X
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

খুলনার নৌপথে আটকে আছে ৪৭ হাজার মেট্রিক টন চাল

আপডেট : ১৭ জুলাই ২০২১, ০০:১২

বাজারমূল্য স্থিতিশীল রাখতে সরকার ভারত থেকে চাল আমদানি করছে। তবে লকডাউনের প্রভাবে খুলনার নৌপথের ঘাটে ঘাটে আমদানি করা সরকারি চালবাহী কার্গোর জট লেগে আছে। বর্তমানে জটে আটকা পড়ে আছে ৩৫টি কার্গো। আর এ কার্গোগুলোতে রয়েছে ৪৭ হাজার মেট্রিক টন চাল। দুস্থদের মাঝে বিতরণ, ভিজিএফ, ওএমএস-এর জন্য এ চাল আমদানি করা হয়েছে। যা দেশের ছয় বিভাগের গুদামগুলোতে সরবরাহ করা হবে।

খাদ্য বিভাগের (চলাচল ও সংরক্ষণ নিয়ন্ত্রক) খুলনা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-নিয়ন্ত্রক বাদল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, ভারত থেকে চাল নিয়ে ধারাবাহিকভাবে মোংলা বন্দরে জাহাজ আসে ও কার্গোতে খালাস হয়। এ অবস্থায় লকডাউনের কারণে নির্ধারিত সময়ে এ চাল বিভিন্ন গুদামে পাঠানো সম্ভব হয়নি। ফলে জট পড়েছে।

আরও দুই লাখ মেট্টিক টন চাল খুলনা নদ-নদী বন্দরে আসবে বলেও জানান তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ভারত থেকে দুই লাখ ৪৩ হাজার মেট্টিক টন চাল আমদানির জন্য চুক্তি হয়েছিলো। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত মোংলা বন্দর ও খুলনার নদ-নদী বন্দরে এক লাখ ৯৩ হাজার মেট্টিক টন চাল এসেছে। এর মধ্যে ৩৫টি কার্গোতে ৪৭ হাজার টন মেট্টিক টন চাল খুলনার তিনটি নৌঘাটে খালাসের অপেক্ষায় রয়েছে। ৪নং ঘাটে ১৬টি, ৫নং ঘাটে সাতটি ও মহেশ্বরপাশা ঘাটে ১৪টি কার্গো রয়েছে। এ চাল দুস্থ, অসহায় পরিবার, ভিজিএফ, ওএমএস, জেলে, ঈদ উপলক্ষে এক কোটি পরিবার, আনসার, জেলখানা, পুলিশ, বিজিবি ও ফায়ার ব্রিগেডের মাঝে বিতরণের জন্য আনা হয়েছে। এসব চাল ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন গুদামে পাঠানো হবে।

৪নং ঘাটে অপেক্ষারত কার্গো রাজু অ্যান্ড তুহিন নেভিগেশনের চালক আব্দুস সালাম জানান, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের (২৮ মে) দুই দিন পর ২৯ হাজার ৪০০ ব্যাগ চাল বোঝাই করে তারা কলকাতা বন্দর ত্যাগ করেন। মোংলা ও ৪নং ঘাটে এক মাস বিলম্ব হয়েছে। ১৫ জুলাই থেকে চাল খালাস শুরু হয়। খালাস শেষ হতে ঈদ পার হয়ে আরও এক সপ্তাহ সময় লাগবে।

৪নং ঘাটের সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনিরুল ইসলাম জানান, জুলাইয়ের শুরু থেকে অতিবৃষ্টি, শ্রমিক সংকট, ঠিকাদারের অনুপস্থিতি, ট্রাক সংকট ইত্যাদি কারণে ঘাটে কার্গোর চাল খালাস করা সম্ভব হয়নি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পেট্রাপোল বন্দরে স্পট করোনা পরীক্ষায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

পেট্রাপোল বন্দরে স্পট করোনা পরীক্ষায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

শৈলকুপা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার

শৈলকুপা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার

খালেদা জিয়ার কিছু হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: গয়েশ্বর

খালেদা জিয়ার কিছু হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: গয়েশ্বর

৪ বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

৪ বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

পেট্রাপোল বন্দরে স্পট করোনা পরীক্ষায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

পেট্রাপোল বন্দরে স্পট করোনা পরীক্ষায় যাত্রীদের দুর্ভোগ

শৈলকুপা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার

শৈলকুপা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার

খালেদা জিয়ার কিছু হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: গয়েশ্বর

খালেদা জিয়ার কিছু হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: গয়েশ্বর

৪ বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

৪ বছর পর হিলি দিয়ে কয়লা আমদানি শুরু

কৃষক হত্যায় একজনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন

কৃষক হত্যায় একজনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন

১২টি সোনার বারসহ পাচারকারী আটক

১২টি সোনার বারসহ পাচারকারী আটক

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিষয়ে বেনাপোল বন্দরে সতর্কতা  

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিষয়ে বেনাপোল বন্দরে সতর্কতা  

সোয়া দুই ঘণ্টায় ৪১টি মামলার রায় দিলেন বিচারক

সোয়া দুই ঘণ্টায় ৪১টি মামলার রায় দিলেন বিচারক

আদালতে হাজিরা দিয়ে এসে আবারও মাদক বিক্রি

আদালতে হাজিরা দিয়ে এসে আবারও মাদক বিক্রি

নৌকায় ভোট দেওয়ায় শার্শায় শতাধিক বাড়িতে হামলা

নৌকায় ভোট দেওয়ায় শার্শায় শতাধিক বাড়িতে হামলা

সর্বশেষ

বিএমএ’র চিকিৎসকদের ভূমিকা দুঃখজনক: ড্যাব

বিএমএ’র চিকিৎসকদের ভূমিকা দুঃখজনক: ড্যাব

৩০০ টাকা নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দিচ্ছেন অধ্যক্ষ

৩০০ টাকা নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দিচ্ছেন অধ্যক্ষ

ভাঙচুর না করে শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানে ফেরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ভাঙচুর না করে শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানে ফেরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যুক্তরাজ্যের শীর্ষ হুমকি চীন, রাশিয়া, ইরান: গোয়েন্দা প্রধান

যুক্তরাজ্যের শীর্ষ হুমকি চীন, রাশিয়া, ইরান: গোয়েন্দা প্রধান

সমাবেশ করবেন উপজেলার বিএনপিপন্থী সাবেক চেয়ারম্যানরা

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসাসমাবেশ করবেন উপজেলার বিএনপিপন্থী সাবেক চেয়ারম্যানরা

© 2021 Bangla Tribune