X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

সিংহের থাবায় প্রাণ গেলো ৩ শিশুর

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ২২:৫০
image

তানজানিয়ার একটি বিশ্বখ্যাত বণ্যপ্রাণী অভয়াশ্রমের কাছে গবাদি পশু খুঁজতে গিয়ে সিংহের থাবায় প্রাণ হারিয়েছে তিন শিশু। স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, গত সোমবার স্কুল থেকে ফিরে নয় থেকে ১১ বছর বয়সী এই শিশুরা হারিয়ে যাওয়া গবাদি পশু খুঁজতে যায়। বৃহস্পতিবার আরুশা পুলিশ প্রধান জাস্টিন মাসেজো জানান, এনগোরঙ্গো অভয়াশ্রমের কাছে সিংহের কবলে পড়ে তিন শিশু নিহত এবং আরও একজন আহত হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

তানজানিয়ার উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত এনগোরঙ্গো অভয়াশ্রম একটি বিশ্ব ঐতিহ্য। সিংহ, চিতাবাঘসহ নানা বণ্যপ্রাণীর বাস এই অভয়াশ্রমে।

পুলিশ প্রধান জাস্টিন মাসেজো বলেন, ‘আমি স্থানীয় নোমাডিক জনগোষ্ঠীকে সংরক্ষিত এলাকার হিংস্র প্রাণীর বিষয়ে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি, বিশেষ করে যখন শিশুদের গবাদি পশুর খেয়াল রাখার জন্য পাঠানো হয়। এর মাধ্যমে তারা শিশু ও নিজেদের পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে পারবে।’

মাসাই জনগোষ্ঠীর মতো বেশ কিছু সম্প্রদায়কে ন্যাশনাল পার্কের অভ্যন্তরে বসবাসের অনুমতি দিয়েছে তানজানিয়া। এসব জনগোষ্ঠী পার্কে বণ্যপ্রাণীর পাশাপাশি গবাদি পশুও পালন করে থাকে। তবে সিংহ, হাতির মতো নানা প্রাণীর সঙ্গে তাদের সংঘাতের ঘটনা ঘটে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৯

উত্তর আফ্রিকার দেশ সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদককে গৃহবন্দি করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। ২৫ অক্টোবর সোমবার ভোরে সেনাবাহিনীর অজ্ঞাত একটি ফোর্স তার বাড়ি ঘিরে ফেলে। এর পরপরই রাজনৈতিক সংকটে টালমাটাল দেশটিতে সামরিক অভ্যুত্থানের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। তবে সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীকে গৃহবন্দি করার পাশাপাশি তার সরকারের চার মন্ত্রীকেও আটক করেছে অজ্ঞাত সেনাসদস্যরা। আবদাল্লা হামদকের সংবাদমাধ্যম বিষয়ক উপদেষ্টাকেও আটক করা হয়েছে। 

অভ্যুত্থান ঠেকাতে নাগরিকদের রাজপথে নেমে আসার আহ্বান জানিয়েছে গণতন্ত্রপন্থী একটি গ্রুপ।

রাজধানী খার্তুমে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। খার্তুম থেকে আল জাজিরার প্রতিনিধি হিবা মর্গান জানান, দেশটিতে টেলিযোগাযোগ সীমিত করে দেওয়ায় সঠিক তথ্য পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে।

২০১৯ সালে দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরকে সরিয়ে দেওয়ার পর ক্ষমতা ভাগাভাগির দুর্বল একটি চুক্তিতে উপনীত হয় সামরিক বাহিনী ও বেসামরিক গোষ্ঠীগুলো। ওই চুক্তির আলোকেই গত দুই বছর ধরে দেশটি পরিচালিত হয়ে আসছিল। গত সেপ্টেম্বরে ব্যর্থ এক অভ্যুত্থান চেষ্টা চালায় ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট বশিরের অনুগত সেনারা। ওই ঘট্নায় সরকারের সামরিক ও বেসামরিক অংশগুলো বিভক্ত হয়ে পড়ে। উভয়  পক্ষের মধ্যে আস্থার সংকট দেখা দেয়। এর মধ্যেই সোমবার ভোরে দেশটিতে অভ্যুত্থানের খবর আসে।

/এমপি/

সম্পর্কিত

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৪৫

নাইজেরিয়ার রিভারস প্রদেশের একটি অবৈধ তেল শোধনাগারে বিস্ফোরণে কয়েকটি শিশুসহ অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছে। রবিবার স্থানীয় এক নেতা এবং এক বাসিন্দা ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, গত শুক্রবার ওই বিস্ফোরণ ঘটে।

স্থানীয় কমিউনিটি নেতা ইফায়েনি ওমানো বলেন, ‘হতাহতের সংখ্যা খুব বেশি... আমরা ২৫টি মরতেহ গুনেছি। তাদের পরিচয় সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত নই।’ নিহতদের মধ্যে শিশু থাকার কথা নিশ্চিত করেন তিনি।

ইফায়েনি ওমানো এবং স্থানীয় বাসিন্দা চিকওয়েম গডউইন জানান, শুক্রবার ভোরের দিকে ওই বিস্ফোরণে বেশ কয়েকটি জনগোষ্ঠীর মানুষ নিহত হয়েছে।

এর আগে স্থানীয় পুলিশের এক মুখপাত্র বিস্ফোরণের কথা জানান। তবে হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করেননি তিনি।

নাইজেরিয়ার তেল সমৃদ্ধ ডেল্টা অঞ্চলে অবৈধ শোধনাগার থাকা বেশ স্বাভাবিক ঘটনা। স্থানীয় দরিদ্র বাসিন্দারা পাইপলাইন থেকে তেল চুরি করে বিক্রি করে থাকে। অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ড্রামে উত্তপ্ত করে শোধন করা হয়, যা খুবই বিপজ্জনক।

আফ্রিকার সবচেয়ে বড় তেল রফতানিকারক নাইজেরিয়া। কর্মকর্তাদের আশঙ্কা পাইপলাইন থেকে চুরির কারণে প্রতিদিন দেশটি গড়ে প্রায় ২ হাজার ব্যারেল তেল হারায়। যা দেশটির উৎপাদনের ১০ শতাংশের বেশি। তেল চুরি এবং পাইপলাইন নষ্টের কারণে পরিবেশেরও মারাত্মক ক্ষতি হয়ে থাকে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

শেষ হলো আফগান সীমান্তে রুশ নেতৃত্বাধীন মহড়া

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৩

তাজিকিস্তান-আফগানিস্তান সীমান্তে রাশিয়ার নেতৃত্বে ছয় দিনের সামরিক মহড়া শেষ হয়েছে। এই মহড়ার উদ্দেশ্য হলো দক্ষিণ দিক থেকে কোনও আগ্রাসন আসলে দুসানবে রক্ষায় রাশিয়ার প্রস্তুতি দেখানো।

কাবুলের তালেবান নেতৃত্বের সঙ্গে শুরু থেকেই তাজিকিস্তানের সম্পর্ক খারাপ। সীমান্তের উভয় পাশে সেনা সমাবেশে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠে মস্কো। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দেশ তাজিকিস্তানে সামরিক ঘাঁটি  রয়েছে রাশিয়ার।

কালেক্টিভ সিকিউরিটি ট্রিটি অর্গানাইজেশন (সিএসটিও) আয়োজিত এই মহড়ায় বেলারুশ, আর্মেনিয়া, কাজাখাস্তান এবং কিরগিজস্তান অংশ নেয়। প্রায় চার হাজার সেনার পাশাপাশি ট্যাংক, কামান এবং বিমান অংশ নেয়।

তাজিক প্রতিরক্ষামন্ত্রী শেরালি মিরজো বলেন, প্রথমবারের মতো এতো বড় আকারে মহড়া অনুষ্ঠিত হলো।

সিএসটিও মহাসচিব স্টানিসলাভ জাস বলেন, এই মহড়ার লক্ষ্য হচ্ছে তাজিকিস্তানে কোনও আগ্রাসন সহ্য করা হবে না- তা দেখানো। তিনি বলেন, ‘বিপদের মুখে আমরা তাজিকিস্তানকে একা ছেড়ে যাবো না।’

লাখ লাখ তাজিক আফগানিস্তানে বসবাস করেন। তারাই আফগানিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠী। আফগানিস্তানে সরকার গঠনে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীকে অন্তর্ভুক্ত করতে ব্যর্থ হওয়ায় তালেবানের কঠোর সমালোচনা করেছেন তাজিকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইমোমালি রাখমোন।

রুশ সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে ইমোমালি রাখমোনের সরকার উৎখাতে নৃতাত্ত্বিক তাজিক সশস্ত্র গোষ্ঠীর সঙ্গে জোট গড়তে চাইছে তালেবান।

/জেজে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৩
শেষ হলো আফগান সীমান্তে রুশ নেতৃত্বাধীন মহড়া
২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৯
০৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:১০
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯

সম্পর্কিত

‘ইরাকে সরকার গঠনে বিদেশি হস্তক্ষেপ গ্রহণযোগ্য নয়’

‘ইরাকে সরকার গঠনে বিদেশি হস্তক্ষেপ গ্রহণযোগ্য নয়’

আফগানিস্তানের প্রতিবেশীদের নিয়ে বৈঠক আহ্বান ইরানের

আফগানিস্তানের প্রতিবেশীদের নিয়ে বৈঠক আহ্বান ইরানের

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে: পুতিন

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে: পুতিন

পশ্চিম তীরে নতুন ১৩০০ বাড়ি বানাবে ইসরায়েল

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১৪

দখলকৃত পশ্চিম তীরে ইহুদি দখলদারদের জন্য নতুন করে বাড়ি নির্মাণের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে ইসরায়েল। তাৎক্ষণিকভাবে ফিলিস্তিনিদের পাশাপাশি এই ঘোষণার নিন্দা জানিয়েছে প্রতিবেশি জর্ডান।

রবিবার ইসরায়েলের ডানপন্থী প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেত সরকারের কন্সট্রাকশন ও আবাসন মন্ত্রণালয়ের তরফে বলা হয়, পশ্চিম তীরে নতুন এক হাজার ৩৫৫টি বাড়ি নির্মাণে টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। ১৯৬৭ সালের ছয় দিনের মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধের সময় ওই এলাকা দখল করে ইসরায়েল।

আবাসনমন্ত্রী জেভ এলকিন এক বিবৃতিতে বলেন, জায়নবাদী দৃষ্টিভঙ্গির জন্য পশ্চিম তীরে ইহুদি উপস্থিতি বাড়ানো জরুরি।

ইসরায়েলি ঘোষণার পর মন্ত্রিসভার এক সাপ্তাহিক বৈঠকে এই পরিকল্পনা ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্য দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান ফিলিস্তিনি প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ সাতিয়াহ। এই বসতি নির্মাণ পরিকল্পনাকে তিনি ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর আগ্রাসন বলে আখ্যা দেন।

শুক্রবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছেন আবাসন পরিকল্পনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন। উত্তেজনা বাড়াতে পারে এবং আলোচনার ভিত্তিতে দুই রাষ্ট্র ভিত্তিক সমাধানের পথে বাধা হতে পারে এমন এক পাক্ষিক পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকতে তিনি ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের প্রতি আহ্বান জানান।

পশ্চিম তীরে প্রায় চার লাখ ৭৫ হাজার ইহুদি বসবাস করে। এসব বসতি আন্তর্জাতিক আইনে অবৈধ বলে বিবেচিত।

/জেজে/

সম্পর্কিত

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

‘ইরাকে সরকার গঠনে বিদেশি হস্তক্ষেপ গ্রহণযোগ্য নয়’

‘ইরাকে সরকার গঠনে বিদেশি হস্তক্ষেপ গ্রহণযোগ্য নয়’

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে: পুতিন

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে: পুতিন

কানাডা উপকূলে ছড়াচ্ছে বিষাক্ত গ্যাস

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১৯

কানাডার প্রশান্ত মহাসাগর উপকূলে একটি কন্টেইনার জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের সেখান থেকে ১৬ জনকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। জিম কিংসটন নামের জাহাজটি থেকে বিষাক্ত গ্যাস নির্গত হচ্ছে। তবে কর্মকর্তারা বলছেন, এর কারণে স্থলে থাকা মানুষদের কোনও নিরাপত্তা ঝুঁকি নেই।

গত শনিবার রাতে অগ্নিকাণ্ড শুরুর সময়ে জাহাজটি ভ্যানকুভারের উদ্দেশে যাচ্ছিলো। উদ্ধারকারী জাহাজ রাতভর বাইরে থেকে পানি ছিটিয়ে কন্টেইনার জাহাজটিকে ঠান্ডা রাখার চেষ্টা করে। কিন্তু রাসায়নিক হওয়ায় আগুন নেভাতে সরাসরি পানি ছেটানো যায়নি।

কানাডার কোস্ট গার্ড জানিয়েছে, জাহাজে আগুন জ্বলছে আর বিষাক্ত গ্যাস নির্গত হচ্ছে। অগ্নিকাণ্ডে দশটি কন্টেইনার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা।

কোস্ট গার্ড বলছে, ‘বর্তমানে তীরে থাকা মানুষের কোনও নিরাপত্তা ঝুঁকি নেই। তবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ অব্যাহত থাকবে।’

কানাডার কোস্ট গার্ড জানিয়েছি জাহাজটিতে ৫২ হাজারের বেশি কেজির রাসায়নিক রয়েছে। এসব রাসায়নিক আগুন ধরে যাওয়া দুইটি কন্টেইনারে রয়েছে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

কলম্বিয়ার মাদক মাফিয়া আটক, পাঠানো হবে যুক্তরাষ্ট্রে

কলম্বিয়ার মাদক মাফিয়া আটক, পাঠানো হবে যুক্তরাষ্ট্রে

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

ভারতে তৈরি অ্যারোমাথেরাপি স্প্রে থেকে ছড়াচ্ছে বিরল রোগ: যুক্তরাষ্ট্র

মহামারিতে মার্কিন বিলিয়নিয়ারদের মুনাফা ছাড়িয়েছে ২ লাখ কোটি ডলার

মহামারিতে মার্কিন বিলিয়নিয়ারদের মুনাফা ছাড়িয়েছে ২ লাখ কোটি ডলার

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

অবৈধ শোধনাগারে বিস্ফোরণ, নাইজেরিয়ায় নিহত অন্তত ২৫

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

টাইগ্রে অঞ্চলে নতুন অভিযান শুরু ইথিওপিয়ার

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

ব্রিটিশ সতর্কতা জারির পর উগান্ডায় বোমা হামলা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

প্রতিশোধের অঙ্গীকার নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের

প্রতিশোধের অঙ্গীকার নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৪৩

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৪৩

ঔপনিবেশিক অপরাধ, ফ্রান্সকে আন্তর্জাতিক আদালতের মুখোমুখি করার দাবি

ঔপনিবেশিক অপরাধ, ফ্রান্সকে আন্তর্জাতিক আদালতের মুখোমুখি করার দাবি

আমেরিকান মিশনারি অপহরণে হাইতির গ্যাং জড়িত: কর্মকর্তা

আমেরিকান মিশনারি অপহরণে হাইতির গ্যাং জড়িত: কর্মকর্তা

সর্বশেষ

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

সোহেলেই আটকে আছে ই-অরেঞ্জের তদন্ত

সোহেলেই আটকে আছে ই-অরেঞ্জের তদন্ত

নির্মাণে নতুন দিন আনছে কংক্রিট ব্লক

নির্মাণে নতুন দিন আনছে কংক্রিট ব্লক

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

© 2021 Bangla Tribune