X
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

আজ পিরোজপুর মুক্ত দিবস

আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২৩

আজ ৮ ডিসেম্বর, পিরোজপুর মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে বরিশাল বিভাগের এ জেলাটি পাকহানাদার মুক্ত হয়। এ দিনে জেলার ঘরে ঘরে উড়েছিল লাল সবুজের বিজয় পতাকা। মুক্তিযুদ্ধের সময় পিরোজপুর ছিল নবম সেক্টরের অধীন সুন্দরবন সাব-সেক্টর কমান্ডার মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন এলাকা। ১৯৭১ সালের ৪ মে পিরোজপুরে প্রথম পাকবাহিনী প্রবেশ করে।

শহরের প্রবেশদ্বার হুলারহাট নৌ-বন্দর থেকে হানাদার বাহিনী প্রবেশের পথে প্রথমেই মাছিমপুর ও কৃষ্ণনগর গ্রামে শুরু করে হত্যাযজ্ঞ। এরপর আট মাস ধরে স্থানীয় শান্তি কমিটির নেতা ও রাজাকারদের সহায়তায় বিভিন্ন এলাকায় সংখ্যালঘু ও স্বাধীনতার স্বপক্ষের লোকজনদের বাড়িঘরে আগুন দেয়। হত্যা করা হয় মুক্তিকামী মানুষদেরকে।

পিরোজপুরকে হানাদার মুক্ত করতে সুন্দরবনের সাব-সেক্টর কমান্ডার মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের একটি দল ৭ ডিসেম্বর রাত ১০টার দিকে পিরোজপুরের পাড়েরহাট বন্দর দিয়ে শহরে প্রবেশ করে। মুক্তিবাহিনীর এ আগমনের খবর পেয়ে শত্রু পক্ষ শহরের পূর্বদিকের কঁচানদী দিয়ে বরিশালের দিকে পালিয়ে যায়। এর আগে স্বরূপকাঠির কুড়িয়ানা এলাকার পেয়ারা বাগানে মুক্তিযোদ্ধাদের গড়ে তোলা দুর্গে পাকবাহিনী আক্রমণ করলে মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে বহু পাকসেনা নিহত হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন স্থানে মুক্তিযোদ্ধাদের গেরিলা আক্রমণে পরাজিত হতে থাকে শত্রুরা।

পিরোজপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গৌতম চৌধুরী জানান, ৮ ডিসেম্বর পাকসেনারা পিরোজপুর ছেড়ে  চলে যায়। পিরোজপুর হয় মুক্ত। ঘরে ঘরে ওড়ে বিজয়ের পতাকা।

পিরোজপুর মুক্ত দিবস উদযাপন পরিষদের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিবসটি পালনে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল সাড়ে ৯টায় শহীদ ভাগীরথী চত্বরে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ। সকাল পৌনে ১০টায় ভাগীরথী চত্বর থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের করে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা, সংবর্ধনা ও সম্মাননা প্রদান এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

গৌতম চৌধুরী জানান, দিবসটিতে পিরোজপুরের সাবেক সংসদ সদস্য এম এন এ এনায়েত হোসেন খান, সাবেক ডা. আব্দুল হাই, ডা. ক্ষিতিশ চন্দ্র মন্ডল এবং বদিউল আলম চৌধুরী, আজিজুর রহমান সিকদার, সাব-সেক্টর কমান্ডার মেজর (অব.) জিয়াউদ্দিন আহমেদকে মরণোত্তর সম্মাননা দেওয়া হবে।

/এফআর/
সম্পর্কিত
চিকিৎসক ও যন্ত্রপাতি সংকটে থমকে আছে বার্ন ইউনিট
চিকিৎসক ও যন্ত্রপাতি সংকটে থমকে আছে বার্ন ইউনিট
নাজুক ব্রিজে উঠলো ট্রাক, ভেঙে পড়লো খালে
নাজুক ব্রিজে উঠলো ট্রাক, ভেঙে পড়লো খালে
বরিশালে অস্ত্রসহ ‘বোমা বাবুল’ গ্রেফতার 
বরিশালে অস্ত্রসহ ‘বোমা বাবুল’ গ্রেফতার 
বরিশালে ছুরিকাঘাতে একজন খুন
বরিশালে ছুরিকাঘাতে একজন খুন
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
চিকিৎসক ও যন্ত্রপাতি সংকটে থমকে আছে বার্ন ইউনিট
শের-ই-বাংলা মেডিক্যালচিকিৎসক ও যন্ত্রপাতি সংকটে থমকে আছে বার্ন ইউনিট
নাজুক ব্রিজে উঠলো ট্রাক, ভেঙে পড়লো খালে
নাজুক ব্রিজে উঠলো ট্রাক, ভেঙে পড়লো খালে
বরিশালে অস্ত্রসহ ‘বোমা বাবুল’ গ্রেফতার 
বরিশালে অস্ত্রসহ ‘বোমা বাবুল’ গ্রেফতার 
বরিশালে ছুরিকাঘাতে একজন খুন
বরিশালে ছুরিকাঘাতে একজন খুন
চাকরি নিয়েছেন অন্যের সার্টিফিকেটে, ভোটার নিবন্ধন করেছেন দুই বার
চাকরি নিয়েছেন অন্যের সার্টিফিকেটে, ভোটার নিবন্ধন করেছেন দুই বার
© 2022 Bangla Tribune