X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

লকডাউন শিথিলে উদ্বেগ, টানা আরও ১৪ দিন কঠোরের সুপারিশ

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৭:৪৫

করোনা মহামারিতে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার এখন সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। ভয়াবহ এই পরিস্থিতিতে লকডাউন শিথিল করার সরকারি সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। সেই সঙ্গে সারাদেশে কঠোর এই লকডাউন টানা আরও ১৪ দিন বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে। গত সোমবার (১২ জুলাই) রাতে পরামর্শক কমিটির সভায় এ সুপারিশ করা হয়। বুধবার (১৪ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায় কমিটি।

যদিও পরামর্শক কমিটির সভার পরেরদিনই গত মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) এক প্রজ্ঞাপন জারি করে আজ বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) থেকে ৯ দিন বিধিনিষেধ শিথিল রাখার কথা জানিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। অবশ্য ঈদের তৃতীয় দিন (২৩ জুলাই) থেকে ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে। 

টিকা প্রদানের বয়স ১৮ বছর করার পরামর্শ
দেশে টিকা প্রদানের বয়স ১৮ বছর করার পরামর্শ দিয়েছে পরামর্শক কমিটি। প্রসঙ্গত, প্রথম দফায় টিকার নিবন্ধন করার জন্য সর্বনিম্ন বয়স ৫৫ নির্ধারণ করা হয়েছিল। যদিও পরে তা দুই দফায় কমিয়ে তা ৩৫-এ নামিয়ে আনা হয়েছে।

পরামর্শক কমিটির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে আমদের দেশে বিভিন্ন উৎস থেকে কোভিড-১৯ এর টিকা প্রাপ্তি নিশ্চিত হয়েছে। আবারও সারাদেশে একযোগে ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হওয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছে কমিটি। এই টিকার আওতায় দ্রুত আরও বেশি মানুষকে আনার উদ্দেশে টিকার বয়সসীমা ১৮ তে নামিয়ে আনা, এনআইডিবিহীন জনসাধারণকে টিকার আওতায় আনা, রেজিস্ট্রেশন সহজীকরণ ইত্যাদি বিষয়ে সরকারকে দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণের অনুরোধ করা হয়।

পশুর হাট বন্ধ রাখার সুপারিশ
করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাট বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। লকডাউনের অংশ হিসেবে কমিটি কোরবানির পশুর হাট বন্ধ রাখার প্রস্তাব করে প্রয়োজনে ডিজিটাল হাট পরিচালনার ব্যবস্থা করার পরামর্শ দিয়েছে। তবে সরকার লকডাউন শিথিল করে সীমিত পরিসরে কোরবানির পশুর হাট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিলে কিছু শর্ত বেধে দিয়েছে কমিটি।

সেগুলো হলো- শহর এলাকায় কোরবানির পশুর হাট বসার অনুমতি না দেওয়া। শারীরিক দূরত্ব এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে উন্মুক্ত স্থানে কোরবানির পশুর হাট বসানোর অনুমতি দেওয়া। বয়স্ক ব্যক্তি (৫০ বছরের বেশি বয়সী) এবং অন্য কোনও রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির কোরবানির হাটে না যাওয়া। হাটে প্রবেশ ও বের হওয়ার জন্য নির্দিষ্টভাবে আলাদা পথ রাখা। বাজারে আসা সকলের জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা। জনসাধারণকে ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে না গিয়ে, যে যেখানে আছেন সেখানে অবস্থান করার বিষয়ে উৎসাহিত করা। জনসাধারণের অনলাইন কোরবানির হাটের সুবিধা গ্রহণ উৎসাহিত করা। বাড়ির আঙিনায় কোরবানি না করে, সিটি করপোরেশন কর্তৃক নির্ধারিত স্থানে কোরবানির পশু জবাই করা। ঈদুল ফিতরের নামাজের জামাত যেভাবে আয়োজন করা হয়েছিল, এবারও তেমনভাবে ঈদ-উল-আজহার জামাত আয়োজন করা।

কোভিড-১৯ পরীক্ষার সংখ্যা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি করা
এতে আর বলা হয়, সরকার সারাদেশে কোভিড-১৯ পরীক্ষার সংখ্যা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি করছে, যা সন্তোষজনক। জাতীয় পরামর্শক কমিটির পূর্ববর্তী সভার সুপারিশের প্রেক্ষিতে বেসরকারি পরীক্ষার মূল্য পুনরায় নির্ধারণ করায় সভায় সরকারকে ধন্যবাদ জানানো হয়। দৈনিক টেস্টের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি জন্য বেসরকারি পর্যায়েও টেস্ট বৃদ্ধি প্রয়োজন, এ লক্ষ্যে টেস্টের জন্য প্রয়োজনীয় কিটের দাম আরও হ্রাস পাওয়ায় পরীক্ষার মূল্য কমিয়ে ১০০০-১৫০০ টাকার মধ্যে নির্ধারণের পরামর্শ দেওয়া হয়।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

চলছে সবকিছু, সচেতনতাই ভরসা

চলছে সবকিছু, সচেতনতাই ভরসা

আবারও লকডাউন দেওয়া হতে পারে: ওবায়দুল কাদের

আবারও লকডাউন দেওয়া হতে পারে: ওবায়দুল কাদের

মাস্ক নিশ্চিতে গ্রামে গ্রামে থাকবে কমিটি

মাস্ক নিশ্চিতে গ্রামে গ্রামে থাকবে কমিটি

বৈঠক মঙ্গলবার, বাড়তে পারে লকডাউন

বৈঠক মঙ্গলবার, বাড়তে পারে লকডাউন

মানসম্মত গুঁড়া দুধ আমদানির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৫৪

গুঁড়া দুধ আমদানির ক্ষেত্রে গুণগতমান নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেওয়া এবং খামারি পর্যায়ে দুধের দাম বাড়ানোর বিষয়ে সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। 

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। 

সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কমিটি গুঁড়া দুধ আমদানির ক্ষেত্রে দুধের গুণগত মান নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেয়। দেশে মানসম্মত দুধ প্রাপ্তির জন্য সমবায়ের ভিত্তিতে বাড়ি বাড়ি গরুর খামার স্থাপন এবং খামারিদের কাছ থেকে দুধ সংগ্রহের ক্ষেত্রে চেয়ে বেশি দামে কিনা- সে বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য সুপারিশ করে। 

এ ছাড়া বৈঠকে সমবায় অধিদফতরের নিবন্ধনকৃত অকার্যকর সমবায় সমিতি এবং যেসব সমবায় সমিতি নিয়মিত অডিট সম্পন্ন করছে না বা অব্যবস্থাপনা পরিলক্ষিত হচ্ছে; সেসব সমবায় সমিতির তালিকা পরবর্তী বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেওয়া হয়। 

কমিটির সভাপতি খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও অংশ গ্রহণ করেন কমিটি সদস্য স্থানীয় সরকার, মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য, মসিউর রহমান রাঙা, শেখ আফিল উদ্দিন, রেবেকা মমিন এবং আব্দুস সালাম মূর্শের্দী। 

/ইএইচএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

বিদেশে অপ্রচারকারীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

বিদেশে অপ্রচারকারীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৪২

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ এবং এর আওতাধীন দফতরগুলোর শূন্যপদের সংখ্যা সাত হাজার ২৮৭টি। এর মধ্যে কিছু পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বেশ কিছু পদে নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। তবে শূন্যপদের মধ্যে কিছু পদোন্নতি যোগ্য এবং কিছু মামলাজনিত কারণে নিয়োগ আটকে রয়েছে।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপস্থাপিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। কমিটির আগের বৈঠকে এ বিভাগের শূন্যপদের তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছিল।

বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা গেছে, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ এবং এর আওতাধীন দফতরগুলোর বিভিন্ন গ্রেডের পদের সংখ্যা ১৬ হাজার ৩২৩টি। এর মধ্যে কর্মরত আছে নয় হাজার ৪৫ জন। শূন্যপদের সংখ্যা সাত হাজার ২৮৭টি।

মোট জনবলের মধ্যে সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের পদসংখ্যা হচ্ছে নয় হাজার ৪৩১টি। এর মধ্যে কর্মরত আছে চার হাজার ৮৯৭ জন এবং ‍শূন্যপদের সংখ্যা চার হাজার ৫৩৪টি। এসব পদের মধ্যে প্রথম শ্রেণির ১৮০টি, দ্বিতীয় শ্রেণির ২১৭টি, তৃতীয় শ্রেণির দুই হাজার ৬৯১টি এবং চতুর্থ শ্রেণির চার হাজার ৫৩৪টি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) মোট ৮২৩টি পদের মধ্যে কর্মরত ৭০১ জন, শূন্য ১২২টি। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) ৫ হাজার ৮৯৩টি পদের মধ্যে কর্মরত তিন হাজার ৩৫৩ জন, শূন্যপদ দুই হাজার ৫৪০টি। ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের (ডিটিসিএ) ১৭৬টি পদের মধ্যে কর্মরত ৯৪ জন এবং শূন্যপদ ৮২টি।

বৈঠকে শূন্যপদে নিয়োগের বিস্তারিত পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়। এতে বলা হয়ে, শূন্যপদের মধ্যে যেগুলো পদোন্নতির যোগ্য; সেগুলো পদোন্নতির মাধ্যমে পূরণের প্রক্রিয়া চলছে। অন্যগুলো বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিয়োগ চলমান রয়েছে।

কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, এনামুল হক, আবু জাহির, রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, ছলিম উদ্দীন তরফদার, শেখ সালাহউদ্দিন, সৈয়দ আবু হোসেন এবং রাবেয়া আলীম অংশগ্রহণ করেন। 

/ইএইচএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

৪০তম বিসিএস: লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১১ হাজার

৪০তম বিসিএস: লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১১ হাজার

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৪৭

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবল দিয়ে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা দিতে বলেছে সংসদীয় কমিটি। একই সঙ্গে কমিটি সকল সেতুর টোল আদায়ে একটি কমন সফটওয়্যার ব্যবহারের সুপারিশ করেছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় সাব-কমিটির পক্ষ থেকে এ সুপারিশ এসেছে।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদীয় কমিটির মূল বৈঠকে সাব-কমিটি তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। তবে, আজকের বৈঠকে প্রতিবেদন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি।

এর আগে ধলেশ্বরী সেতু, বঙ্গবন্ধু সেতুসহ অন্যান্য সেতুর টোল আদায় পদ্ধতি এবং দরপত্র ছাড়া সময় বৃদ্ধিসহ যাবতীয় কার্যক্রম তদন্তে একটি সাব কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ধলেশ্বরী সেতুর টোল আদায়ে অনিয়মের খবরের প্রেক্ষিতেই ওই সাব কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

সাব কমিটির প্রধান এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সদস্য এনামুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, রবিবারের বৈঠকে তারা তাদের সাব কমিটির প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়নি।

মহাসড়কে নিজস্ব জনবল দিয়ে নিরাপত্তা প্রদান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা মনে করি নিজস্ব জনবল দিয়ে নিরাপত্তার ব্যবস্থা হলে তা আরও বেশি কার্যকর ও ফলপ্রসূ হবে।

এই সাব-কমিটির প্রতিবেদনের একটি কপি বাংলা ট্রিবিউনের হাতে এসেছে। এতে তারা ৭টি সুপারিশ করেছে। সুপারিশে সড়ক ও সেতু বিভাগের সব সেতুর টোল আদায়ে সাধারণ সফটওয়্যার ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। এত করে যে কোনও নাগরিক চাইলে প্রতিদিনকার টোল আদায়ের তথ্য অনলাইনে দেখতে পাবেন।

সুপারিশে কোনও অবস্থাতেই দরপত্র ছাড়া কার্যাদেশের মেয়াদ না বাড়ানো; টোল আদায় ব্যবস্থাপনা নিবিড় তদারকি; রাস্তা ও যানবাহনের ধরণ এবং পরিমাণের ভিত্তিতে একটি মাস্টার প্লানের আওতায় এনে সড়ক নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনা, বিপদজনক বাঁকগুলি সরলীকরণ এবং মহাসড়কে নসিমন-করিমন ও অন্যান্য ব্যাটারিচালিত যান নিষিদ্ধকরণ; পুলিশ বাহিনীর পরিবর্তে সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের নিজস্ব জনবল দিয়ে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ এবং টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ না হওয়ার আগ পর্যন্ত ধলেশ্বরী সেতুর টোল নিজস্ব জনবল দিয়ে আদায়ের সুপারিশ করা হয়।

জানা গেছে, সংসদীয় কমিটির সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে সংসদীয় কমিটিতে। এ অভিযোগের তদন্ত রিপোর্ট কমিটির আগামী বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য সুপারিশ করা হয়। 

এ বিষয়ে কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন বলেন, সে বিভাগের সঙ্গে নিয়মমাফিক চলে না। শুনেছি সে ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহার করে। এ অভিযোগের সত্যতা জানতে আমরা তাকে তলব করেছি। 

কমিটির একজন সদস্য বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে; তুষার কান্তি সাহার ভারতের কলকাতায় বাড়ি-গাড়ি রয়েছে। তার পরিবারের সদস্যরা সেখানেই থাকেন। তিনি সরকারি কাজের অবহেলা করে প্রায়ই ভারতে যান।

সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগসমূহ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব/অতিরিক্ত সচিবের মাধ্যমে পুনঃ তদন্তপূর্বক আগামী সভায় উপস্থাপনের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

বৈঠকে ‘মহাসড়ক বিল, ২০২১’ বিলটি প্রয়োজনীয় সংযোজন, সংশোধন ও পরিমার্জনের পর বিলটি জাতীয় সংসদে পাশের উদ্দেশ্যে সংশোধিত আকারে সংসদে রিপোর্ট প্রদানের জন্য কমিটি সুপারিশ করে।

একাব্বর হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, এনামুল হক, আবু জাহির, রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, ছলিম উদ্দীন তরফদার, শেখ সালাহউদ্দিন, সৈয়দ আবু হোসেন এবং রাবেয়া আলীম অংশগ্রহণ করেন। 

/ইএইচএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

মানসম্মত গুঁড়া দুধ আমদানির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

মানসম্মত গুঁড়া দুধ আমদানির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

বিদেশে অপ্রচারকারীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

বিদেশে অপ্রচারকারীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০১

মহামারি করোনাভাইরাসে চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু দেখলো দেশ। একদিনে ভাইরাসটিতে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত ২৬ মে ১৭ জনের প্রাণহানির কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদফতর। একই সময়ে কমেছে করোনায় দৈনিক শনাক্তের হার, তবে বেড়েছে শনাক্ত।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, একদিনে নতুন করে করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৯৮০ জন, যা গতকাল (শনিবার) ছিল ৮১৮।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২১ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মারা গেলেন ২৭ হাজার ৪১৪ জন। একই সময়ে ৯৮০ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসেবে করোনা আক্রান্ত রোগী মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৫১ হাজার ৩৫১ জন। এ সময়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৩১২ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ১১ হাজার ৪৭৯ জন।

একদিনে করোনায় রোগী শনাক্তের হার নেমে এসেছে চার দশমিক ৪১ শতাংশে। আর এখন পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ১৩ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৪৩ শতাংশ আর মৃত্যুর হার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

একই সময়ে করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২১ হাজার ৭৭৫টি আর পরীক্ষা হয়েছে ২২ হাজার ২২১টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৬ লাখ ১৯ হাজার ১৫০টি। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৭০ লাখ ৯১ হাজার ৮৭৩টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৫ লাখ ২৭ হাজার ২৭৭টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২১ জনের মধ্যে পুরুষ সাত জন আর নারী ১৪ জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৬০৫ জন আর নারী নয় হাজার ৮০৯ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, একদিনে মারা যাওয়া ২১ জনের মধ্যে ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে রয়েছেন দুই জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুই জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন আর ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে রয়েছে একজন।

এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ১০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের চার জন, রাজশাহী বিভাগের দুই জন, খুলনা ও ময়মনসিংহ বিভাগের একজন করে আর সিলেট বিভাগের আছেন তিন জন। ২১ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১৭ জন আর বেসরকারি হাসপাতালে চার জন।

/জেএ/এনএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

এবারের গণটিকা কর্মসূচিতে প্রাধান্য পাচ্ছেন যারা

এবারের গণটিকা কর্মসূচিতে প্রাধান্য পাচ্ছেন যারা

করোনায় শনাক্ত নামলো হাজারের নিচে

করোনায় শনাক্ত নামলো হাজারের নিচে

২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু, কমেছে শনাক্তের হার

২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু, কমেছে শনাক্তের হার

বিদেশে অপ্রচারকারীর দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২৩

বিদেশে বসে যারা অপপ্রচার ও উস্কানি দিচ্ছেন তাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ অনলাইনেই দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট (আইডিইবি) মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

মুক্তিযুদ্ধ, আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে উপমন্ত্রী বলেন, ‘বিদেশে বসে কনক সরওয়ার, ইলিয়াস হোসেন, তাসনিম খলিল, ডেভিড বার্গম্যানরা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখছেন। তাদের এই উস্কানিমূলক অপচেষ্টা-অপপ্রচার রুখতে না পারলে কোনও ধরনের জোট করে, সংগঠন করে লাভ নেই। অনলাইনে তারা আওয়ামী লীগের বিপক্ষে, দেশের বিপক্ষে যে অপপ্রচার করছেন তার দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে।‘

শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, ‘একটি গোষ্ঠী দেশের সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তাই রাজনীতিতে ব্যর্থ হয়ে অনলাইনে অপপ্রচার করছে। তারা দেশকে তালেবানি রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়।

নওফেল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট অনলাইনে সোচ্চার হবে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে এটাই প্রতিষ্ঠা করেন আপনারা। অবশ্যই আমরা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড করবো। তবে গুরুত্বপূর্ণ সংগঠন হিসেবে বিএনপি-জামাতের বিরুদ্ধে সাংস্কৃতিক কর্মীরা দাঁতভাঙা জবাব দেবেন।’

নওফেল বলেন, ‘যারা আফগান যুদ্ধে অংশ নিয়ে এসেছিল তাদের সঙ্গে তারেক জিয়া, আরাফাত রহমান কোকোরা মিটিং করেছিল। খুনি জিয়ার দুই সন্তান শেখ হাসিনাকে খুন করার পরিকল্পনা করেছিল। যারা খুনের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে, পরিকল্পিতভাবে খুন করে; তাদের বাংলাদেশে রাজনীতি করার কোনও সুযোগ নেই। 

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ফাল্গুনী হামিদ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, সংগঠনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুল মতিন ভূঁইয়া, সংগঠনের আশরারুল হাসান আসু, বাউল আলম দেওয়ানসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

/এসএমএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

মানসম্মত গুঁড়া দুধ আমদানির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

মানসম্মত গুঁড়া দুধ আমদানির সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চলছে সবকিছু, সচেতনতাই ভরসা

চলছে সবকিছু, সচেতনতাই ভরসা

আবারও লকডাউন দেওয়া হতে পারে: ওবায়দুল কাদের

আবারও লকডাউন দেওয়া হতে পারে: ওবায়দুল কাদের

মাস্ক নিশ্চিতে গ্রামে গ্রামে থাকবে কমিটি

মাস্ক নিশ্চিতে গ্রামে গ্রামে থাকবে কমিটি

বৈঠক মঙ্গলবার, বাড়তে পারে লকডাউন

বৈঠক মঙ্গলবার, বাড়তে পারে লকডাউন

রবিবার প্রায় সব খোলা, কেবল ব্যাংক বন্ধ 

রবিবার প্রায় সব খোলা, কেবল ব্যাংক বন্ধ 

একদিনের জন্য লঞ্চ চলাচলের অনুমতি দিয়েছে সরকার

একদিনের জন্য লঞ্চ চলাচলের অনুমতি দিয়েছে সরকার

বিধিনিষেধের বিষয়ে যা ভাবছে সরকার

বিধিনিষেধের বিষয়ে যা ভাবছে সরকার

এবার ভয়ংকর আগস্টের অপেক্ষা

এবার ভয়ংকর আগস্টের অপেক্ষা

‘লকডাউন কনটিনিউ’র সুপারিশ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

‘লকডাউন কনটিনিউ’র সুপারিশ স্বাস্থ্য অধিদফতরের

একটা ‘রোডম্যাপ’ খুব জরুরি

একটা ‘রোডম্যাপ’ খুব জরুরি

সর্বশেষ

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

এলো বলিউড ‌‘খুফিয়া’র টিজার, নেই বাংলাদেশের কেউ

এলো বলিউড ‌‘খুফিয়া’র টিজার, নেই বাংলাদেশের কেউ

ডা. সাবরিনাসহ আট জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ অক্টোবর

ডা. সাবরিনাসহ আট জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১৮ অক্টোবর

আইসোলেশন কাটিয়ে শিকারে পুতিন

আইসোলেশন কাটিয়ে শিকারে পুতিন

ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ

ল্যান্ড সার্ভে আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন না করায় হাইকোর্টের অসন্তোষ

© 2021 Bangla Tribune