X
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

হেফাজত নেতা জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

আপডেট : ০৭ মে ২০২১, ০৯:২৭

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছেন ভুক্তভোগী এক নারী। শুক্রবারে (৭ মে) ভোর রাতে হাটহাজারী থানায় এ মামলা দায়ের করা হয় বলে জানিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম।

বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ওই নারী নিজে থানায় এসে গ্রেফতার নোমান ফয়েজীর বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(১) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা তদন্তের জন্য একজন উপপরিদর্শককে (এসআই) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এর আগে বুধবার (৫ মে) বিকালে কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে চট্টগ্রাম জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম তাকে গ্রেফতার করেছিল। ওই দিন সন্ধ্যায় তাকে চট্টগ্রাম নিয়ে আসার পর বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে তুলে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত তার পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) বিকালে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক সংবাদ সম্মেলন করে জানান, জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর একাধিক নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত শারীরিক ও প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। পুলিশ সুপার বলেন, জাকারিয়া নোমান ফয়েজীকে গ্রেফতারের পর আমরা তার কাছ একটি মোবাইল সেট উদ্ধার করি। সেখানে আমরা তার একাধিক নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের প্রমাণ পেয়েছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি নিজেও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তার দুই থেকে তিন জনের সঙ্গে সম্পর্ক আছে।

এদিকে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ফেসবুকের মাধ্যমে ওই নারীর সঙ্গে জাকারিয়া নোমান ফয়েজীর পরিচয় ঘটে। মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে সে মেয়েটিকে ফুসলাতে থাকে। তাকে বিয়ের  প্রলোভন দেয় এবং হাটহাজারীতে আসতে বলে। মেয়েটি ফয়েজীর প্রলোভনে হাটহাজারী আসে এবং তাকে ২০১৯ সালের নভেম্বরে কনক বিল্ডিংয়ের নিচ তলায় বাসা ভাড়া করে দেয়।  মেয়েটি দীর্ঘ এক বছর ফয়েজীর ভাড়া করা ওই বাসায় অবস্থানকালে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে ফয়েজী তাকে ধর্ষণ করে। এরপর হাটহাজারী থেকে চট্টগ্রাম শহরে খালার বাসায় চলে আসার পরও বিভিন্ন বাসা ও হোটেলে নিয়ে গিয়ে বিয়ের প্রলোভনে বিভিন্ন সময়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।

আরও পড়ুন-

একাধিক নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল হেফাজত নেতা জাকারিয়ার

হেফাজতের বিলুপ্ত কমিটির প্রচার সম্পাদক গ্রেফতার

/এফএস/

সম্পর্কিত

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

৩ কেজি গাঁজাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

৩ কেজি গাঁজাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপালের দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপালের দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

প্রি-পেইড গ্রাহকের ঘাড়ে ডিজিটাল মিটারের ৩ বছরের বিল

প্রি-পেইড গ্রাহকের ঘাড়ে ডিজিটাল মিটারের ৩ বছরের বিল

৬ দিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা নাসির

৬ দিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা নাসির

ক্যাসিনো হোতা এনু-রুপনের জামিন বিষয়ে রায় ১৪ জুলাই

ক্যাসিনো হোতা এনু-রুপনের জামিন বিষয়ে রায় ১৪ জুলাই

নাসির-অমির রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন আইনজীবীরা

নাসির-অমির রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন আইনজীবীরা

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ৩১ আগস্ট

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ৩১ আগস্ট

দুদকের বরখাস্ত পরিচালক বাছিরের জামিন আবেদন

দুদকের বরখাস্ত পরিচালক বাছিরের জামিন আবেদন

নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে

নাসির-অমি ৫ দিনের রিমান্ডে

ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তায় পুলিশের ৭ পরামর্শ

ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তায় পুলিশের ৭ পরামর্শ

সর্বশেষ

ব্রাজিলের কাছে হেরে আর্জেন্টাইন রেফারিকে দুষলেন কলম্বিয়া কোচ

ব্রাজিলের কাছে হেরে আর্জেন্টাইন রেফারিকে দুষলেন কলম্বিয়া কোচ

খুলনার ৩ হাসপাতালে আরও ৬ মৃত্যু

খুলনার ৩ হাসপাতালে আরও ৬ মৃত্যু

তৃতীয় দিনের মতো বন্ধ দূরপাল্লার গণপরিবহন

তৃতীয় দিনের মতো বন্ধ দূরপাল্লার গণপরিবহন

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না রাখা গেলে ভারতের মতো অবস্থা হবে

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না রাখা গেলে ভারতের মতো অবস্থা হবে

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে সর্বোচ্চ ১৮ মৃত্যু

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

ইউরোর শেষ ষোলোয় কারা দেখে নিন

ইউরোর শেষ ষোলোয় কারা দেখে নিন

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

শত বছরের বোতল বন্দি চিঠিতে কী লেখা ছিলো?

শত বছরের বোতল বন্দি চিঠিতে কী লেখা ছিলো?

এইচটি ইমামের ছেলে এমপি তানভিরের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা

এইচটি ইমামের ছেলে এমপি তানভিরের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা

দেশের উত্তরাঞ্চলে গড়ে উঠবে গ্যাসভিত্তিক শিল্প

দেশের উত্তরাঞ্চলে গড়ে উঠবে গ্যাসভিত্তিক শিল্প

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

চট্টগ্রামে উপজেলাগুলোতে রোগী বাড়ছে

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

বাড়িতে হামলার প্রতিবাদে সড়কে ওবায়দুল কাদেরের দুই বোন

৩ কেজি গাঁজাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

৩ কেজি গাঁজাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

প্রি-পেইড গ্রাহকের ঘাড়ে ডিজিটাল মিটারের ৩ বছরের বিল

প্রি-পেইড গ্রাহকের ঘাড়ে ডিজিটাল মিটারের ৩ বছরের বিল

৬ দিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা নাসির

৬ দিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা নাসির

এই দেশে সন্ত্রাসীদের কোনও স্থান নেই: নওফেল

এই দেশে সন্ত্রাসীদের কোনও স্থান নেই: নওফেল

হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে অজগরের ২৮ বাচ্চা

হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে অজগরের ২৮ বাচ্চা

নও মুসলিম ফারুক হত্যার বিচার চাইলো ইমাম সমাজ

নও মুসলিম ফারুক হত্যার বিচার চাইলো ইমাম সমাজ

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

মায়ের বিরুদ্ধে মেয়ের পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা

মায়ের বিরুদ্ধে মেয়ের পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা

© 2021 Bangla Tribune