X
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

অসৌজন্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে অনুষ্ঠান বর্জন সাংবাদিকদের

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৭

অসৌজন্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে নবনির্মিত শিল্পকলা একাডেমি ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানটি বর্জন করেছেন জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) শিশু একাডেমিতে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাকিল অনুষ্ঠানে কর্মরত সাংবাদিকদের চেয়ার ছেড়ে দিতে বলায় সঙ্গে সঙ্গে সাংবাদিকরা অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন এবং বাইরে এসে প্রতিবাদ জানান। প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মো. জহুরুল আলম, খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের মুহাম্মদ, অর্থ সম্পাদক চিংমে মারমা। এছাড়া প্রতিবাদ সভায় সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কানন আচার্য্য, জয়ন্তী দেওয়ান, সমীর মল্লিক, আল মামুন, লিটন ভট্টাচার্য্য রানা, জাফর সবুজসহ অন্যান্য সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সাংবাদিকরা অভিযোগ করে বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। কিন্তু অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বসার জন্য কোনও আসন রাখা হয়নি। বিষয়টি জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা উষানু চৌধুরীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোনও সুরাহা হয়নি। এক পর্যায়ে প্রতিমন্ত্রীর গণসংযোগ কর্মকর্তা আলমগীরের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি খালি হওয়া প্রথম সারির আসনে সাংবাদিকদেরকে বসান। কিছুক্ষণ পর জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট শাকিল সাংবাদিকদের আসন ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ নিয়ে বলেন, ‘এগুলো সংরক্ষিত (ভিআইপি) আসন, আপনারা উঠে যান’। এ অসৌজন্যমূলক আচরণে সাংবাদিকরা বিব্রত হন এবং প্রতিবাদে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন।

সাংবাদিকরা আরও বলেন, ওই ম্যাজিস্ট্রেট ক্ষমা না চাইলে ভবিষ্যতে জেলা প্রশাসনের কোনও কর্মসূচিতে সাংবাদিকরা অংশ নেবেন না এবং সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকবেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

মুগদায় রিকশাচালকের ঘরে মিললো জামালপুরের নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রী

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২০

জামালপুরের ইসলামপুরের এক মাদ্রাসা থেকে নিখোঁজ তিন শিশু শিক্ষার্থী রাজধানীর মুগদা থেকে উদ্ধার হয়েছে। নিখোঁজের পাঁচদিন পর বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টার দিকে মুগদা থানার মান্ডা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ। 

উদ্ধার অভিযানে নেতৃত্ব দেন জামালপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ইসলামপুর সার্কেল) মো. সুমন মিয়া। তিনি জানান, নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের সন্ধান পেতে পুলিশ বিভিন্ন সূত্র ধরে সম্ভাব্য স্থানগুলোতে অভিযান চালায়। এর অংশ হিসেবে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনের সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে ওই শিক্ষার্থীদের শনাক্ত করা হয়। পরে স্থানীয় রিকশাওয়ালাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মুগদা থানার মান্ডা এলাকার রাজা মিয়া (১৪) নামে এক রিকশাচালকের বাসা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই তিন ছাত্রী মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে ঢাকায় চলে এসেছে বলে জানিয়েছে। 

এএসপি আরও জানান, শুক্রবার সকালে ছাত্রীদের জামালপুরে নিয়ে আসা হয়। জামালপুরে নিয়ে আসার পর তাদের পালিয়ে যাওয়ার কারণসহ এ অভিযানের বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে বলে জানান তিনি। 

উল্লেখ্য, ওই তিন ছাত্রী অন্যদিনের মতো শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে মাদ্রাসার আবাসিক কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ভোররাতে শিক্ষকরা ফজরের নামাজ পড়ার জন্য শিক্ষার্থীদের ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। অন্য ছাত্রীদের মতোই নিখোঁজ শিশুরাও নামাজের প্রস্তুতি নেয়। তবে নামাজের পর তাদের আর কোনও মেলেনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

রাগীবের কথার যাদুতে এহসানে জড়িয়ে নিঃস্ব শিক্ষক

রাগীবের কথার যাদুতে এহসানে জড়িয়ে নিঃস্ব শিক্ষক

এবার আগেভাগেই দেখা দিয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা

এবার আগেভাগেই দেখা দিয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা

বিকেএসপি থেকে বহিষ্কার ছেলেটি খেলতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ

বিকেএসপি থেকে বহিষ্কার ছেলেটি খেলতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ

আদালতের ক্যান্টিনে সংঘর্ষ, কারাগারে বাদী-বিবাদী পক্ষের ৬ জন 

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩১

পঞ্চগড়ে আদালতের ক্যান্টিনে এক মামলার বাদী ও বিবাদী পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ক্যান্টিনে এ ঘটনা ঘটে। এসময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় কোর্ট পুলিশ, পঞ্চগড় থানা পুলিশ উভয়পক্ষের ছয় জনকে আটক করে কোর্ট হাজতে রাখে। এ ঘটনায় পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক মজিবর রহমান বাদী হয়ে তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কুদরত-ই খুদা মিলন ও তেঁতুলিয়া উপজেলার দেবনগর ইউনিয়নের বালুবাড়ি এলাকার আব্দুল হামিদসহ সাত জনের নামে ও অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে আসামি করে পঞ্চগড় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আদালতের কোর্ট বারান্দা ও ক্যান্টিনে বেআইনিভাবে প্রবেশ করে সংঘর্ষে জড়ানো, সরকারি কাজে বাধা দান ও সরকারি কর্মচারীকে বল প্রয়োগের হুমকিসহ আদালতের বিচারিক পরিবেশে নষ্ট করে ক্ষমতার দাপট প্রদর্শন করার অভিযোগ এনে পুলিশ মামলাটি দায়ের করে।
 
পরে আটক তেঁতুলিয়া উপজেলার দেবনগর ইউনিয়নের বালুবাড়ি এলাকার আব্দুল হামিদ (৪০), একই উপজেলার বাইনগঞ্জ এলাকার নুর ইসলাম (৩৮), পাগলীডাঙ্গী এলাকার সেলিম রানা (২৫), জায়গীর জোত এলাকার আজিজার রহমান (৪৭), ঝাড়ুয়া পাড়া এলাকার ফারুক হোসেন (২৫) এবং একই এলাকার সাইদুল ইসলামকে (৩৮) মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়। 

তবে মামলার মূল আসামি তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কুদরত-ই খুদা মিলন পলাতক রয়েছেন। 

বাংলাবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান কুদরত-ই খুদা মিলনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে গিয়েছিলাম। কিন্তু কোনও মারামারির সঙ্গে যুক্ত হইনি। তাছাড়া ক্যান্টিনে যখন মারামারি হয় তখন আমি আদালত চত্ত্বরে ছিলাম না। আমাকে কেন এই মামলার আসামি করা হয়েছে আমি জানি না। 

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিঞা জানান, পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়িত্বে থাকা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক মজিবর রহমান বাদী হয়ে সাত জনের নামে ও অজ্ঞাতনামা ৪-৫জনকে আসামি করে মামলা দিয়েছেন। মামলায় ছয় জন আসামিকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান তিনি। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

ভুয়া বিলে টাকা উত্তোলন, টিটিসির সেই অধ্যক্ষ বরখাস্ত

ভুয়া বিলে টাকা উত্তোলন, টিটিসির সেই অধ্যক্ষ বরখাস্ত

এবার আগেভাগেই দেখা দিয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা

এবার আগেভাগেই দেখা দিয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা

কয়লা খনির পাঁচ কর্মকর্তা বরখাস্ত, ১০ জনের নামে মামলা

কয়লা খনির পাঁচ কর্মকর্তা বরখাস্ত, ১০ জনের নামে মামলা

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০৭

তিন মাস পর আবারও চট্টগ্রামে করোনায় কোনও মৃত্যু নেই। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যাননি। এর আগে, গত ১৫ জুন করোনায় মৃত্যুহীন ছিল চট্টগ্রাম। এরপর টানা বাড়তে থাকে মৃতের সংখ্যা। 

একই সময়ে নতুন শনাক্তও কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন আরও ৪১ জন। এ নিয়ে চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত এক লাখ এক হাজার ১৭২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৭৩ হাজার ৩২৮ জন চট্টগ্রাম নগরীর। বাকি ২৭ হাজার ৮৪৪ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ১২টি ল্যাবে এক হাজার ৫১৩টি নমুনা পরীক্ষায় ৪১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৬৬টি, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৪৫১টি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৮২টি, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১৫০টি এবং আরটিআরএল ল্যাবে চারটি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চবি ল্যাবে চার জন, বিআইটিআইডি, চমেক ও সিভাসু ল্যাবে ৯ জন করে করোনা শনাক্ত হয়।

অন্যদিকে বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ৫২ টি নমুনা পরীক্ষায় দুই জন, শেভরন ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে ৪৭২টি নমুনা পরীক্ষায় দুই, মা ও শিশু হাসপাতালে ২৩ নমুনা পরীক্ষায় এক, মেডিক্যাল সেন্টার হাসপাতালে ১৮টি নমুনা পরীক্ষায় এক এবং ইপিক হেলথ কেয়ার ৮৬টি নমুনা পরীক্ষায় ‍চার জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চট্টগ্রামের ৯টি নমুনা পরীক্ষায় কারও শরীরে করোনার অস্তিত্ব মেলেনি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

মুগদায় রিকশাচালকের ঘরে মিললো জামালপুরের নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রী

মুগদায় রিকশাচালকের ঘরে মিললো জামালপুরের নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রী

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:৪২

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে এক কিশোরীকে সংঘগবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে চট্টগ্রাম নগরী ও সীতাকুণ্ডে অভিযান চালিয়ে ডবলমুরিং থানা পুলিশ তাদের করে। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে আদালতে তোলা হলে ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেন তারা।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূইয়াঁ বৃহস্পতিবার রাতে এসব তথ্য জানান। 

বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, গ্রেফতার তিন জন হলেন লরির হেলপার মো. মেহেদী হাসান মুন্না (১৯), নৈশপ্রহরী মো. সাকিব (২১) ও মো. হাসান তারেক রনি (৪০)। 

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ভিকটিম কিশোরী গত ৫ সেপ্টেম্বর তার ফুফাতো ভাইয়ের স্ত্রীর সঙ্গে ডাক্তার দেখানোর জন্য আগ্রাবাদ যায়। আগ্রাবাদ যাওয়ার পর মানুষের জটলায় ওই কিশোরী ভাবিকে হারিয়ে ফেলে। এরপর আগ্রাবাদ সিঅ্যান্ডএফ টাওয়ারের সামনে কান্না করতে থাকলে আসামি মুন্না তাকে বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে সিএনজিতে উঠিয়ে নেয়। পরে বাসায় পৌঁছে না দিয়ে নগরীর সাগরিকা, অলঙ্কারসহ বিভিন্ন জায়গায় সন্ধ্যা পর্যন্ত তাকে ঘোরাতে থাকে। এরপর রাত ১০টার দিকে বাসে করে কিশোরীকে সীতাকুণ্ড থানাধীন কালুশাহ মাজার এলাকায় নিয়ে যায় মুন্না। সেখানে আসামি শাকিবের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে ওই কিশোরীকে তিন জন মিলে রাতভর ধর্ষণ করে।

ওসি আরও বলেন, ঘটনার পর মেয়েটি ভয়ে পরিবারের সদস্যদের কিছু জানায়নি। বুধবার সন্ধ্যায় মুন্না কিশোরীর বাসার আশপাশে এসে ঘোরাঘুরি করতে থাকে। এসময় মেয়েটি তাকে দেখে ভয়ে চিৎকার দিয়ে ওঠে। ঘটনা সবাইকে খুলে বললে স্থানীয়রা মুন্নাকে ধাওয়া দিয়ে আটক করে। পরে ৯৯৯-এ ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মুন্নাকে গ্রেফতার করে। এরপর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাতে অভিযান চালিয়ে সীতাকুণ্ড বেড়িবাঁধ এলাকা থেকে সাকিব ও হাসানকে গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বড় বোন থানায় মামলা দায়ের করেন বলে জানান তিনি। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

১০ টাকা বেশি চাওয়ায় রিকশাচালককে কুপিয়ে হত্যা

১০ টাকা বেশি চাওয়ায় রিকশাচালককে কুপিয়ে হত্যা

গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো বাজারটি

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:৪৫

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীর তীর দখল করে গড়ে ওঠা বেলদী বাজারের দুইটি তিনতলা, সাতটি দোতলা ও ছয়টি একতলা ভবনসহ অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটি ভেকু দিয়ে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।

বিআইডব্লিউটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শোভন রাংসার নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযানটি পরিচালিত হয়। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ ঘোড়াশাল নদী বন্দরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক নূর হোসেন স্বপন।

নূর হোসেন স্বপন জানান, উচ্ছেদ অভিযানের দ্বিতীয় দিনে আজ দুইটি তিনতলা, সাতটি পাকা দোতলা, ছয়টি একতলা ভবন, ইটভাটার স্থাপনা, একটি ব্যাটারি কারখানার দেয়ালসহ অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ইতোপূর্বে অবৈধ দখলদারদের নোটিশ দিলেও তারা কর্ণপাত করেনি। যে কারণে গত দুই দিনে প্রায় ১০০ অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

শিক্ষার্থীদের টিকার বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন নির্দেশনা

শিক্ষার্থীদের টিকার বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন নির্দেশনা

জাতীয় উদ্যানে তরুণীর হাতের রগ কাটা লাশ

জাতীয় উদ্যানে তরুণীর হাতের রগ কাটা লাশ

সুদিনের মৌমাছিদের কমিটিতে স্থান নেই: কৃষিমন্ত্রী

সুদিনের মৌমাছিদের কমিটিতে স্থান নেই: কৃষিমন্ত্রী

গাজীপুরে একদিনে ৩ জনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

গাজীপুরে একদিনে ৩ জনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ  

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

কাপড়ের ঘোষণায় এলো ৭ কোটি টাকার সিগারেট 

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

প্যারাসেইলিং থেকে পড়ে পর্যটক আহত

১০ টাকা বেশি চাওয়ায় রিকশাচালককে কুপিয়ে হত্যা

১০ টাকা বেশি চাওয়ায় রিকশাচালককে কুপিয়ে হত্যা

সাগরে ডুবলো মিয়ানমার থেকে আসা কফি-আচারবাহী জাহাজ

সাগরে ডুবলো মিয়ানমার থেকে আসা কফি-আচারবাহী জাহাজ

শুভ্রার ঘরে এলো নতুন অতিথি

শুভ্রার ঘরে এলো নতুন অতিথি

ফেনীর দাদনার খালের দখল-দূষণ তদন্তের নির্দেশ 

ফেনীর দাদনার খালের দখল-দূষণ তদন্তের নির্দেশ 

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

মাদক ব্যবসা নিয়ে বিরোধের জেরে গোলাগুলি, আহত ১

মাদক ব্যবসা নিয়ে বিরোধের জেরে গোলাগুলি, আহত ১

সর্বশেষ

মুগদায় রিকশাচালকের ঘরে মিললো জামালপুরের নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রী

মুগদায় রিকশাচালকের ঘরে মিললো জামালপুরের নিখোঁজ ৩ মাদ্রাসাছাত্রী

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ

নবনীতার গান দিয়ে নতুন সিজন শুরু

নবনীতার গান দিয়ে নতুন সিজন শুরু

আদালতের ক্যান্টিনে সংঘর্ষ, কারাগারে বাদী-বিবাদী পক্ষের ৬ জন 

আদালতের ক্যান্টিনে সংঘর্ষ, কারাগারে বাদী-বিবাদী পক্ষের ৬ জন 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

তিন মাস পর ফের মৃত্যুহীন চট্টগ্রাম 

© 2021 Bangla Tribune