X
সোমবার, ০২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

মুখ খুলতে শুরু করেছেন ভুক্তভোগীরা

আপডেট : ১৬ জুন ২০২১, ২০:২১

পাবনায় গণপূর্ত ভবনে অস্ত্র নিয়ে মহড়ায় নেতৃত্ব দেওয়া হাজী ফারুক হোসেন জোরপূর্বক ঠিকাদারি কাজ নিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের এক প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২৩ মে জেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটলেও স্থানীয় প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়া হয়।

গণপূর্ত বিভাগে অস্ত্র নিয়ে মহড়ার বিষয়ে সমালোচনা শুরু হলে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুকের নানা অনিয়ম নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেন ভুক্তভোগীরা। এরই মধ্যে ফারুকের হাতে লাঞ্ছিত হওয়ার কথা জানালেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের পাবনার সহকারী প্রকৌশলী ও দরপ্রস্তাব মূল্যায়ন কমিটির সভাপতি আব্দুল খালেক।

তিনি বলেন, সম্প্রতি স্থানীয় সরকার বিভাগের অধীনে পাবনার ফরিদপুর উপজেলায় প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকায় একটি রাস্তা নির্মাণে দরপত্র আহ্বান করা হয়। ২৩ মে দুপুরে হঠাৎ হাজী ফারুক হোসেন আমার কক্ষে এসে কাজটি তাকে দেওয়ার দাবি করেন। নিয়ম অনুযায়ী আবেদন, দরপ্রস্তাব ও কাগজপত্র ঠিক থাকলে কাজ পাবেন। যোগ্যতা না থাকলে বাতিল হবে জানালে, তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে আমাকে মারতে উদ্যত হন। সহকর্মীরা তাকে নিবৃত্ত করলেও আমাকে দেখে নেবেন বলে হুমকি দেন ফারুক।

এ বিষয়ে কেন আইনগত ব্যবস্থা নেননি জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রধান কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিত আকারে বিষয়টি জানিয়েছি। আমি মামলার প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কিন্তু প্রভাবশালী দুজন জনপ্রতিনিধি বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ নিয়ে আমাদের অফিসে আসেন। নির্বাহী প্রকৌশলী মোকলেসুর রহমান তাদের উপস্থিতিতে বিষয়টি মীমাংসা করে নেন।

আব্দুল খালেক বলেন, আমি নিয়মনীতির বাইরে কোনও কাজ করি না। সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেব সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে চাই। এমন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোটেও প্রত্যাশা করি না।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের পাবনার নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমানের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি একটি মীমাংসিত বিষয়। এ নিয়ে কথা বলার কিছু নেই। সব বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যায় না। সাক্ষাতে বিস্তারিত জানাবো। সমঝোতা বৈঠকে উপস্থিত থাকা জনপ্রতিনিধিদের নাম জানতে চাইলে বলতে রাজি হননি নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান।

স্থানীয় সরকার বিভাগের একটি সূত্র জানায়, ঠিকাদারি কাজ নিয়ন্ত্রণ ও অনিয়ম, নিম্নমানের কাজ করে বিধিবহির্ভূতভাবে বিল আদায় করতে সরকারি কর্মকর্তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, লাঞ্ছিত ও মারধরের অভিযোগ এটিই প্রথম নয়। এর আগেও কর্মকর্তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও লাঞ্ছিত করেছেন হাজী ফারুক। তার দাপটে সরকারি সব দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সাধারণ ঠিকাদাররা আতঙ্কিত। মান সম্মানের ভয়ে আইনের আশ্রয় নেওয়া তো দূরের কথা, তার বিরুদ্ধে মুখ খোলারই সাহস করেন না কেউ।

এর আগে গত ১৯ অক্টোবর হাজী ফারুক জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসে ঢুকে সুপারিনটেনডেন্ট মুশফিকুর রহমানকে লাঞ্ছিত করলে জীবনের নিরপত্তা চেয়ে সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

মো. মুশফিকুর রহমান বলেন, জেলা ফিনান্স ও অ্যাকাউন্টস অফিস থেকে সব সরকারি কর্মকর্তার বেতন ও উন্নয়নকাজের বিলের অর্থ দেওয়া হয়। নাইস কন্ট্রাসটাকশনের মালিক ফারুক হোসেন তার ঠিকাদারি কাজের জামানাতের পাঁচটি চালান হারিয়ে পরে ডুপ্লিকেট চালান তৈরি করে বিল দাখিল করেন। বিষয়টি আইন সম্মত না হওয়ায় হারিয়ে যাওয়া জামানাতের চালানের অনুকূলে থানায় সাধারণ ডায়েরিসহ বিল দাখিলের পরামর্শ দেওয়া হয়। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওই দিন বিকালে ম্যানেজার আসাদকে সঙ্গে নিয়ে হিসাবরক্ষণ অফিসে এসে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে মারতে উদ্যত হন ফারুক। এ সময় অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ছুটে এসে তাকে থামাতে গেলে আমাকে হত্যার হুমকি দেন।

গোয়েন্দা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, নাইস কনস্ট্রাকশনের মালিক ফারুক হোসেন একসময় ঠিকাদারের সাইট ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেছেন। পরে তিনি বিদেশে চলে যান। ২০০৮ সালে ফেরেন। এরপর পাউবো, এলজিইডিসহ বিভিন্ন দফতরের দরপত্র ছিনতাই, ঠিকাদারদের টেন্ডারে অংশগ্রহণে বাধা ও সিন্ডিকেট করে কাজ ভাগিয়ে নিতে শুরু করেন ফারুক।

স্থানীয় প্রভাবশালী এক নেতার ছত্রছায়ায় একপর্যায়ে টেন্ডার সমঝোতা কমিটির নীতিনির্ধারক হয়ে যান। পরিচিতি পান নিগো ফারুক হিসেবে। ধীরে ধীরে এলজিইডির উন্নয়নকাজে আধিপত্য বিস্তার করে কখনও নিম্নমানের কাজ করে, কখনও কাজ না করে বিল তুলে সম্পদ গড়েন তিনি।

গত বছর ফারুক তার নাইস কনস্ট্রাকশনের অধীনে কয়েক কোটি টাকার ঠিকাদারি মেশিনারিজ, ব্যক্তিগত দুটি পাজেরো গাড়ি, কার ও মোটরসাইকেলসহ প্রচুর সম্পদের মালিক হয়েছেন। সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের বাসভবনের সামনে সাবেক মন্ত্রী মেজর (অব) মঞ্জুর কাদেরের বিলাস বহুল বাড়ি কিনে ভাড়া দিয়েছেন।

এ বিষয়ে হাজী ফারুক বলেন, প্রকৌশলী আব্দুল খালেকের সঙ্গে আমার কাজ নিয়ে কোনও ঝামেলা হয়নি। একটু কথা কাটাকাটি হয়েছিল। আমি ক্ষমা চেয়েছি। বিভিন্ন কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিতের বিষয়ে তিনি বলেন, আমি কাউকে লাঞ্ছিত করিনি। কেউ এর আগে অভিযোগও করেনি।

অল্প সময়ের ব্যবধানে অনেক সম্পদের মালিক হওয়ার বিষয়ে হাজী ফারুক বলেন, অবৈধপথে সম্পদশালী হইনি। পৈতৃক সূত্রে কিছু সম্পদ ছিলো। ঠিকাদারি ব্যবসায় ভালো করায় সম্পদ বেড়েছে। এতে দোষের কিছুই নেই।

/এএম/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

যেকোনও সময়ের চেয়ে বর্তমানে খাদ্য মজুত পরিস্থিতি ভালো: খাদ্যমন্ত্রী            

যেকোনও সময়ের চেয়ে বর্তমানে খাদ্য মজুত পরিস্থিতি ভালো: খাদ্যমন্ত্রী            

বগুড়ায় বাসচাপায় পোশাক শ্রমিক নিহত

বগুড়ায় বাসচাপায় পোশাক শ্রমিক নিহত

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১১:০৭

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২ আগস্ট) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে করোনায় সাত ও উপসর্গে আট জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে রাজশাহীর ছয়, নাটোরের দুই, পাবনার পাঁচ, কুষ্টিয়ার এক ও নওগাঁর এক জন। নয় জন পুরুষ ও ছয় জন নারী। তাদের আট জনের বয়স ৬১ বছরের ওপরে। ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দুই, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সের মধ্যে তিন ও ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যে দুই জন।

শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জন ভর্তি হয়েছেন। একই সময় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৫৯ জন। সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনা ইউনিটের ৫১৩ শয্যার বিপরীতে ৩৯৯ জন ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন ২০ জন। করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগীদের মধ্যে ১৭৪ জন করোনায় আক্রান্ত। উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১৪৬ জন। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া করোনামুক্ত হয়েও পরবর্তী স্বাস্থ্য জটিলতায় চিকিৎসাধীন ৭০ জন।

হাসপাতাল পরিচালক জানান, রাজশাহীতে করোনা সংক্রমণের হার ওঠা-নামা করছে। রবিবার দুইটি ল্যাবে রাজশাহী জেলার ৩৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ১৭ শতাংশ। এর আগের দিন শনিবার ছিল ৩২ দশমিক ৭১ শতাংশ, শুক্রবার ২৪ দশমিক ৩২ শতাংশ, বৃহস্পতিবার ২২ দশমিক ৮৮ শতাংশ ও বুধবার ২৮ দশমিক ৯০ শতাংশ।

শামীম ইয়াজদানী বলেন, হাসপাতালে পৃথক চারটি প্যাথলজিক্যাল সেবা চালু করা হয়েছে। এখন থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আর বাইরে যেতে হবে না।

তিনি আরও বলেন, ডি-ডাইমার, ডি-হাইড্রোজেনেস, সিআরপি, সিরাম ফেরিটিন পরীক্ষাগুলো রামেক হাসপাতালেই হবে। এই পরীক্ষাগুলো বাইরের ডায়াগনস্টিক সেন্টারে করতে অনেক টাকা নেয়। তাই হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের জন্য এই সেবা চালু করা হয়েছে। সরকার নির্ধারিত ৬০০ টাকায় ডি-ডাইমার, ২৫০ টাকায় সিরাম ফেরিটিন এবং ১৫০ টাকায় ডি-হাইড্রোজেনেস ও সিআরপি পরীক্ষা করা যাবে। পাশাপাশি আইসিইউতে ভর্তি রোগীদের আরও তিনটি পরীক্ষা একসঙ্গে ৬০০ টাকায় করা হবে। ইসিজির ব্যবস্থা আগে থেকেই ছিল। এর সঙ্গে এখন ট্রপোনিন আইও টেস্ট করা যাবে ৫০০ টাকায়।

তিনি বলেন, করোনা রোগীদের এই পরীক্ষাগুলো একাধিকবার করতে হয়। ফলে করোনা পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যয়ভার বহন করতে না পেরে অনেক রোগী পরোপুরি সুস্থ হওয়ার আগেই রাজশাহী মেডিক্যাল ছেড়ে চলে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যবস্থা পরিবর্তন আনা হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে একদিনে ২৩ মৃত্যু

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে একদিনে ২৩ মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

খুলনা বিভাগে একদিনে ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৮০

খুলনা বিভাগে একদিনে ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৮০

ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি ৪ ডেঙ্গু রোগী

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১০:৫৪

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে চারজন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। হাসপাতালের ডেঙ্গু বিষয়ক ফোকাল পারসন ডা. হরিমোহন পন্ডিত নিউটন এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, হাসপাতালের তৃতীয়তলার ১৫ নম্বর মেডিসিন ইউনিটে জেলার ঈশ্বরগঞ্জের অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান (৪০), মহানগরীর নওমহল এলাকার খায়রুল বাসার (৪০), সদরের পরানগঞ্জের ভ্যানচালক ওহাব আলী (৬৫) ও ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে এক মেডিক্যাল শিক্ষার্থী ডেঙ্গু আক্রান্ত আক্রান্ত হয়ে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ডা. হরিমোহন পন্ডিত নিউটন আরও জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত মেডিক্যাল শিক্ষার্থী পুরোপুরি সুস্থ হওয়ায় তাকে রিলিজ দেওয়া হবে। অপর ডেঙ্গু রোগীদের মশারি টানিয়ে সাধারণ রোগীদের সঙ্গে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ডেঙ্গু রোগী অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান জানান, তিনি ঢাকার উত্তরায় বসবাস করেন। গত ২২ জুলাই তার শরীরে জ্বর অনুভূত হয়। শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে গত ২৭ জুলাই ময়মনসিংহে এসে হাসপাতালের ১৫ নম্বর মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে শারীরিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

রোগী ভ্যানচালক ওহাব আলী জানান, তিনি ঢাকার উত্তরখান এলাকায় ভ্যান চালান। শরীরে ব্যথা ও জ্বর দেখা দেওয়ায় প্রথমে উত্তরার একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নেন। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ৩০ জুলাই ময়মনসিংহে এসে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

অপর রোগী খায়রুল বাশার বনশ্রীতে জনতা ব্যাংকে কর্মরত। তিনি গত ২৮ জুলাই ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হলে রাতেই ময়মনসিংহে এসে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এদিকে ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন মেডিক্যাল শিক্ষার্থী ময়মনসিংহে থেকেই ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মেডিক্যাল শিক্ষার্থীর নাম ও ঠিকানা বলতে রাজি হয়নি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

যে যেভাবে পারছেন ফিরছেন

যে যেভাবে পারছেন ফিরছেন

মৃত্যু বেড়েছে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে

মৃত্যু বেড়েছে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে একদিনে ২৩ মৃত্যু

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১০:২৭

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় মারা গেছেন পাঁচ জন। সোমবার (২ আগস্ট) সকালে হাসপাতালের পরিচালক কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, রবিবার (১ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৫ জন। তাদের মধ্যে ৩৭ জন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। একই সময়ে (গত ২৪ ঘণ্টায়) বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে ৫৬ জন করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে নয় জন করোনায় আক্রান্ত। ২২টি আইসিইউ শয্যার একটিও ফাঁকা নেই।

সোমবার সকাল পর্যন্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের করোনা ওয়ার্ডে মোট চিকিৎসাধীন ৩১১ জন। তাদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১১৪ জনের। অন্যরা এ ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন।

এদিকে শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে প্রকাশিত রবিবার রাতের সবশেষ রিপোর্টে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষায় ১০৫ জনের করোনা পজিটিভ আসে। শনাক্তের হার ৫৫.৮৫ শতাংশ।

২০২০ সালের মার্চ থেকে এ পর্যন্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের করোনা ওয়ার্ডে মোট ছয় হাজার ৩৯৬ জন ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন এক হাজার ৯৮৪ জন। ছাড়পত্র নিয়েছেন চার হাজার ৯৬৮ জন। এক হাজার ৫৫৫ জন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। আর মারা গেছেন এক হাজার ১১৭ জন। মৃতদের মধ্যে ৩২৩ জন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।
 

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া, পোশাকশ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১০:১৯

অতিরিক্ত ভাড়া ও সড়কে পর্যাপ্ত গণপরিবহন না থাকায় মহাসড়ক অবরোধ করেছেন পোশাকশ্রমিকরা। সোমবার (২ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৭টা থেকে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার ২নং সিঅ্যান্ডবি এলাকার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেন তারা। এ সময় সড়কের উভয় পাশে ছোট ছোট যানবাহন আটকা পড়ে।

মাস্টারবাড়ী এলাকার ভিনটেক্স কারখানার সুইং অপারেটর আশরাফুন্নাহার শেফু, ডেনিমেক্স কারখানার বারটেক অপারেটর উজ্জ্বল মিয়া, বহেরারাচালা এলাকার টি-ডিজাইন কারখানার প্যাকিং অপারেটর শহিদুল ইসলাম, বেড়াইদেরচালা এলাকার ডিজাইনন্টেক্স কারখানার কোয়ালিটি সেকশনের কেয়া খাতুনসহ অন্যান্য শ্রমিকরা জানান, সরকার সব কারখানা খুলে দিয়ে গণপরিবহন বন্ধ করে রেখেছে। এতে সড়কে গণপরিবহন না পাওয়ার কারণে তারা সময়মতো অফিসে যেতে পারছেন না। ছোট ছোট পরিবহন সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাগুলো ১০ টাকার ভাড়া ৩০ টাকা করে নিচ্ছে।

শ্রমিকরা আরও বলেন, আমরা তাৎক্ষণিক ঘোষণা শুনে কোনোমতে বাড়ি থেকে এসে চাকরি বাঁচানোর জন্য কাজে যোগ দিচ্ছি। এখন আমাদের হাতে টাকা নেই। বাড়ি থেকে আসার সময় অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েও বিড়ম্বনা মাথায় নিয়ে আসতে হয়েছে। এখন অফিসে যাওয়ার সময়ও প্রতিদিন এ বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। আমরা যাবো কোথায়? আমাদের কথা শোনার কেউ নেই। সবাই খালি আমাদেরকে আশ্বাস দেয়। গার্মেন্টে চাকরি করে বলে কি আমাদের জীবনের কোনও মূল্য নেই?

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে যানবাহনে বেশি ভাড়া নেওয়া হবে না বলে  শ্রমিকদের আশ্বাস দেন। পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান, সকাল সাড়ে ৯টায় তারা অবরোধ তুলে নেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পর্নোগ্রাফিতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতন, স্বামীর কারাদণ্ড

পর্নোগ্রাফিতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতন, স্বামীর কারাদণ্ড

ছেলের হাতে বাবা খুন, ২২ ঘণ্টায় আদালতে অভিযোগপত্র

ছেলের হাতে বাবা খুন, ২২ ঘণ্টায় আদালতে অভিযোগপত্র

হাসেম ফুড কারখানায় আগুন: ৪৫ মরদেহ শনাক্ত

হাসেম ফুড কারখানায় আগুন: ৪৫ মরদেহ শনাক্ত

দিনভর ভোগান্তি শেষে স্বাভাবিক ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক

দিনভর ভোগান্তি শেষে স্বাভাবিক ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করে ৬ লাখ টাকা ছিনতাই

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ০৯:৫৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের স্টেশন রোড এলাকার নান্টু রায় (৪০) নামের এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করে ছয় লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার (১ আগস্ট) দিবাগত রাত ১২টার দিকে স্টেশন রোড এলাকার চন্দ্রিমা হোটেলের গলিতে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর আহত ব্যবসায়ীকে প্রথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তার মাথার আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আহত ব্যবসায়ী নান্টু রায় শহরের কাজীপাড়া এলাকার মহাপ্রভু রায়ের ছেলে। তিনি আবুল খায়ের কোম্পানির স্টার শিপ কনডেন্স মিল্কের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ডিস্ট্রিবিউটর।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আবুল খায়ের কোম্পানির রিজিউনাল অফিসার লিটন পাল জানান, রবিবার পৌনে ১২টার দিকে ব্যবসায়ী নান্টু রায় স্টেশন রোড এলাকার তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে শহরের কাজীপাড়া এলাকায় যাচ্ছিলেন। এ সময় চন্দ্রিমা হোটেলের গলি দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ তার পেছন থেকে ৪-৫ জন যুবক ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে তার সঙ্গে থাকা অন্তত ছয় লক্ষাধিক টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ছিনতাইকারীরা প্রত্যেকেই মুখোশ পরা ছিল। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

আহত ব্যবসায়ীর চাচাতো ভাই উত্তম রায় জানান, ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত অবস্থায় নান্টু রায়কে প্রথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল আনা হয়। পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আরিফুল রহমান হিমেল জানান, মাথার আঘাত গুরুতর হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নান্টু রায়কে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরানু্ল ইসলাম বলেন, ছিনতাইয়ের বিষয়ে আমাদের কাছে কোনও তথ্য নেই। এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

সিআরবিতে নলকূপ স্থাপন বন্ধে ওয়াসার এমডির কাছে অভিযোগ

সিআরবিতে নলকূপ স্থাপন বন্ধে ওয়াসার এমডির কাছে অভিযোগ

নেমপ্লেট খুলে চাঁদা তোলার অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

নেমপ্লেট খুলে চাঁদা তোলার অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

‘দেড় লাখ টাকায় মিনুকে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল’

‘দেড় লাখ টাকায় মিনুকে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল’

সর্বশেষ

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির প্রয়োজন কী?

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির প্রয়োজন কী?

ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি ৪ ডেঙ্গু রোগী

ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি ৪ ডেঙ্গু রোগী

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে একদিনে ২৩ মৃত্যু

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে একদিনে ২৩ মৃত্যু

যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া, পোশাকশ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া, পোশাকশ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করে ৬ লাখ টাকা ছিনতাই

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করে ৬ লাখ টাকা ছিনতাই

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ১১ জনের মৃত্যু

রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে রাজধানীর যে ৪ হাসপাতাল

রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে রাজধানীর যে ৪ হাসপাতাল

স্পারসোতে চাকরির সুযোগ

স্পারসোতে চাকরির সুযোগ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের মামলা তদন্ত করবে ডিবি

হেলেনা জাহাঙ্গীরের মামলা তদন্ত করবে ডিবি

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালে ২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন

বিদেশে নিজের অবস্থান জানান দিলেন বঙ্গবন্ধু

বিদেশে নিজের অবস্থান জানান দিলেন বঙ্গবন্ধু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৫ মৃত্যু

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, গুরুতর আহত ১

যেকোনও সময়ের চেয়ে বর্তমানে খাদ্য মজুত পরিস্থিতি ভালো: খাদ্যমন্ত্রী            

যেকোনও সময়ের চেয়ে বর্তমানে খাদ্য মজুত পরিস্থিতি ভালো: খাদ্যমন্ত্রী            

বগুড়ায় বাসচাপায় পোশাক শ্রমিক নিহত

বগুড়ায় বাসচাপায় পোশাক শ্রমিক নিহত

বগুড়ায় একদিনে ১৬ মৃত্যু

বগুড়ায় একদিনে ১৬ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৮ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৮ জনের মৃত্যু

রাজশাহী থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল শুরু

রাজশাহী থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল শুরু

গৃহবধূকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

গৃহবধূকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

দুই সন্তানকে রাস্তায় ফেলে গেলেন মা

দুই সন্তানকে রাস্তায় ফেলে গেলেন মা

পাবনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

পাবনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

© 2021 Bangla Tribune