X
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৮

জলবায়ু পরিবর্তনে উপকূলের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ক্ষতিপূরণ আদায়ে বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৬) কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন পরিবেশ আন্দোলন ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলন’ এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা -‘পিভার্স ও ফেইস ইন অ্যাকশন’ আয়োজিত মানববন্ধনে তারা এ দাবি করেন।

মানববন্ধনে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলকে দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ঘোষণা করে উপকূলের জীবন-জীবিকা রক্ষায় দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান তারা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আগামী নভেম্বরে গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলনে বার্ষিক তহবিল বাড়ানোর দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। প্রতিবছর বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ নির্মাণ এবং উপকূলের মানুষকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য আগামীতে পদক্ষেপ নিতে হবে। আগামীতে সরকারের প্রকল্প গ্রহণের ক্ষেত্রে দুর্যোগের ঝুঁকিতে থাকা মানুষের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে। সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে সমন্বয়, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান তারা।

এছাড়া সমাবেশে উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি উপকূলজুড়ে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। অভিযোজন প্রক্রিয়া বাড়াতে হবে। সুপেয় পানির স্থায়ী সমাধান করতে হবে। এ জন্য বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ বুঝিয়ে দিতে হবে। এই ক্ষতিপূরণ আদায়ে সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলকে যথাযথ ভূমিকা রাখার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন তারা।

সমাবেশে উত্থাপিত দাবিনামায় বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তন ও দুর্যোগকে মাথায় রেখে স্থায়ী ও মজবুত বেড়িবাঁধ পুনর্নির্মাণ করতে হবে। পর্যাপ্ত সাইক্লোন সেন্টারসহ প্রতিরোধক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণে জরুরি তহবিল গঠন ও বাঁধ ব্যবস্থাপনায় স্থানীয় সরকারকে সম্পৃক্ত করাসহ উপকূলীয় সব মানুষের খাবার পানির টেকসই ও স্থায়ী সমাধান করতে হবে।

তারা আরও দাবি জানান, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বিশ্ব জলবায়ু তহবিল থেকে প্রাপ্ত অর্থ যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে বছরব্যাপী বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রম শুরু করতে হবে। ঝড়-ঝঞ্ঝা ও ভূমিক্ষয় রোধে উপকূলে ব্যাপক হারে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ এবং সবুজবেষ্টনি গড়ে তুলতে হবে। একইসঙ্গে বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন রক্ষায় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্র, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) মিহির বিশ্বাস, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের আমিনুর রসুল বাবুল, নৌ সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে, স্ক্যান সাধারণ সম্পাদক মনিরজ্জামান মুকুল, ফেইথ ইন অ্যাকশনের নির্বাহী পরিচালক নৃপেন বৈদ্য, সমাজ কল্যাণ উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস) চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা, সচেতন সংস্থার সাকিলা পারভীন, লিডার্সের পরিতোষ কুমার বৈদ্য, উন্নয়নকর্মী সানজিদুল ইসলাম প্রমুখ।

 

 

/জেডএ/আইএ/

সম্পর্কিত

শেওড়াপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে একজন গুলিবিদ্ধ

শেওড়াপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে একজন গুলিবিদ্ধ

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে দু’জন হাসপাতালে

রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে দু’জন হাসপাতালে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

শেওড়াপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে একজন গুলিবিদ্ধ

শেওড়াপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে একজন গুলিবিদ্ধ

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে দু’জন হাসপাতালে

রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে দু’জন হাসপাতালে

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর যৌথ প্রশিক্ষণ মহড়া অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর যৌথ প্রশিক্ষণ মহড়া অনুষ্ঠিত

শুক্রবারও রামপুরা ব্রিজে জড়ো হবেন শিক্ষার্থীরা

শুক্রবারও রামপুরা ব্রিজে জড়ো হবেন শিক্ষার্থীরা

বিদেশে উচ্চশিক্ষা নিয়ে অ্যাপ্লাই বোর্ডের সেমিনার

বিদেশে উচ্চশিক্ষা নিয়ে অ্যাপ্লাই বোর্ডের সেমিনার

রুপার পায়েল পাচার চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার

রুপার পায়েল পাচার চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার

এইচএসসি পরীক্ষা: শঙ্কায় অভিভাবকরা

এইচএসসি পরীক্ষা: শঙ্কায় অভিভাবকরা

সাত দিনই সারাদেশে গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চান শিক্ষার্থীরা

সাত দিনই সারাদেশে গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চান শিক্ষার্থীরা

সর্বশেষ

রামপুরায় আজও শিক্ষার্থীদের অবস্থান 

রামপুরায় আজও শিক্ষার্থীদের অবস্থান 

বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকলে ইতিহাস বিকৃত হয়: শিক্ষামন্ত্রী

বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকলে ইতিহাস বিকৃত হয়: শিক্ষামন্ত্রী

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

২১ জনের আক্রমণে শত্রুমুক্ত হয় বরগুনা

২১ জনের আক্রমণে শত্রুমুক্ত হয় বরগুনা

দুর্ঘটনা তহবিলে ১০০ কোটি টাকা চায় বিআরটিএ

দুর্ঘটনা তহবিলে ১০০ কোটি টাকা চায় বিআরটিএ

© 2021 Bangla Tribune