সেকশনস

করোনাকালেও টেকনাফ স্থলবন্দরে কোনও ছাড় নেই, দুশ্চিন্তায় ব্যবসায়ীরা

আপডেট : ০৭ জুলাই ২০২০, ২০:৪০

টেকনাফ স্থলবন্দরে স্তূপ করা কাঠ  

করোনার কারণে গত দুই মাস ধরে কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে জমে গেছে বিপুল কাঠের স্তূপ।  মিয়ানমার থেকে আনা এসব কাঠ দেশজুড়ে লকডাউনের ফলে ট্রাক না পাওয়ায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ  করতে পারেননি আমদানিকারকরা। তখন সরকারের পক্ষ থেকে করোনার জন্য সব কিছু ছাড় ওেয়ার কথাও শোনা গিয়েছিল। চট্টগ্রাম বন্দরেও ব্যবসায়ীরা পেয়েছেন এমন সহযোগিতা। কিন্তু, টেকনাফ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ গোঁ ধরে আছেন ভাড়া-মাশুল সব স্বাভাবিক সময়েই হারেই দিতে হবে। কোনও ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের এমন কঠোর আচরণে আমদানিকারকরা পড়েছেন চরম বেকায়দায়। আমদানি পণ্য বৃষ্টি ভিজে নষ্ট হচ্ছে, তা দ্রুত সরাতেও পারছেন না। আবার টানা দুই মাস দেশ ‘বন্দি’ থাকার কারণে যে ভাড়া ও মাশুল হয়েছে তা দিতেও পারছেন না। বিষয়টির সমাধানে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।   

ব্যবসায়ীরা বলছেন, করোনা মোকাবিলায় চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ সরকারি নিদের্শনায় ৫ এপ্রিল একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে। যাতে বলা হয় সাধারণ ছুটির সময় বন্দরে যেসব কন্টেইনারবাহী জাহাজ আসবে সেসব কন্টেইনার ছুটির সময়ে খালাস করা হলে শতভাগ চার্জ মওকুফ করা হবে।

সরকারের পক্ষ থেকে এমন নির্দেশনা থাকলেও টেকনাফ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া ও মাশুল অর্থাৎ চার্জ আদায় করছে।

এ অবস্থায় ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট চেয়ারম্যান বরাবর কাঠের চার্জ মওকুফ চেয়ে ৭ জুন একটি লিখিত আবেদন করে টেকনাফ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশন কর্তৃপক্ষ। এখনও তার সুরাহা  হয়নি।

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল হক বাহাদুর বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনায় গত দুই মাস লকডাউনে থাকতে হয়েছে। এতে ব্যবসায়ীরা আমদানি করা কোনও কাঠ কোথাও সরবরাহ করতে পারেননি। কারণ, লকডাউনের সময় ট্রাক পাওয়া যায়নি। নিত্যপণ্যের দোকান ছাড়া সব ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। কিন্তু, এরপর সেই কাঠ গত জুনে ছাড় করাতে গেলে আগের সমান চার্জ আরোপ করে স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ। দুই মাসের এই অতিরিক্ত চার্জ আদায় করলে ব্যবসায়ীদের লাখ লাখ টাকা লোকসান গুনতে হবে। আমরা তো পরিস্থিতির শিকার। সরকারের নির্দেশেই আমরা তখন ব্যবসা বন্ধ রেখেছি। তাহলে এখন কেন  এমন চাপ দেওয়া হবে?

টেকনাফ স্থলবন্দর

তিনি আরও বলেন, যদি বৃহত্তম চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ সেখানকার ব্যবসায়ীদের স্বার্থে চার্জ মওকুফ করতে পারে তাহলে টেকনাফ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ কেন পারবে না? আমরা চার্জ মওকুফ চেয়ে আবেদনও করলেও কোনও কাজ হয়নি। এভাবে চলতে থাকলে কাঠ ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সরকার কোটি টাকার রাজস্ব বঞ্চিত হবে।

স্থলবন্দর সূত্র জানায়, মিয়ানমার থেকে আসা বিভিন্ন প্রকারের প্রায় ৫০ হাজার পিস কাঠ টেকনাফ স্থলবন্দরে পড়ে আছে। এসব কাঠ দেখভাল করছেন বন্দর কর্তৃপক্ষ। এসব কাঠ থেকে কোনও প্রকার অতিরিক্ত চার্জ আদায় করা হচ্ছে না। করোনার আগে যে চার্জ নেওয়া হতো, তাই নেওয়া হচ্ছে। মিয়ানমার কাঠ রফতানি না করলেও সেখান থেকে কোটি টাকার কাঠ টেকনাফ স্থলবন্দরে আসছে। তার বিপরীতে সরকারও রাজস্ব পাচ্ছে।

কাঠ ব্যবসায়ী আবদুল্লাহ মনির বলেন, ‘আমার লাখ টাকার কাঠ বন্দরে পড়ে আছে। বৃষ্টির কারণে এসব কাঠের অধিকাংশ নষ্ট হওয়ার পথে। তার ওপর বন্দর কর্তৃপক্ষ অতিরিক্ত চার্জ নিচ্ছে। এখন কী করবো বুঝতে পারছি না।

টেকনাফ স্থলবন্দর ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জসীম উদ্দীন চৌধুরী অবশ্য কাঠ ব্যবসায়ীদের এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘কাঠ থেকে অতিরিক্ত চার্জ আদায়ের বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমরা আগের নিয়মেই চার্জ নিচ্ছি। এ বিষয়ে সরকারি নির্দেশনার কোনও চিঠি এবং চট্টগ্রাম বন্দরের চার্জ মওকুফ সম্পর্কে অবগত নই।’

তিনি আরও জানান, টেকনাফ সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে থেকে কাঠের চার্জ মওকুফের আবেদন পেয়েছি। সেটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনও নির্দেশনা আসেনি।

 

/আরআইজে/টিএন/

সম্পর্কিত

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

১২ দিন পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল শুরু

১২ দিন পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল শুরু

নির্বাচনি এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা জারি

নির্বাচনি এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা জারি

‘সম্প্রীতি ও উন্নয়নে বাধাগ্রস্তকারীদের কঠোর হাতে দমন করা হবে’

‘সম্প্রীতি ও উন্নয়নে বাধাগ্রস্তকারীদের কঠোর হাতে দমন করা হবে’

আ. লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনি কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ

আ. লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনি কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

রেজাউল করিমের প্রচারণায় নেমেছেন অভিনয় শিল্পীরা

রেজাউল করিমের প্রচারণায় নেমেছেন অভিনয় শিল্পীরা

মানিকছড়িতে বাস খাদে পড়ে নিহত ১

মানিকছড়িতে বাস খাদে পড়ে নিহত ১

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি

কক্সবাজার ভূমি অফিসের ‘শীর্ষ দালাল’ মুহিব উল্লাহসহ গ্রেফতার ২

কক্সবাজার ভূমি অফিসের ‘শীর্ষ দালাল’ মুহিব উল্লাহসহ গ্রেফতার ২

সর্বশেষ

বলিরেখা কমান প্রাকৃতিক উপায়ে

বলিরেখা কমান প্রাকৃতিক উপায়ে

২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

জিতেও চেলসির চাকরি হারালেন ল্যাম্পার্ড

জিতেও চেলসির চাকরি হারালেন ল্যাম্পার্ড

ট্যুর অপারেটর ও গাইডদের রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক, নয়তো সাজা

ট্যুর অপারেটর ও গাইডদের রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক, নয়তো সাজা

২৬ জানুয়ারি থেকে বেতারে প্রাথমিকের পাঠদান

২৬ জানুয়ারি থেকে বেতারে প্রাথমিকের পাঠদান

ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলো ৩৮ বাংলাদেশি

ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলো ৩৮ বাংলাদেশি

করোনা পরবর্তী শারীরিক জটিলতায় এএসপির মৃত্যু

করোনা পরবর্তী শারীরিক জটিলতায় এএসপির মৃত্যু

‘লাইসেন্সবিহীন' ইটভাটার বিষে আক্রান্ত পাইকগাছার ৫ সহস্রাধিক মানুষ

‘লাইসেন্সবিহীন' ইটভাটার বিষে আক্রান্ত পাইকগাছার ৫ সহস্রাধিক মানুষ

পরীক্ষার দাবিতে হাজী দানেশ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

পরীক্ষার দাবিতে হাজী দানেশ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

ভারত সরকারের পদ্মশ্রী পদক পাচ্ছেন দুই বাংলাদেশি

ভারত সরকারের পদ্মশ্রী পদক পাচ্ছেন দুই বাংলাদেশি

ক্যারিবীয়দের হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশের

ক্যারিবীয়দের হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশের

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

গভীর রাতে আ.লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর বাসার সামনে গুলি

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

১২ দিন পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল শুরু

১২ দিন পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল শুরু

নির্বাচনি এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা জারি

নির্বাচনি এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা জারি

‘সম্প্রীতি ও উন্নয়নে বাধাগ্রস্তকারীদের কঠোর হাতে দমন করা হবে’

‘সম্প্রীতি ও উন্নয়নে বাধাগ্রস্তকারীদের কঠোর হাতে দমন করা হবে’

আ. লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনি কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ

আ. লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনি কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

রেজাউল করিমের প্রচারণায় নেমেছেন অভিনয় শিল্পীরা

রেজাউল করিমের প্রচারণায় নেমেছেন অভিনয় শিল্পীরা

মানিকছড়িতে বাস খাদে পড়ে নিহত ১

মানিকছড়িতে বাস খাদে পড়ে নিহত ১

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.