X
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

সেতুর অপেক্ষায় তিন যুগ লক্ষাধিক মানুষ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩৩

চন্দ্রঘোনায় কর্ণফুলী নদীতে একটি সেতুর দাবি দীর্ঘদিনের। এই সড়কে চলাচলকারী লক্ষাধিক মানুষের দুর্ভোগ গত ৩৮ বছরের। বান্দরবান জেলার সঙ্গে রাঙামাটি ও খাগড়াছড়িতে যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম ফেরি। দীর্ঘ তিন যুগ পরও চন্দ্রঘোনায় কর্ণফুলী নদীতে একটি সেতুর অভাবে রাঙ্গুনিয়া, রাঙামাটি-রাজস্থলী-বান্দরবান সড়কের লিচুবাগান ফেরিঘাট এলাকায় যানবাহন ও মানুষের চলাচলে ভোগান্তি বেড়েই চলছে। 

এই সড়কে প্রতিদিন ছোটবড় হাজার খানেক যানবাহন চলাচল করে। গাড়ি কম কিংবা বেশি হলেই ফেরির জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা দুই পাড়ের মানুষকে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষায় থাকতে হয়। যুগের পর যুগ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন তারা।

২০১৭ সালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট পরিদর্শন শেষে সেতু অথবা টানেল নির্মাণের আশ্বাস দেন। ওই আশ্বাসের বাস্তবায়ন চান স্থানীয় বাসিন্দা ও জনপ্রতিনিধিরা। তবে সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর সিদ্ধান্তের কথা জানায় সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

লক্ষাধিক মানুষের দুর্ভোগ গত ৩৮ বছরের

আবার কর্ণফুলী নদীতে অস্বাভাবিক জোয়ার এবং কাপ্তাই লেক থেকে পানি ছাড়ার কারণে ফেরির পাটাতন নদীতে ডুবে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে জনদুর্ভোগ বেড়ে যায়। মাঝেমধ্যে ফেরি বিকল হয়। এতে দুই পাড়ের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। দুই পাড়ে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে বড় ধরনের যানজট সৃষ্টি হয়। সময় বাঁচাতে অনেকে ঝুঁকি নিয়ে ছোট ছোট সাম্পান দিয়ে পার হয় নদী। কর্ণফুলী নদীতে যোগাযোগের জন্য রাঙামাটি সড়ক ও জনপথ বিভাগ ১৯৮৪ সালে ফেরি চলাচল শুরু করে। সেতুর অভাবে ভোগান্তিতে আছে এখানের প্রায় দেড় লাখ মানুষ।

একটি মাত্র ফেরি প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলাচল করে। বাকি সময়ে সম্পানই ভরসা। ফেরি স্বল্পতায় কৃষিপণ্য, মৌসুমি ফল, জরুরি রোগী নিয়ে বিপাকে পড়তে হয় দুই পাড়ের বাসিন্দাদের।

ফেরিযাত্রী মো. মিজানুর রহমান ও আক্তার হোসেন জানান, তাদের বাড়ি বান্দরবানে। প্রতি সপ্তাহে বাড়ি যান একসঙ্গে। ফেরি পারাপারে দুর্ভোগের শেষ নেই। পাঁচ মিনিটের পথে ৩০ মিনিট লেগে যায়। কোনও কোনও সময় এক ঘণ্টা লাগে। এই দুর্ভোগ কবে শেষ হবে জানা নেই তাদের।

সুমন চাকমা বলেন, আমার বাড়ি রাজস্থলী উপজেলায়। জরুরি কাজে রাঙামাটি যাই। এই পথে সেতু নির্মাণ হলে লক্ষাধিক মানুষের উপকার হবে। রাতে মানুষ চলাচল কম, তাই ফেরি বন্ধ থাকে। তখন হাসপাতাল নিতে না পেরে অনেক রোগী পথেই মারা যায়।

ফেরিঘাট এলাকায় যানবাহন ও মানুষের চলাচলে ভোগান্তি বেড়েই চলছে

ট্রাকচালক মো. মাহিন মিয়া বলেন, পচনশীল অনেক কৃষিপণ্য সঠিক সময়ে চট্টগ্রাম-ঢাকায় পৌঁছাতে না পারলে পচে যায়। ফেরির অপেক্ষায় দীর্ঘসময় ঘাটে কেটে যায়। সেতু হলে কৃষিপণ্যের ভালো দাম পাবেন এখানের কৃষকরা।

ফেরিচালক মিলন মারমা বলেন, আগের চেয়ে গাড়ির সংখ্যা বেড়েছে। আমরা সাধ্যমতো দ্রুতসময়ে যানবাহন পারের চেষ্টা করি। আমাদের মোবাইল নম্বর চেষ্টা করি সবার কাছে দিয়ে রাখতে। কারণ রাতে জরুরি প্রয়োজন হলে যেন আমাদের জানায়। এখানে আরও ফেরির প্রয়োজন। একটি সেতু হলে সবচেয়ে ভালো হয়।

রাঙামাটি কাপ্তাই ২ নম্বর রাইখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. এনামুল হক বলেন, ২০১৭ সালে এই এলাকা পরিদর্শনে এসে  সেতুমন্ত্রী স্থানীয়দের দাবির মুখে সেতু অথবা টানেল নির্মাণের আশ্বাস দেন। অথচ দীর্ঘদিনেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। আমরা সেতুমন্ত্রীর আশ্বাসের বাস্তবায়ন দেখতে চাই।

তিনি বলেন, প্রচুর কৃষিপণ্য উৎপাদন হলেও যোগাযোগের সমস্যার কারণে কৃষকরা ন্যায্য দাম পান না। সেতু হলে সবার উপকার হবে।

রাঙামাটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহ আরেফিন বলেন, ভোগান্তি লাঘবে প্রাথমিকভাবে বড় ফেরি যুক্ত করা হয়েছে। কর্ণফুলী নদীতে সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

/এএম/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ধার্য

সিনহা হত্যা মামলা: যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ধার্য

সৌদি আরবে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় বাংলাদেশি নিহত

সৌদি আরবে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় বাংলাদেশি নিহত

কাউন্সিলরসহ দুজনকে হত্যা: আরও ২ আসামি রিমান্ডে

কাউন্সিলরসহ দুজনকে হত্যা: আরও ২ আসামি রিমান্ডে

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে পথশিশু নিখোঁজ

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে পথশিশু নিখোঁজ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

সিনহা হত্যা মামলা: যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ধার্য

সিনহা হত্যা মামলা: যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ধার্য

সৌদি আরবে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় বাংলাদেশি নিহত

সৌদি আরবে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় বাংলাদেশি নিহত

কাউন্সিলরসহ দুজনকে হত্যা: আরও ২ আসামি রিমান্ডে

কাউন্সিলরসহ দুজনকে হত্যা: আরও ২ আসামি রিমান্ডে

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে পথশিশু নিখোঁজ

চট্টগ্রামে এবার খালে পড়ে পথশিশু নিখোঁজ

পদত্যাগের আগে চট্টগ্রামের হোটেল রেডিসনে ছিলেন ডা. মুরাদ

পদত্যাগের আগে চট্টগ্রামের হোটেল রেডিসনে ছিলেন ডা. মুরাদ

ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেলো বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের

ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেলো বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের

ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৯ রোহিঙ্গা আটক

ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৯ রোহিঙ্গা আটক

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন জাহাজ চলাচল পুনরায় শুরু

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন জাহাজ চলাচল পুনরায় শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: লিখিত বক্তব্য দিচ্ছেন বরখাস্ত এসআই নন্দ দুলাল

সিনহা হত্যা মামলা: লিখিত বক্তব্য দিচ্ছেন বরখাস্ত এসআই নন্দ দুলাল

তিন লাখ ইয়াবা ফেলে পালালো পাচারকারীরা

তিন লাখ ইয়াবা ফেলে পালালো পাচারকারীরা

সর্বশেষ

ওমিক্রনের সংক্রমণ ও ভয়াবহতা নিয়ে যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা

ওমিক্রনের সংক্রমণ ও ভয়াবহতা নিয়ে যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা

‘সংবাদপত্র রুগ্ন হয়ে পড়েছে’

‘সংবাদপত্র রুগ্ন হয়ে পড়েছে’

প্যান্ডোরা পেপার্সে ৮ বাংলাদেশির নাম

প্যান্ডোরা পেপার্সে ৮ বাংলাদেশির নাম

গ্রামপুলিশকে যৌন হয়রানি, ইউপি সচিবের ১ বছর কারাদণ্ড

গ্রামপুলিশকে যৌন হয়রানি, ইউপি সচিবের ১ বছর কারাদণ্ড

সৌদিতে কর্মীদের সমস্যা সমাধানে প্রতি মাসে যৌথসভা করার সিদ্ধান্ত

সৌদিতে কর্মীদের সমস্যা সমাধানে প্রতি মাসে যৌথসভা করার সিদ্ধান্ত

© 2021 Bangla Tribune