X
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ঢাবিতে ৮৩১ কোটি ৭৯ লাখ টাকার বাজেট পাস

আপডেট : ২৪ জুন ২০২১, ২১:১২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য ৮৩১ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বাজেট পাস করা হয়েছে। যা গত বছরের সংশোধিত বাজেটের চাইতেও ৩৭ কোটি ৭৭ লাখ টাকা কম।

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে বার্ষিক সিনেট অধিবেশন ২০২১-২০২২-এ কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বাজেট পেশের পর সিনেট সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে বাজেট পাস হয়।

বেলা ৩টায় অধিবেশন শুরু হয়। এসময় সিনেট ভবনের সামনে কর্মচারীদের চাকরির বয়সসীমা ৬৫ করার দাবিতে আন্দোলন করতে থাকেন। ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বাজেট আলোচনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে তাদের দাবি পর্যালোচনার আহ্বান জানান।

অধিবেশনের শুরুতে ঢাবি উপাচার্য ও সিনেটের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান অভিভাষণ দেন।

২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে বেতন, ভাতা ও পেনশন বাবদ ৬১১ কোটি ৮৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকা (৭৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ), গবেষণাখাতে ১১ কোটি (১ দশমিক ৩২ শতাংশ), অন্যান্য খাতে ১৯ কোটি ১২ লাখ (২ দশমিক ৩০ শতাংশ), পণ্য ও সেবাখাতে ১৬৮ কোটি ৭ লাখ ৩৫ হাজার (২০ দশমিক ২০ শতাংশ) এবং মূলধন খাতে ২১ কোটি ৬৯ লাখ (২ দশমিক ৬১ শতাংশ) বরাদ্দ করা হয়েছে।

বাজেটে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (বিমক) অনুদান দেবে ৬৯৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা, নিজস্ব খাত থেকে আয় হবে ৬৫ কোটি টাকা এবং ৭০ কোটি ২৫ লাখ টাকা ঘাটতি থাকবে।

অধিবেশনে ২০২০-২০২১ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট পেশ করা হয়। ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের মূল বাজেট ছিল ৮৬৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। ৯৫ কোটি ২৭ লাখ ৫৮ হাজার কমিয়ে সংশোধিত বাজেট দাঁড়ায় ৭৭৪ কোটি ২৮ লাখ ৪২ হাজার টাকা। উক্ত সংশোধিত বাজেটে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন থেকে অনুদান ৬৬৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা এবং নিজস্ব আয় হিসেবে ৬০ কোটি টাকাসহ আয় ধরা হয়েছে ৭৩৩ কোটি ৬ লাখ টাকা। ফলে ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ৪৭ কোটি ৫২ লাখ ৪২ হাজার টাকা।

/ইউএস/

সম্পর্কিত

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

ঢাকায় আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হচ্ছে আজ

ঢাকায় আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হচ্ছে আজ

দেড় বছর পর ক্যাম্পাসে ফিরে উৎফুল্ল বাকৃবি শিক্ষার্থীরা

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩০

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) খুলে দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে বাকৃবির শ্রেণিকক্ষ খুলে দেওয়া হয়।

প্রথম দিন কৃষি, পশুপালন ও মৎস্য অনুষদের বিএসসি অনার্স লেভেল চতুর্থ সেমিস্টার ১-এর শিক্ষার্থীদের ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের সময় মাস্ক পরা নিশ্চিত করা হয়। এ ছাড়া সবার হাতে স্যানিটাইজার দিয়ে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করানো হয়।

শিক্ষার্থীদের হাতে স্যানিটাইজার দিয়ে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করানো হয়

দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাসে ফিরে উৎফুল্ল শিক্ষার্থীরা। পশুপালন অনুষদের বিএসসি অনার্স লেভেল ৪, সেমিস্টার-১ এর শিক্ষার্থী শামসুন্নাহার বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আমরা প্রায় দেড় বছর ক্যাম্পাসে আসতে পারিনি। এই সময়ে আমাদের লেখাপড়ার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাসে এসে খুব ভালো লাগছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মহির উদ্দিন জানান, আজ থেকে বিএসসি অনার্স লেভেল ৪-এর এবং মাস্টার্স শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাস ও পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সবকিছু সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে। 

ক্যাম্পাসে ফিরে উৎফুল্ল বাকৃবি শিক্ষার্থীরা

তিনি আরও জানান, এর আগে গত শুক্রবার ছেলেদের নয়টি এবং মেয়েদের চারটিসহ ১৩টি ছাত্রাবাস খুলে দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. লুৎফুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত গত শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ছাত্রাবাস খুলে দেওয়া হয়েছে। আজ সকাল থেকেই ক্লাস ও পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এরপর পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষার্থীকে ক্লাসে ও পরীক্ষায় ফিরিয়ে আনার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পরিবহন ফি নিয়ে বিভ্রান্তি, ভোগান্তিতে কুবি শিক্ষার্থীরা

পরিবহন ফি নিয়ে বিভ্রান্তি, ভোগান্তিতে কুবি শিক্ষার্থীরা

শুক্রবার খুলছে বাকৃবির ছাত্রাবাস

শুক্রবার খুলছে বাকৃবির ছাত্রাবাস

কুবিতে একসঙ্গে ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

কুবিতে একসঙ্গে ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে দেশসেরা খুবির ফার্মিনেফ

তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে দেশসেরা খুবির ফার্মিনেফ

গৃহনির্মাণ ঋণ পাবেন শাবির শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৮

দীর্ঘ দিনের চেষ্টার পর গৃহনির্মাণ ঋণ পাওয়ার সুবিধায় এসেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। ২০১৩ সাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গৃহ নির্মাণে ঋণ প্রদানের জন্য বিভিন্ন ব্যাংকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছিল। এ ধারাবাহিকতায় সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে হওয়া চুক্তির বলে স্বল্প সুদে হোলসেলে গৃহনির্মাণ ও পার্সোনাল ঋণ পাবেন শাবিতে কর্মরতরা। 

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে ব্যাংকিং ব্যবস্থার মাধ্যমে হোলসেল ভিত্তিতে ঋণের ব্যবস্থা করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের মধ্যে পার্সোনাল ও গৃহনির্মাণ ঋণ প্রদানের সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

চুক্তি অনুসারে, এখন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা তাদের চাকরির বয়সসীমা ও বেতন স্কেল অনুসারে গৃহ নির্মাণে ঋণ নিতে পাবেন। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সংক্রান্ত গঠিত কমিটির কাছে নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। তবে ঋণ নিলে প্রায় ৯ শতাংশ হারে সুদ প্রদান সাপেক্ষে পাঁচ বছরের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে উপাচার্য বলেন, গৃহ নির্মাণে সহজ ঋণের ব্যবস্থা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি মাইলফলক। দীর্ঘদিন থেকে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দাবি ছিল গৃহ নির্মাণে ঋণের ব্যবস্থা করা। আমরা এই চুক্তির মাধ্যমে সেই সুবিধা সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছি। সোনালী ব্যাংক আমাদেরকে সেই সুযোগ দিচ্ছে। 

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসি কুমার দাস, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেনসহ সিন্ডিকেট সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক, প্রক্টর, শিক্ষক সমিতির নেতারা, বিভিন্ন দফতরের প্রধান ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে সোনালী ব্যাংকের পক্ষে সোনালী ব্যাংকের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জি. মো. ইদ্রিস, প্রধান অর্থ কর্মকর্তা ও হেড অফিসের মহাব্যবস্থাপক সুভাষ চন্দ্র দাস, সিলেট আঞ্চলিক অফিসের মহাব্যবস্থাপক বাবুল মো. আলম, সোনালী ব্যাংকের শাবি শাখা ব্যবস্থাপক এরশাদ আলীসহ ব্যাংকের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

গবেষণায় চুরি ঠেকাতে শাবিতে কর্মশালা

গবেষণায় চুরি ঠেকাতে শাবিতে কর্মশালা

শাবি শিক্ষার্থীদের হল ভাড়া ও পরিবহন ফি মওকুফ

শাবি শিক্ষার্থীদের হল ভাড়া ও পরিবহন ফি মওকুফ

আরও ৪ বছর শাবিপ্রবির উপাচার্য থাকছেন ফরিদ আহমেদ

আরও ৪ বছর শাবিপ্রবির উপাচার্য থাকছেন ফরিদ আহমেদ

ভূমিকম্পে শাবির কয়েকটি ভবনে ফাটল

ভূমিকম্পে শাবির কয়েকটি ভবনে ফাটল

আইসিটি চাকরি বিষয়ক ইউল্যাবের ভার্চুয়াল আয়োজন

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৪

ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব)-এর উদ্যোগে ‘ইন্ডাস্ট্রি-অ্যাকাডেমিয়া ডায়লগ টু এমপাওয়ার আইসিটি জবস’ শিরোনামে একটি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছে। আইসিটি চাকরির নিয়োগ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান টেকএনট্যালেন্টস ও বাংলাদেশ সোসাইটি ফর প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি অ্যাকাডেমিক্স-এর সহযোগিতায় ১১ সেপ্টেম্বর এটি আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. বিকর্ণ কুমার ঘোষ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট তপন কান্তি সরকার এবং কিনোট উপস্থাপনা করেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো. এনামুল কবির।

৩ ঘণ্টার এই কর্মসূচিতে বিভিন্ন আয়োজন ছিল। যেমন, আইসিটি কেরিয়ার রোডম্যাপ বিষয়ক কিনোট, প্যানেলিস্ট সেশন, আইসিটি/সিএসই শিক্ষার্থীদের জন্য কুইজ প্রতিযোগিতা, আইসিটি কোম্পানির পক্ষ থেকে কাজের প্রস্তাব এবং আইসিটি চাকরির নিয়োগ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান টেকএনট্যালেন্টসকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। প্যানেল আলোচনায় আইসিটি খাতের নেতৃবৃদ্ধ, সিনিয়র শিক্ষাবিদ ও মানবসম্পদ কর্মকর্তারা অংশ গ্রহণ করেন। এটি সঞ্চালনায় ছিলেন টেকএনট্যালেন্টস-এর প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আসিফ।

এই আয়োজনের লক্ষ্য ছিল আইসিটি দক্ষতা, মেধা বের করে আনা। এবং তরুণ মেধাবীদের আইআর ৪.০ এর জন্য প্রস্তুত করা। ইউল্যাবের সিএসই বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সৈয়দ আখতারের ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়। সবশেষে কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের নাম ঘোষণা ও পুরস্কার প্রদান করা হয়। সূত্র: প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

/এএ/

সম্পর্কিত

দেড় বছর পর ক্যাম্পাসে ফিরে উৎফুল্ল বাকৃবি শিক্ষার্থীরা

দেড় বছর পর ক্যাম্পাসে ফিরে উৎফুল্ল বাকৃবি শিক্ষার্থীরা

গৃহনির্মাণ ঋণ পাবেন শাবির শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

গৃহনির্মাণ ঋণ পাবেন শাবির শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

করোনার বন্ধে চবির আপ্যায়ন খরচ ৩৭ লাখ 

করোনার বন্ধে চবির আপ্যায়ন খরচ ৩৭ লাখ 

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪১

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের এমএস কোর্সে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আগামী ১৯ অক্টোবরের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ বিভাগীয় অফিসে যোগাযোগ করে অফিস কর্তৃক নির্ধারিত ফরমে লিখিত আবেদন করতে বলা হয়েছে। 

পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. তানভীর হানিফ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তির যোগ্যতা সম্পর্কে বলা হয়েছে- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের যে কোনও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থ বিজ্ঞান, গণিত, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং, ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান ইলেকট্রনিক ও কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রনিক অ্যান্ড ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ হতে চার বছর মেয়াদি সম্মান ডিগ্রি সম্পন্ন করা শিক্ষার্থীরা এই কোর্সে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এছাড়া প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিজ্ঞান ও গণিতে মেজরসহ ডিগ্রিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরাও দরখাস্ত করতে পারবেন। তবে লিখিত বা মৌখিক পরীক্ষার ভিত্তিতে ভর্তি করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। 

আবেদন করতে যা যা লাগবে:
ক) এসএসসি ও এইচএসসি এবং অনার্স ১ম বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ পর্যন্ত সকল মার্কশিটের সত্যায়িত ফটোকপি। 
খ) সদ্য তোলা ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি।
গ) আগামী ১৯ অক্টোবরের মধ্যে আবেদন বিভাগীয় অফিসে জমা দিতে হবে। 
ঘ) ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফরম বাবদ ১ হাজার টাকা জমা দিতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষা সিলেবাস:
Atomic & Molecular Physics, Classical Mechanics & Special Theory of Relativity. Quantum Mechanics, Thermodynamics & Statistical Mechanics, Classical Electrodynamics.

উল্লেখ্য যে, ভর্তি প্রক্রিয়াটি একাডেমিক কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক সম্পন্ন হবে।

/ইউএস/

সম্পর্কিত

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

হোটেল-মেসে মিলছে না সিট, বিপাকে রাবির ভর্তিচ্ছুরা

হোটেল-মেসে মিলছে না সিট, বিপাকে রাবির ভর্তিচ্ছুরা

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

করোনার বন্ধে চবির আপ্যায়ন খরচ ৩৭ লাখ 

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০৯

করোনা পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল দীর্ঘদিন। তবু বন্ধ ক্যাম্পাসে আপ্যায়ন বাবদ ৩৭ লাখ টাকা খরচের কথা জানিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। এছাড়া শিক্ষার্থীদের বহনকারী শাটল ট্রেন বন্ধ থাকলেও ভাড়া বাবদ খরচ দেখানো হয়েছে ২০ লাখ টাকা। আর বন্ধ আবাসিক হলগুলোর বাল্ব ও লাইট কিনতে বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ হয়েছে সাত লাখ টাকা। 

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. এ আর মল্লিক প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে ৩৩তম সিনেট সভায় ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম মনিরুল হাসান। এ সময় তিনি এসব তথ্য জানান। এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট বাজেট ৩৬০ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

এরমধ্যে, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) বরাদ্দ ৩৩১ কোটি ৭৯ লাখ, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বরাদ্দ ২০ কোটি। ঘাটতি বাজেট রয়েছে আট কোটি ৯৮ লাখ টাকা। উচ্চশিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণায় বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১৪ কোটি ১৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা। গবেষণায় বরাদ্দ রয়েছে পাঁচ কোটি ৫০ লাখ টাকা। যা এ পর্যন্ত এ খাতের রেকর্ড বরাদ্দ। 

একইসঙ্গে সিনেট অধিবেশনে গত অর্থবছরের ৩৪৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা সংশোধিত বাজেট অনুমোদিত হয়।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকলেও ২০২০-২১ অর্থবছরে আপ্যায়ন বাবদ ৩৭ লাখ টাকা, রেল ভাড়ায় ২০ লাখ টাকা খরচকে অস্বাভাবিক বলছেন সংশ্লিষ্টরা। নতুন অর্থবছরে এসব খাতে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে যথাক্রমে ৩৫ লাখ ও এক কোটি ২০ লাখ টাকা। যানবাহন বাবদ ২০২১-২২ সালে মোট বরাদ্দ দিয়েছে এক কোটি ৮৫ লাখ টাকা।

আবার বন্ধ আবাসিক হলের বাল্ব বাবদ সাত লাখ টাকা খরচ হয়েছে। এটা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। 

চবির প্রশাসনিক ভবন বাজেট বইয়ের ১৫ ও ১৮ পৃষ্ঠায় ‘বাংলা নববর্ষ ভাতা’ শিরোনামে দুটি খাত উল্লেখ রয়েছে। এতে ১৫ পৃষ্ঠা অনুযায়ী ২০২১ সালের বাংলা নববর্ষ উদযাপন খরচ দেখানো হয়েছে ৩৪ লাখ টাকা। অবশ্য এ সংক্রান্ত বাজেট ছিল ৩০ লাখ টাকার। এর আগে ২০২০ সালেও নববর্ষ উদযাপন না হওয়ার পরেও খরচ দেখানো হয়েছিল ২৯ লাখ ৩৮ হাজার টাকা। নতুন অর্থবছরে এ খাতে বরাদ্দ ৩৫ লাখ টাকা। 

তবে বাজেট বইয়ের ১৮ পৃষ্ঠা অনুযায়ী ২০২১ সালের নববর্ষ উদযাপনের খরচ দুই কোটি ১২ লাখ ও ২০২০ সালের নববর্ষ উদযাপন খরচ এক কোটি ৯৫ লাখ টাকা দেখানো হয়েছে। আবার নতুন বছরের জন্য দুই কোটি ২৩ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

নববর্ষ উদযাপনের এই দুই ধরনের খরচের বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানাতে পারেননি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত হিসাব নিয়ামক ফরিদুল আলম চৌধুরী। তিনি বলেন, নববর্ষ উপলক্ষে হওয়া বড় খরচটি শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ভাতা বাবদ হয়েছে। অন্যান্য খরচের বিষয়ে আমাকে দেখে বলতে হবে।

প্রস্তাবিত বাজেটে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা খাতকে অগ্রাধিকার দিয়ে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২৩০ কোটি কোটি ৮৫ লাখ টাকা, যা মোট বাজেটের ৬৭ শতাংশ। তাদের পেনশনের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫৫ কোটি ৩ লাখ।

এর আগে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য চবির ৩৫১ কোটি ৮৫ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়। যেখানে বেতন ভাতা বাবদ বরাদ্দ ছিল ২২২ কোটি ২০ লাখ টাকা, যা মোট বাজেটের ৬৪ দশমিক ১৬ শতাংশ। গবেষণায় বরাদ্দ রাখা হয়েছিল চার কোটি ২০ লাখ টাকা, যা মোট বাজেটের ১ দশমিক ২৪ শতাংশ। পরিবহন খাতে তিন কোটি ৫০ লাখ টাকা বাজেট রাখা হয়েছিল।

২০২০-২১ খণ্ডকালীন শিক্ষকদের ভাতা বাবদ খরচ দেখানো হয়েছে ৯০ লাখ। এবার বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে এক কোটি টাকা

খরচে এসব অসঙ্গতির বিষয়ে সিনেট সদস্য ও উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এম এ গফুর বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বাজেটে অনেক খরচ দেখানো হয়েছে, কিন্তু কেন হয়েছে তার কোনও উত্তর নাই। বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, তাহলে এত টাকা খরচ হয় কীভাবে? কিন্তু সিনেটে কথা বলার সুযোগ নেই, সময়ই পাওয়া যায় না।’

তিনি বলেন, ‘খণ্ডকালীন শিক্ষক কোথায়? ক্লাসই তো হয়নি, তাহলে তাদের বেতন কোথা থেকে এলো? এভাবে প্রায় ১৫-২০টি খাত আছে, যার খরচ অস্বাভাবিক। অথচ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সুবিধা, করোনার বিষয়ে কোনও অগ্রগতি নাই। একটা বিশ্ববিদ্যালয় তো এভাবে চলতে পারে না।’ 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এস‌এম মনিরুল হাসান কিছু জানাতে পারেননি। তিনি বলেন, বাজেটের বিষয়টি হিসাব নিয়ামক জানেন।  

ভারপ্রাপ্ত হিসাব নিয়ামক ফরিদুল আলম চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকলেও বিভিন্ন প্রোগ্রাম হয়েছে, সে সবের জন্য আপ্যায়ন খরচ হয়েছে। আর আবাসিক হল বন্ধ থাকলেও বিদ্যুৎ বন্ধ ছিল না। ১০টির বেশি হল আছে। সেগুলোতে বাল্বের পাশাপাশি আনুষঙ্গিক বিভিন্ন বিষয়ে খরচ হয়েছে। রেলের দুই মাসের ভাড়াও দিতে হয়েছে। সেগুলোই খরচ হিসেবে দেখানো হয়েছে।’

 

/টিটি/এমওএফ/

সম্পর্কিত

জাপানে ‘তরুণ বিজ্ঞানী’র স্বীকৃতি পেলেন বাংলাদেশি শিক্ষক

জাপানে ‘তরুণ বিজ্ঞানী’র স্বীকৃতি পেলেন বাংলাদেশি শিক্ষক

চবিতে দুই শিক্ষার্থীকে হেনস্তার অভিযোগ

চবিতে দুই শিক্ষার্থীকে হেনস্তার অভিযোগ

পরীক্ষার ফলাফল ভালো না হওয়ায় হাত কাটলেন চবি ছাত্র

পরীক্ষার ফলাফল ভালো না হওয়ায় হাত কাটলেন চবি ছাত্র

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

ঢাবিতে পদার্থ বিজ্ঞানে এমএস কোর্সে ভর্তির আবেদন আহ্বান

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

জুমে পরীক্ষা চলাকালেই পরীক্ষার্থী জানালেন- ‘মা আর নেই’

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

১৮ মাস পর খুললো ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি

ঢাকায় আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হচ্ছে আজ

ঢাকায় আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হচ্ছে আজ

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

ঢাবির হলের বারান্দায় ফাটল: পর্যবেক্ষণে কমিটি গঠন

বোর্ড বৃত্তিপ্রাপ্তদের ক্রেডিট ফি নেবে না হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়

বোর্ড বৃত্তিপ্রাপ্তদের ক্রেডিট ফি নেবে না হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়

কৃষ্ণচূড়া গাছ কাটায় ঢাবি শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

কৃষ্ণচূড়া গাছ কাটায় ঢাবি শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

গবেষণায় শিক্ষার্থীদের অনুদান দেবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

গবেষণায় শিক্ষার্থীদের অনুদান দেবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়

দুই সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত হতে পারে ঢাবি'র ডোপ টেস্ট নীতিমালা

দুই সপ্তাহের মধ্যে চূড়ান্ত হতে পারে ঢাবি'র ডোপ টেস্ট নীতিমালা

টেক্সিবিশন ইনোভেশন চ্যালেঞ্জে দ্বিতীয় রানার আপ হাবিপ্রবি’র টিম

টেক্সিবিশন ইনোভেশন চ্যালেঞ্জে দ্বিতীয় রানার আপ হাবিপ্রবি’র টিম

সর্বশেষ

পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে চাকরি, নেবে ২৫ জন

পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে চাকরি, নেবে ২৫ জন

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে দেড় ঘণ্টা

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে দেড় ঘণ্টা

কাবুলে বন্ধ হচ্ছে নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র

কাবুলে বন্ধ হচ্ছে নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র

যশোর রোডে সুবাতাসের পদযাত্রা শুরু

যশোর রোডে সুবাতাসের পদযাত্রা শুরু

অনিবন্ধিত ঋণ বিতরণকারী সংস্থা বন্ধে ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

অনিবন্ধিত ঋণ বিতরণকারী সংস্থা বন্ধে ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

© 2021 Bangla Tribune