X
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

সাতক্ষীরায় ৬৪৭ জন করোনা রোগী, হাসপাতালে শুধু ৫৯

আপডেট : ১১ জুন ২০২১, ১৮:১৭

গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও সদর হাসপাতালে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন একজন; বাকিরা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। শুক্রবার (১১ জুন) বিকেলে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. হুসাইন শাফায়াত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৫২ দশমিক ৬১ শতাংশ। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ৯৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। সংক্রমণের হার ছিল ৫০ দশমিক ৫২ শতাংশ।

বর্তমানে জেলাজুড়ে ছয় শতাধিক করোনা রোগী সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, সদর হাসপাতাল, বিভিন্ন ক্লিনিক এবং নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলায় এ পর্যন্ত ১০ হাজার ২৮৫টি নমুনা পরীক্ষা করে দুই হাজার ২৫৬ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা ৬৪৭ জন। এর মধ্যে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৩৭ জন ও সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ২২ জন চিকিৎসাধীন। বাকিরা বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

এদিকে জেলায় করোনার সংক্রমণ না কমায় গত ৫ জুন থেকে চলা লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ১৭ জুন পর্যন্ত করা হয়েছে। লকডাউনে সকাল ৮টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত কাঁচাবাজার খোলা থাকায় বাজারে জনসমাগম থাকলেও রাস্তায় কমেছে মানুষের চলাচল। সকাল থেকে ছোট ছোট কিছু যানবাহন চলছে। জরুরি সেবা ছাড়া বড় যানবাহন রাস্তায় নেই।

সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, শহরের হাসপাতাল, নারিকেলতলা, পাকাপোল, নিউমার্কেট ও বড়বাজারসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশি টহল অব্যাহত আছে। টহল অব্যাহত আছে উপজেলা শহরগুলোতেও। শহরের বিভিন্ন এলাকার লিংক রোডগুলোতে বাঁশ দিয়ে মানুষের চলাচল সীমিত করা হয়েছে। সীমান্তে বিজিবি পাহারার পাশাপাশি শহর ও প্রান্তিকপর্যায়ে কাজ করছে র‌্যাব।

/এএম/

সম্পর্কিত

ভারতের গ্রামে চলছে ‘করোনাদেবীর’ পূজা

ভারতের গ্রামে চলছে ‘করোনাদেবীর’ পূজা

‘যত ভালো যোগাযোগ ব্যবস্থা, তত বেশি সংক্রমণ’

‘যত ভালো যোগাযোগ ব্যবস্থা, তত বেশি সংক্রমণ’

বিরক্তিকর মনে হওয়ায় মাস্ক পরি না

বিরক্তিকর মনে হওয়ায় মাস্ক পরি না

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ শতাংশের বেশি

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ শতাংশের বেশি

খুলনার করোনা হাসপাতালে একদিনে আরও ৫ জনের মৃত্যু

খুলনার করোনা হাসপাতালে একদিনে আরও ৫ জনের মৃত্যু

দীর্ঘায়িত হচ্ছে দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষা, বাড়ছে শঙ্কা ও প্রশ্ন

দীর্ঘায়িত হচ্ছে দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষা, বাড়ছে শঙ্কা ও প্রশ্ন

খুলনায় বাড়ছে সংক্রমণ, আরও এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ

খুলনায় বাড়ছে সংক্রমণ, আরও এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ

কুষ্টিয়ায় করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু

এর আগে একদিনে খুলনায় এত মানুষ আক্রান্ত হয়নি

এর আগে একদিনে খুলনায় এত মানুষ আক্রান্ত হয়নি

১৫ ঘণ্টা পড়েছিলো বিধানের লাশ, সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

১৫ ঘণ্টা পড়েছিলো বিধানের লাশ, সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

সর্বশেষ

আ.লীগ নেতাদের অস্ত্রের মহড়া, মুখ খুলছেন না গণপূর্তের কর্মকর্তারা

আ.লীগ নেতাদের অস্ত্রের মহড়া, মুখ খুলছেন না গণপূর্তের কর্মকর্তারা

ডেনিশদের দুঃখের এক রাত, ইউরোয় ফিনিশ-চমক

ডেনিশদের দুঃখের এক রাত, ইউরোয় ফিনিশ-চমক

‘সাইকেল বালক’ দিয়ে শুরু জ্যোতির ‘রে হাউজ’

‘সাইকেল বালক’ দিয়ে শুরু জ্যোতির ‘রে হাউজ’

ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচ ফের শুরু

ডেনমার্ক-ফিনল্যান্ড ম্যাচ ফের শুরু

নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫৩

নাইজেরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫৩

সাড়া দিচ্ছেন এরিকসেন

সাড়া দিচ্ছেন এরিকসেন

উত্তরায় গৃহকর্মী নির্যাতন, একজন কারাগারে 

উত্তরায় গৃহকর্মী নির্যাতন, একজন কারাগারে 

মোহাম্মদপুরে ইয়াবা ‘কেনা-বেচার’ সময় গ্রেফতার তিন

মোহাম্মদপুরে ইয়াবা ‘কেনা-বেচার’ সময় গ্রেফতার তিন

রিতার সঙ্গে গাইবেন লোপেজ

রিতার সঙ্গে গাইবেন লোপেজ

মাঠেই লুটিয়ে পড়লেন এরিকসেন (ভিডিও)

মাঠেই লুটিয়ে পড়লেন এরিকসেন (ভিডিও)

ছোট কাঁধে বড় ভার

বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবসছোট কাঁধে বড় ভার

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বিরক্তিকর মনে হওয়ায় মাস্ক পরি না

বিরক্তিকর মনে হওয়ায় মাস্ক পরি না

খুলনার করোনা হাসপাতালে একদিনে আরও ৫ জনের মৃত্যু

খুলনার করোনা হাসপাতালে একদিনে আরও ৫ জনের মৃত্যু

খুলনায় বাড়ছে সংক্রমণ, আরও এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ

খুলনায় বাড়ছে সংক্রমণ, আরও এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ

কুষ্টিয়ায় করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু

এর আগে একদিনে খুলনায় এত মানুষ আক্রান্ত হয়নি

এর আগে একদিনে খুলনায় এত মানুষ আক্রান্ত হয়নি

১৫ ঘণ্টা পড়েছিলো বিধানের লাশ, সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

১৫ ঘণ্টা পড়েছিলো বিধানের লাশ, সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

লকডাউনের আগেই রাজশাহীতে ছড়িয়েছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

লকডাউনের আগেই রাজশাহীতে ছড়িয়েছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

© 2021 Bangla Tribune