X
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

গেইল-সিমন্সরা যেন ‘টেস্ট বিশ্বকাপ’ খেলছেন!

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২১

এক একটা নাম শুনলেই গা শিউরে ওঠার কথা বোলারদের। ক্রিস গেইল, কিয়েরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, এভিন লুইস, ডোয়াইন ব্রাভো... টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে যারা অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। তো এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের বোলারদের কীভাবে উড়িয়ে-গুঁড়িয়ে দেবেন, সেটি দেখার অধীর অপেক্ষায় ছিল গোটা ক্রিকেট বিশ্ব। কিন্তু হচ্ছে তার উল্টোটা! ‘অধিক সন্ন্যাসীতে গাজর নষ্ট’ প্রবাদটা একেবারে মিলে যায় ক্যারিবিয়ানদের সঙ্গে।

এত সব বড় নাম একসঙ্গে খেলায় দলে সমন্বয়ের মারাত্মক ঘাটতি। তাই ক্যারিবিয়ান ঝড় তো উঠছেই না, বরং মন্থর ব্যাটিংয়ে ডুবছে হতাশায় সমুদ্রে। গেইল আর টি-টোয়েন্টি সমার্থক হয়ে উঠেছে, অথচ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যেন ‘টেস্ট’ খেলছেন তিনি। লেন্ডল সিমন্সের অবস্থা তো আরও খারাপ। গেইল কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবেন তার ব্যাটিং দেখে। শুধু তারা নয়, দলের কোনও ব্যাটারই সুবিধা করতে পারছেন না। তাই ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে অলআউট হয় ৫৫ রানে। আজ (মঙ্গলবার) দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে উন্নতি হয়েছে, তারপরও ৮ উইকেটে ১৪৩ রান ঠিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ-সুলভ স্কোর নয়।

যে দলে টি-টোয়েন্টির সেরা সব পারফর্মার, তাদের স্কোর দেড়শ পর্যন্ত না যাওয়া ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছেই জুতসই নয়। তারপরও না হয় মানা গেলো, কিন্তু সিমন্স যা করছেন, সেটির কোনও ব্যাখ্যা হয় না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৩৫ বলে ১৬ রান! কাগিসো রাবাদা বলে আউট হওয়ার আগে কোনও বাউন্ডারি নেই এই ওপেনারের। টেস্ট ব্যাটিং ছাড়া আর কি বলা যায়! ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেও প্রায় একই অবস্থা, ৭ বলে করে যান মাত্র ৩ রান।

গেইলের অবস্থাও তো সুবিধার নয়। নিজেকে হারিয়ে খুঁজে চলা এই ব্যাটার একটা ছক্কা মেরেছেন বটে, কিন্তু রান করেছেন ১২ বলে ১২। গেইল ১২ বলে খেলে দ্বিগুণ রান তুলবেন, ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রত্যাশায় তো এটাই থাকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের চিত্রটাও একই, ১৩ বলে ১৩ রান।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে নিকোলাস পুরানের ৭ বলে ১২, রাসেলের ৪ বলে ৫, পোলার্ডের ২০ বলে ২৬ রানের ইনিংসগুলো তাদের নামের পাশে বেমানান। তারপরও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ১৪৩ পর্যন্ত গিয়েছে লুইসের হাফসেঞ্চুরিতে। সিমন্স যেখানে কঠিন সংগ্রাম করছিলেন, সেখানে উল্টো পাশে ৩৫ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ৬ ছক্কায় ৫৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন এই ওপেনার।

দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে সফল বোলার ডোয়াইন ‍প্রিটোরিয়াস। এই পেসার ২ ওভারে ১৭ রান দিয়ে নেন ৩৩ উইকেট। ৪ ওভারে ২৪ রান খরচায় ২ উইকেট কেশব মহারাজের। আর একটি করে ‍উইকেট পেয়েছেন কাগিসো রাবাদা ও আনরিখ নর্কিয়া।

/কেআর/

সম্পর্কিত

৯১ রানে ৯ উইকেট শেষ শ্রীলঙ্কার, গল টেস্টে উইন্ডিজের দাপট

৯১ রানে ৯ উইকেট শেষ শ্রীলঙ্কার, গল টেস্টে উইন্ডিজের দাপট

নতুনদের নিয়ে কাজ না হলে পুরনোদের আনতেই হবে: ‍মুমিনুল

নতুনদের নিয়ে কাজ না হলে পুরনোদের আনতেই হবে: ‍মুমিনুল

সাকিব-তাসকিনকে নিয়েই ঢাকা টেস্টের দল

সাকিব-তাসকিনকে নিয়েই ঢাকা টেস্টের দল

বিশ্ব শান্তি সম্মেলন উপলক্ষে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত

বিশ্ব শান্তি সম্মেলন উপলক্ষে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত

quiz
সর্বশেষসর্বাধিক
© 2021 Bangla Tribune