X
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

চালের দাম বাড়ার কোনও কারণ দেখছি না: বাণিজ্যমন্ত্রী

আপডেট : ১৭ জুন ২০২১, ১৫:১৮

বোরো ফসল ভালো হওয়ার পরেও চালের দাম বাড়ার কোনও কারণ দেখছেন না বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। চালের দাম বাড়ার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, এখন চালের দাম বাড়ার কোনও কারণ দেখছি না। কেননা এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। চাল দাম যেন কোনও সিন্ডিকেট চক্রের কারসাজিতে না বাড়ে সে দিকটি দেখা হচ্ছে। এতে যদি কৃষকরা লাভবান হয় সেটাও দেখতে হবে। খাদ্য মন্ত্রণালয় পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) রংপুর নগরীর নবদীগঞ্জে হিমাগার মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বমুখীভাব ও এ বিষয়ে নেওয়া পদক্ষেপ সম্পর্কে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, শুধু সয়াবিন তেল ছাড়া নিত্য প্রয়োজনীয় অন্য জিনিষপত্রের মূল্য অনেকটাই স্বাভাবিক রয়েছে। পৃথিবীর সব জায়গায় সয়াবিন তেলের দাম বেড়েছে। এর প্রভাবে আমাদের দেশেও দাম বেড়েছে। তারপরেও আমরা বিদেশ থেকে আমদানি কত টাকায় করা হচ্ছে, কর দেওয়ার পর অন্যান্য খরচ মিলিয়ে যৌক্তিক মূল্যের বেশি যাতে দাম নিতে না পারে, সে জন্য ভোক্তা অধিকার কঠোরভাবে মনিটারিং করছে বলে জানান তিনি।

মন্ত্রী এসময় আগামী দুই মাসের মধ্যে তিস্তা নদীর খনন কাজ শুরু হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, চীনের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলাপ আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। বাজেট অধিবেশনের পর এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, তিস্তা নদী খনন করার পর নদীর দুইধারে বিস্তীর্ণ এলাকা তৈরি হবে। সেখানে বিভিন্ন ধরনের শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে হাজারো মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এরআগে, নবদীগঞ্জে এলাকায় হিমাগারে এসে পৌঁছালে হিমাগার মালিক সমিতির নেতারা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। তিনি হিমাগার মালিকদের সঙ্গে তাদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেন এবং সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের ৬ দফা দাবি সংবলিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন তিস্তা বাঁচাও, নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের সম্মানিত সভাপতি অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ইসলাম হক্কানী, সাধারণ সম্পাদক শফিয়ার রহমান, স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক ডক্টর তুহিন ওয়াদুদ, নুরুজ্জামান খান খান। স্মারকলিপিতে ৬ দফা দাবি জানানো হয়। এর মধ্যে নদী সুরক্ষায় মহাপরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন, অভিন্ন নদী হিসেবে ভারতের সঙ্গে ন্যায্য হিস্যার ভিত্তিতে তিস্তা চুক্তি সম্পন্ন, তিস্তা নদীতে সারা বছর পানির প্রবাহ ঠিক রাখতে জলাধার নির্মাণের কথা বলা হয়। এছাড়া তিস্তার ভাঙনে বন্যা ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনসহ অন্যান্য দাবিও তোলা হয়। মন্ত্রী বলেন তাদের দাবি বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে উদ্যেগ গ্রহণ করেছেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

গৃহহীনদের এত ঘর দেয়নি কোনও সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

গৃহহীনদের এত ঘর দেয়নি কোনও সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

গৃহহীনদের এত ঘর দেয়নি কোনও সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৬:৩৭

সামাজিক উন্নয়নের জন্য স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি সর্বোপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় জনগণের পাশে আছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের জীবনমান উন্নয়ন কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে গৃহহীন জনগণকে ঘর দেওয়ার প্রক্রিয়া জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের এক অবিস্মরণীয় পদক্ষেপ। গৃহহীনদের এত ঘর আর কোনও সরকার দেয়নি।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালে জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের চর পোগলদিঘা গ্রামের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীদের ও পৌর এলাকার তারিয়াপাড়ায় তৃতীয় লিঙ্গের জন্য নির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত অনেক সরকার এসেছে, কোনও সরকার এত বিপুল পরিমাণ গৃহহীনকে ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার কথা চিন্তাও করেনি। জাতির পিতার কন্যা সেই স্বপ্নকে বাস্তবে পরিণত করে প্রমাণ করেছেন, ‘যতদিন শেখ হাসিনার হাতে দেশ, ততদিন পথ হারাবে না বাংলাদেশ।’ 

প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত উপকারভোগীদের উদ্দেশে বলেন, সবাই মিলে একতাবদ্ধ হয়ে সমবায় সমিতি তৈরি করুন। পরস্পরের সহযোগিতায় নিজেদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করতে হবে। এসময় উপকারভোগীদের সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন প্রতিমন্ত্রী। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মোর্শেদা জামান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমেদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাইজুল ওয়াসিমা নাহাত, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশাসহ আরও নেতাকর্মীরা।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

খুলনায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনা

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৬:২১

খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৭৯৩ জন।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে- খুলনা ও কুষ্টিয়ায় ৮ জন করে, যশোরে ৭, ঝিনাইদহে ৫, চুয়াডাঙ্গায় ২, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, নড়াইল এবং মেহেরপুরে একজন করে রয়েছেন।

করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৯২ হাজার ৩৬১ জন। দুই হাজার ৩৬৯ জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন ৬৭ হাজার ৭৭১ জন।

খুলনায় আজ শনাক্ত ১৬৬, মোট শনাক্ত ২৩ হাজার ৬৩১, মোট মৃত্যু ৬২০ এবং সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৩৯ জন। বাগেরহাটে আজ শনাক্ত ৪১, মোট শনাক্ত পাঁচ হাজার ৯৪১, মোট মৃত্যু ১২২ এবং সুস্থ হয়েছেন পাঁচ হাজার ২০৮ জন। সাতক্ষীরায় আজ শনাক্ত ৪৯, মোট শনাক্ত পাঁচ হাজার ৬২২, মোট মৃত্যু ৮৫ এবং সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ৩৩১ জন।

যশোরে আজ শনাক্ত ১৪২, মোট শনাক্ত ১৮ হাজার ৬৩১, মোট মৃত্যু ৩৪১ এবং সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৮৬৩ জন। নড়াইলে আজ শনাক্ত ২০, মোট শনাক্ত চার হাজার ৭৮, মোট মৃত্যু ৯২ এবং সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ২৫৮ জন। মাগুরায় আজ শনাক্ত ৫৫, মোট শনাক্ত তিন হাজার ২৮, মোট মৃত্যু ৬৭ এবং সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮৬৮ জন। ঝিনাইদহে আজ শনাক্ত ৭৫, মোট শনাক্ত সাত হাজার ৪৮৮, মোট মৃত্যু ১৯৯ এবং সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ৭২৩ জন।

কুষ্টিয়ায় আজ শনাক্ত ১৪৭, মোট শনাক্ত ১৪ হাজার ১৯৭, মোট মৃত্যু ৫৪৮ এবং সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৫৭৫ জন। চুয়াডাঙ্গায় আজ শনাক্ত ৪৩, মোট শনাক্ত পাঁচ হাজার ৯৯৪, মোট মৃত্যু ১৫৯ এবং সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ৯০৩ জন। মেহেরপুরে নতুন শনাক্ত ৫৫, মোট শনাক্ত তিন হাজার ৭৫১, মোট মৃত্যু ১৩৬ এবং সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার তিনজন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ডোবায় মিললো শিশুর হাত-পা বাঁধা লাশ 

ডোবায় মিললো শিশুর হাত-পা বাঁধা লাশ 

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৬:২৩

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় একটি কবরস্থান থেকে বোমাসদৃশ ছয়টি বস্তু উদ্বার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৩০ জুলাই) দুপুরে উপজেলার ব্রহ্মনদী ইউনিয়নের উজান গোপিন্দি বড় বিনাইচর কবরস্থান থেকে এগুলো উদ্বার করা হয়। 

নারায়ণগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (গ সার্কেল) আবির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বস্তুগুলো পুলিশ ঘিরে রেখেছে। ঢাকা থেকে বোম ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এসে যাচাই-বাছাই করে দেখবে এগুলো বোমা নাকি ককটেল।

তিনি আরও জানান, আজ বেলা ১১টার দিকে কবস্থান পরিষ্কার করতে গিয়ে স্থানীয় লোকজন একটি কবরের সামনে পলিথিন দিয়ে মোড়ানো ছয়টি বোমাসদৃশ বস্তু দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে জায়গাটি ঘিরে রেখেছে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান জানান, এগুলো বোমা নাকি ককটেল সেটা বোঝা যাচ্ছে না। বোম ডিসপোজাল ইউনিট এলে বোঝা যাবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

টানা বৃষ্টিতে কক্সবাজারের ৪১৩ গ্রাম প্লাবিত

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫:৪৮

টানা তিন দিনের ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে কক্সবাজারে ৪১৩টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। গত বুধবার রাতভর ও বৃহস্পতিবারের (২৯ জুলাই) ভারী বৃষ্টিতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে জেলার দুই লাখেরও বেশি মানুষ। ডুবে গেছে জনপদ। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মাছের ঘের, পানের বরজ ও বিভিন্ন ফসলি জমি।

টানা বর্ষণ অব্যাহত থাকায় ভারী বর্ষণে পাহাড় ধস ও পানিতে ডুবে রোহিঙ্গাসহ ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে টেকনাফে ছয়, উখিয়ায় রোহিঙ্গাসহ নয়, মহেশখালীতে পাহাড় ধসে দুই ও ঈদগাঁওতে তিন জন মারা গেছেন। জেলার প্রধান নদী বাঁকখালী ও মাতামুহুরী নদীর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

দুই লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন জানায়, টানা বৃষ্টিতে কক্সবাজারের ৪১৩টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে ৫৫ হাজার ১৫০টি পরিবারের দুই লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি পড়েছে। জেলার ৭১টি ইউনিয়ন ও চারটি পৌরসভার মধ্যে ৪১টি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ক্ষতির পরিমাণ তিন কোটি টাকা। প্লাবিত এসব এলাকায় ৩০টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, কক্সবাজার সদর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের ৫৮ গ্রাম, রামু উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের ৩৫ গ্রাম, চকরিয়া উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের ১০০ গ্রাম, পেকুয়া উপজেলার দুইটি ইউনিয়নের ছয় গ্রাম, মহেশখালী উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের ৩৮ গ্রাম, উখিয়া উপজেলার দুইটি ইউনিয়নের ১২০ গ্রাম ও টেকনাফ উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ৫৬ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ক্ষতির পরিমাণ তিন কোটি টাকা

জেলা প্রশাসনের দেওয়া এই তথ্যে কুতুবদিয়া উপজেলার প্লাবিত এলাকার সংখ্যা পাওয়া যায়নি। তবে কুতুবদিয়া উপজেলায় অন্তত ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে বলে জানা গেছে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ জানান, প্লাবিত এলাকার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ১৩৫ মেট্রিক টন চাল ও পাঁচ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে। প্রয়োজনে জরুরি ভিত্তিতে আরও ত্রাণ বরাদ্দ দেওয়া হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

কুমিল্লায় প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সংকট, ভোগান্তিতে রোগীরা

কুমিল্লায় প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধের সংকট, ভোগান্তিতে রোগীরা

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

ডোবায় মিললো শিশুর হাত-পা বাঁধা লাশ 

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫:০৯

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে লিমন মোল্লা (১০) নামে এক শিশুর হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দিবাগত রাতে শিশুটির মরদেহ তার বাড়ির অদূরে একটি ডোবায় পাওয়া যায়। লিমন মোল্লা দোনা গ্রামের ব্যবসায়ী ইমন মোল্লার ছেলে। সে স্থানীয় এপি কালিকাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল।

লিমনের পিতা ইমন মোল্লা বলেন, পূর্ব শত্রুতার কারণে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। লিমন সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নিখোঁজ হয়। এরপর তাকে অনেক খোঁজ করে রাতে একটি ডোবায় হাত-পা বাঁধা অবস্থায় পাওয়া যায়। দ্রুত মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, নিহত শিশুটির লাশ থানায় নেওয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।



/টিটি/

সম্পর্কিত

খুলনায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনা

খুলনায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনা

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

বাগেরহাটে পানিবন্দি অর্ধ লক্ষাধিক পরিবার

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

টানা বৃষ্টিতে সাতক্ষীরায় ব্যাপক ক্ষতি, বাঁধ ভাঙার শঙ্কা

সর্বশেষ

সাবেক ডেপুটি স্পিকার ও সংসদ সদস্য আলী আশরাফ মারা গেছেন

সাবেক ডেপুটি স্পিকার ও সংসদ সদস্য আলী আশরাফ মারা গেছেন

আফগান দোভাষীদের যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়া শুরু

আফগান দোভাষীদের যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়া শুরু

পরীক্ষামূলক সম্প্রচারে স্পাইস টিভি

পরীক্ষামূলক সম্প্রচারে স্পাইস টিভি

বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় বাল্যবিবাহ দ্বিগুণ বেড়েছে: ঐক্য ন্যাপ

বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় বাল্যবিবাহ দ্বিগুণ বেড়েছে: ঐক্য ন্যাপ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

খুলনায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনা

খুলনায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিলো করোনা

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

‘গেলো ৬ বছরের তুলনায়  সড়কে এবার ঈদে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়েছে’

‘গেলো ৬ বছরের তুলনায় সড়কে এবার ঈদে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি বেড়েছে’

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

আমার সেই কাঙ্ক্ষিত গান এটি: টিনা রাসেল

আমার সেই কাঙ্ক্ষিত গান এটি: টিনা রাসেল

ম্যাচ শুরুর একঘণ্টা আগে লিগ স্থগিত!

ম্যাচ শুরুর একঘণ্টা আগে লিগ স্থগিত!

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের ঘরে থাকার নির্দেশ

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের ঘরে থাকার নির্দেশ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গৃহহীনদের এত ঘর দেয়নি কোনও সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

গৃহহীনদের এত ঘর দেয়নি কোনও সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

আড়াইহাজারে কবরস্থানে বোমাসদৃশ ৬ বস্তু ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা

করোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

ময়মনসিংহ মেডিক্যালকরোনার প্রতি লাশে ৩০০ টাকা করে নিতেন হাসপাতাল কর্মকর্তা! 

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৮ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৮ মৃত্যু

চট্টগ্রামে রেকর্ড শনাক্তের দিনে আরও ৯ মৃত্যু 

চট্টগ্রামে রেকর্ড শনাক্তের দিনে আরও ৯ মৃত্যু 

পায়রা বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত, হুমকিতে কুয়াকাটা বে‌ড়িবাঁধ

পায়রা বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত, হুমকিতে কুয়াকাটা বে‌ড়িবাঁধ

© 2021 Bangla Tribune