X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় ফেরিতে কমেছে চাপ (ভিডিও)

আপডেট : ১৫ জুলাই ২০২১, ১১:১৮

দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের চাপ কমেছে। লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় ফেরি ঘাটগুলোতে ছোট-বড় যানবাহনের কিছুটা চাপ থাকলেও যাত্রীদের তেমন কোনও ভিড় নেই। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সকাল থেকে শিমুলিয়া ফেরি ঘাটে এ দৃশ্য দেখা গেছে।

লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় যাত্রীর চাপ বেড়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক (এজিএম) শফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

কোরবানির পশু  নিয়ে আসছেন ব্যবসায়ীরা তিনি জানান, নৌরুটে ১০ টি ফেরি চলছে। ঘাটে পদ্মা নদী পারের অপেক্ষায় প্রায় তিনশত ছোট বড় যানবাহন রয়েছে। তবে ফেরি ঘাটে যাত্রীদের তেমন ভিড় নেই।

এদিকে, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে। লঞ্চে উভয়মুখী যাত্রীদের স্বাভাবিক ভিড় দেখা গেছে। লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় টার্মিনালে স্বাভাবিক ব্যস্ততা ফিরে এসেছে।

 বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী পরিচালক সাহাদাত হোসেন বলেন, এ রুটে মোট ৮৭ টি লঞ্চের মধ্যে ৭৮ টি লঞ্চ চলাচল করছে। বাকিগুলোর কাগজপত্র আপডেট করা নেই বিধায় চালাতে পারছে না। লঞ্চঘাটগুলোতে যাত্রীদের চাপ স্বাভাবিক।

 প্রসঙ্গত, করোনার কারণে একাধারে ১৪ দিনের সরকার ঘোষিত লকডাউন শেষে বৃহস্পতিবার থেকে লঞ্চ ও গণপরিবহন চলাচলের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।



/টিটি/

সম্পর্কিত

খেলার মাঠে ওয়ার্কশপ নির্মাণ বন্ধের দাবি

খেলার মাঠে ওয়ার্কশপ নির্মাণ বন্ধের দাবি

মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে কোরআন শরিফ পেলেন ইমাম-মুয়াজ্জিন

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে কোরআন শরিফ পেলেন ইমাম-মুয়াজ্জিন

সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনায় শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন

সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনায় শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৪১

কুমিল্লার চান্দিনায় ঘর পোড়ানোর মামলায় মাইজখার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জামাল উদ্দিনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইফরানুল হক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জামাল উদ্দিন কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের পানিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাড. শাহজালাল মিঞা শিপন জানান, ২০১৭ সালে জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে পানিপাড়া গ্রামের সুলতান মিয়া নামের এক ব্যক্তির ঘরে অগ্নিসংযোগ করেন জামাল উদ্দিন সমর্থিত নেতাকর্মীরা। ওই ঘটনায় সুলতান মিয়ার স্ত্রী রাফিয়া বেগম বাদী হয়ে চান্দিনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি পিবিআই তদন্ত করে জামাল উদ্দিন ঘটনার সঙ্গে জড়িত উল্লেখ করে আদালতে প্রতিবেদন দেয়।

তিনি আরও জানান, এরপর আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। আজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

৬ মাস পর কারামুক্ত ঝুমন দাশ

৬ মাস পর কারামুক্ত ঝুমন দাশ

মহাসড়কে ৫ লাখ টাকার কাঠসহ ট্রাক ফেলে গেলেন চালক

মহাসড়কে ৫ লাখ টাকার কাঠসহ ট্রাক ফেলে গেলেন চালক

৬ মাস পর কারামুক্ত ঝুমন দাশ

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৩৩

হেফাজতে ইসলামের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের সমালোচনা করে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় পুলিশের করা মামলায় ছয় মাস কারাগারে থাকার পর মুক্তি পেলেন সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের ঝুমন দাশ।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। এর আগে, ২৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট থেকে তাকে জামিনের আদেশ দেওয়া হয়।

আজ বিকালে সুনামগঞ্জ আদালতে জামিনের আদেশ এলে জেলার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জামিননামা দিলে তার মুক্তির আদেশের কাগজ কারাগারে পাঠানো হয়। সন্ধ্যায় জামিনের আদেশ কারাগারে পৌঁছায়। কারাগার থেকে বেরিয়ে সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ঝুমন দাশ।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৬ মার্চ শাল্লার নোয়াগাঁও গ্রামের ঝুমন দাশের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে হেফাজতে ইসলামের সাবেক নেতা মামুনুল হককে সমালোচনা করে দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসের প্রতিক্রিয়ায় সংগঠনটির সমর্থকরা ১৭ মার্চ নোয়াগাঁওয়ের ৮৮টি হিন্দু বাড়িতে হামলা, লুটপাট ও ভাঙচুর করে। গ্রামের পাঁচটি মন্দিরেও ভাঙচুর করা হয়। তথ্যপ্রযুক্তি মামলায় ১৬ মার্চ ঝুমন দাসকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তিনটি মামলা হয়। মামলাগুলো তদন্ত করছে গোয়েন্দা পুলিশ। তিনটি মামলায় গ্রেফতার ও আদালতে স্বেচ্ছায় হাজির হওয়াসহ ১১৩ জনকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। হামলা, লুটপাট ও ভাঙচুরের মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য শহীদুল ইসলাম স্বাধীন মিয়াসহ অধিকাংশ আসামি আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

৩৬০০ কেজি সরকারি চাল বিক্রির সময় গ্রেফতার ২

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২১

বগুড়ার ধুনটে রাতের আঁধারে বিক্রির সময় সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির তিন হাজার ৬০০ কেজি চাল জব্দ করেছে পুলিশ। এ সময় দুই পাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ সোমবার রাতের এ ঘটনায় মঙ্গলবার ধুনট থানায় চৌকিবাড়ী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য ডিলার ফরহাদ হোসেনসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও তিন-চার জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

গ্রেফতার দুজন হলেন– ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ী গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে আরিফ হোসেন (৪৪) এবং একই গ্রামের কালাম মণ্ডলের ছেলে ভটভটি চালক মঞ্জু মণ্ডল (৪২)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ধুনট উপজেলায় সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০টি ইউনিয়নে ২০ জন ডিলার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তারা দুস্থদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি করে চাল বিক্রি করছেন। একজন সুবিধাভোগী বছরের পাঁচ মাস ১০ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি চাল কিনতে পারবেন। তবে অভিযোগ রয়েছে, কিছু ডিলার ও জনপ্রতিনিধি এসব দুস্থদের সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির কার্ড কৌশলে আটকে রেখে তাদের বরাদ্দ চালগুলো কালোবাজারে বিক্রি করে দেন।

সোমবার রাত ১০টার দিকে ধুনটের দীঘলকান্দি বাজারের সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলার ইউপি সদস্য ফরহাদ হোসেন, আরিফ হোসেন, মঞ্জু মণ্ডল ও কপিল উদ্দিনসহ তাদের সহযোগীরা তিন হাজার ৬০০ কেজি চাল ভটভটিতে করে কালোবাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সদস্যরা চৌকিবাড়ী গ্রামে অভিযান চালিয়ে উল্লিখিত দুজনকে গ্রেফতার করলেও অন্যরা পালিয়ে যান।

পুলিশ জানায়, ইউপি সদস্য ফরহাদ হোসেন তার স্ত্রীর নামে সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলারশিপ নিয়েছেন। তিনি গোপনে দুস্থদের সরকারি বরাদ্দ করা চাল রাতের আঁধারে কালোবাজারে বিক্রি করে দেন। ভটভটিতে বসে থাকা কয়েকজন দৌড়ে পালিয়ে গেলেও চালকের তথ্য অনুযায়ী চৌকিবাড়ি গ্রামের আরিফের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। ঘণ্টাব্যাপী সেখানে অভিযান চালিয়ে আরও কয়েক বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার এবং চাল কালোবাজারে বিক্রির জন্য ভটভটি চালক মঞ্জু ও পাচারকারী আরিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, ‘সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল কালোবাজারে বিক্রির ঘটনায় কেউ জড়িত থাকলে ডিলারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগ সহ-সভাপতিকে ছুরিকাঘাত

রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগ সহ-সভাপতিকে ছুরিকাঘাত

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

পাঁচ বছরের সাজার পর ১৪ বছর পালিয়ে ছিলেন

পাঁচ বছরের সাজার পর ১৪ বছর পালিয়ে ছিলেন

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেলো কলেজ শিক্ষকের 

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেলো কলেজ শিক্ষকের 

রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগ সহ-সভাপতিকে ছুরিকাঘাত

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:০৮

রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান রিমেল ওরফে রিগ্যান দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন। তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নগরীর ভদ্রা এলাকায় তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়।

রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন জানান, প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে কর্মসূচিতে অংশ নিতে নেতাকর্মীরা সকালে নগরীর কুমারপাড়ায় নগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন। ওই সময় কয়েকজনের সঙ্গে রিগ্যানের কথা কাটাকাটি হয়। সেখান থেকে ফেরার পথে ভদ্রা এলাকায় রিগ্যানের ওপর আক্রমণ করে। তার পেটে ছুরির আঘাত করা হয়। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পুলিশের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে জড়িত ৩-৪ জনের নাম জানা গেছে। একজনের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলাও আছে। আমরা তাদের ধরার চেষ্টা করছি। এ ঘটনায় রিগ্যানের পক্ষ থেকে থানায় মামলা কিংবা অভিযোগ এখনও হয়নি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি জিডি করা হয়েছে।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

৩৬০০ কেজি সরকারি চাল বিক্রির সময় গ্রেফতার ২

৩৬০০ কেজি সরকারি চাল বিক্রির সময় গ্রেফতার ২

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

৫৭ ধারার মামলায় একজনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেলো কলেজ শিক্ষকের 

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে প্রাণ গেলো কলেজ শিক্ষকের 

মহাসড়কে ৫ লাখ টাকার কাঠসহ ট্রাক ফেলে গেলেন চালক

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৬

কুমিল্লার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার অবৈধ কাঠসহ ট্রাক রেখে পালিয়েছেন চালক ও সহযোগী। পরে বন বিভাগের লোকজন কাঠসহ ট্রাকটি উদ্ধার করে নগরীর শাকতোলা কার্যালয়ে নিয়ে আসে।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ধনাইতলী রাস্তার মাথায় এ ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লা বন বিভাগের কর্মকর্তা কাজী নুরুল করিম জানান, চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় অবৈধভাবে কাঠ পাচার হচ্ছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুয়াগাজী ফরেস্ট চেকপোস্টে থাকা বন বিভাগের লোকজনের সন্দেহ হলে ত্রিপল প্যাঁচানো একটি ট্রাককে থামতে বলা হয়। কিন্তু ট্রাকচালক সিগন্যাল না মেনে দ্রুত গতিতে পালানোর চেষ্টা করে। পরে বন বিভাগের লোকজন ওই ট্রাককে ধাওয়া করলে ধনাইতরী এলাকায় মহাসড়কে ট্রাকটি রেখে চালক ও তার সহযোগী পালিয়ে যান।

তিনি আরও জানান, ট্রাকটিতে কড়ই ও আকাশমণি জাতের কাঠ বোঝাই ছিল। পরে সেটি উদ্ধার করে বিভাগীয় বন কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। উদ্ধার কাঠের মূল্য আনুমানিক মূল্য পাঁচ লাখ টাকা। অবৈধভাবে কাঠ ও ট্রাক পাচার এবং অজ্ঞাত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কুমিল্লার বন আদালতে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ছবি আঁকলো অর্ধশত শিশু-কিশোর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ছবি আঁকলো অর্ধশত শিশু-কিশোর

কুমিল্লা ওয়ার্ড ছাত্রদলের কমিটিতে মৃত ব্যক্তি-বিবাহিতরা

কুমিল্লা ওয়ার্ড ছাত্রদলের কমিটিতে মৃত ব্যক্তি-বিবাহিতরা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

খেলার মাঠে ওয়ার্কশপ নির্মাণ বন্ধের দাবি

খেলার মাঠে ওয়ার্কশপ নির্মাণ বন্ধের দাবি

মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে কোরআন শরিফ পেলেন ইমাম-মুয়াজ্জিন

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে কোরআন শরিফ পেলেন ইমাম-মুয়াজ্জিন

সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনায় শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন

সুস্বাস্থ্য-দীর্ঘায়ু কামনায় শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন

বিনা খরচে এক ক্লিনিকে ১০০৩ শিশুর স্বাভাবিক প্রসব

বিনা খরচে এক ক্লিনিকে ১০০৩ শিশুর স্বাভাবিক প্রসব

পাঁচ বছরের সাজার পর ১৪ বছর পালিয়ে ছিলেন

পাঁচ বছরের সাজার পর ১৪ বছর পালিয়ে ছিলেন

পদ্মা সেতুর বিরুদ্ধে অনেকে ষড়যন্ত্র করেছে: ওবায়দুল কাদের

পদ্মা সেতুর বিরুদ্ধে অনেকে ষড়যন্ত্র করেছে: ওবায়দুল কাদের

একটি সেতুর অপেক্ষায় ১২ গ্রামের ২০ হাজার মানুষ 

একটি সেতুর অপেক্ষায় ১২ গ্রামের ২০ হাজার মানুষ 

গাজীপুরে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন

গাজীপুরে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন

‘সড়কটি দিয়ে মেয়র-এমপিদের ভ্রমণ করানো হোক’

‘সড়কটি দিয়ে মেয়র-এমপিদের ভ্রমণ করানো হোক’

সর্বশেষ

তথ্য অধিকার আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করার দাবি

তথ্য অধিকার আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করার দাবি

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে পথশিশুদের নিয়ে কেক কাটলেন পুনাক সভানেত্রী

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে পথশিশুদের নিয়ে কেক কাটলেন পুনাক সভানেত্রী

বিএনপি জোট ছেড়ে দেবে খেলাফত মজলিস?

বিএনপি জোট ছেড়ে দেবে খেলাফত মজলিস?

ডিএসসিসি এলাকায় দেওয়া হলো ২৮,৭০২ ডোজ টিকা

ডিএসসিসি এলাকায় দেওয়া হলো ২৮,৭০২ ডোজ টিকা

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

ঘর পোড়ানোর মামলায় আ.লীগ নেতা কারাগারে

© 2021 Bangla Tribune