয়া থেকে ভাটিতে আসা গড়াই নদী ঝিনাইদহের শৈলকুপার লাঙ্গলবাঁধ পর্যন্ত প্রায় ৪০ কিলোমিটার অংশে প্রবাহিত। ১৯৯০ সালের পর থেকে বছরের পর বছর এ নদীর ভাঙনের করাল গ্রাসে তিনটি ইউনিয়ন ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক পরিবার বসতভিটা ও ঘরবাড়ি ছেড়ে পথে বসেছে। সারুটিয়া, হাকিমপুর ও ধলোহরাচন্দ্র  ইউনিয়নের গড়াই নদীর পাড়ভিত্তিক বড়ুরিয়া, কৃঞ্চনগর, মাঝদিয়া, মাদলা ও লাঙ্গলবাঁধ বাজার এখন হুমকির মুখে পড়েছে। প্রতিরক্ষা বাঁধ না দেওয়ায় প্রায় ১৪শ' বিঘা ফসলি জমি ও প্রায় ১০০টি বাড়ির একাংশ নদী গ্রাস করে নিয়েছে। সম্প্রতি অতিবৃষ্টির কারণে পানি বৃদ্ধি পাওয়ার পর থেকেই নদীর এ ভাঙন শুরু হয়েছে। তাই এলাকাবাসী অনতিবিলম্বে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানো এবং প্রতিরক্ষা বাঁধ দেওয়ার অনুরোধ জানান।

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

এবার গরুরও জীবন বিমা

এবার গরুরও জীবন বিমা

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে টিকিট সংগ্রহকারীই দাঁতের ডাক্তার!

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে টিকিট সংগ্রহকারীই দাঁতের ডাক্তার!

খুলনার করোনা হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় ৯ মৃত্যু

খুলনার করোনা হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় ৯ মৃত্যু

প্রতিনিয়ত হটস্পট বদলাচ্ছে করোনা, এরপর কোথায়?

প্রতিনিয়ত হটস্পট বদলাচ্ছে করোনা, এরপর কোথায়?

খুলনা জেনারেল হাসপাতালকেও করা হচ্ছে করোনা ইউনিট

খুলনা জেনারেল হাসপাতালকেও করা হচ্ছে করোনা ইউনিট

খুমেকের ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২০০ জনের করোনা শনাক্ত

খুমেকের ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২০০ জনের করোনা শনাক্ত

শার্শায় ৩০ নমুনা পরীক্ষায় আক্রান্ত ২২, কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ

শার্শায় ৩০ নমুনা পরীক্ষায় আক্রান্ত ২২, কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত

প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে হামলা মামলার আসামি বিএনপি নেতার মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে হামলা মামলার আসামি বিএনপি নেতার মৃত্যু

সর্বশেষ

মহামারিতেই বিয়েটা সেরে ফেললেন তারা

মহামারিতেই বিয়েটা সেরে ফেললেন তারা

রিজার্ভ থেকে শ্রীলঙ্কাকে ঋণ দেবে বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী

রিজার্ভ থেকে শ্রীলঙ্কাকে ঋণ দেবে বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংকে লেনদেন সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংকে লেনদেন সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

ওয়ারীতে লেগুনা উল্টে চালকের স্ত্রীর মৃত্যু

ওয়ারীতে লেগুনা উল্টে চালকের স্ত্রীর মৃত্যু

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

এটিএম কার্ড জালিয়াতি করে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ

পালিয়েছে ব্যাংক কর্মকর্তা, চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এবার গরুরও জীবন বিমা

এবার গরুরও জীবন বিমা

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে টিকিট সংগ্রহকারীই দাঁতের ডাক্তার!

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে টিকিট সংগ্রহকারীই দাঁতের ডাক্তার!

খুলনার করোনা হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় ৯ মৃত্যু

খুলনার করোনা হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় ৯ মৃত্যু

খুলনা জেনারেল হাসপাতালকেও করা হচ্ছে করোনা ইউনিট

খুলনা জেনারেল হাসপাতালকেও করা হচ্ছে করোনা ইউনিট

খুমেকের ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২০০ জনের করোনা শনাক্ত

খুমেকের ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২০০ জনের করোনা শনাক্ত

শার্শায় ৩০ নমুনা পরীক্ষায় আক্রান্ত ২২, কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ

শার্শায় ৩০ নমুনা পরীক্ষায় আক্রান্ত ২২, কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

যুবককে পিটিয়ে হত্যা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

৫৫ কোটি টাকার বিদেশি ক্রেনে মোংলায় পণ্য খালাস দ্বিগুণ হবে

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ও শনাক্ত

প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে হামলা মামলার আসামি বিএনপি নেতার মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে হামলা মামলার আসামি বিএনপি নেতার মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune