X
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

নিজেই গ্যাস উৎপাদন করে বেলুন ফোলাতো আনোয়ার 

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০৭

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মৌকারা ইউনিয়নের বিরুলিয়া গ্রামের মুন্সি বাড়িতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে প্রায় ৪০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩৮ জন কুমিল্লার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তবে ভয়াবহ এ দুর্ঘটনার জন্য বেলুন বিক্রেতা আনোয়ারকে দায়ী করছেন স্থানীয়রা। তাদের অভিযোগ, আনোয়ার ঝুঁকিপূর্ণ সিলিন্ডারে নিজস্ব পদ্ধতিতে নানাকাঁচামালের ব্যবহারে গ্যাস উৎপাদন করতো। পরে সেই গ্যাস ভরেই বেলুন বিক্রি করতো।
 
ইমরান হোসেন নামের স্থানীয় এক যুবক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা দেখেছি আনোয়ার প্রথমে একটি গ্যাস সিলিন্ডার আনে। তারপর সিলিন্ডারটিতে চুনের (ক্যালসিয়াম অক্সাইড) সঙ্গে বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্যের গুড়ার মিশ্রণ করে তৈরি করতো গ্যাস। পরে সিলিন্ডারের ছিদ্র দিয়ে বের হওয়া গ্যাস বেলুনে ঢুকাতো। এভাবেই নিজের বানানো হিলিয়াম গ্যাস দিয়ে বেলুন ফুলিয়ে বিক্রি করতো আনোয়ার।

বেলুন বিক্রেতার বানানো সিলিন্ডার বিস্ফোরণেই শঙ্কায় ৩৮ প্রাণ


 
বেলুন ক্রেতা ও ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আহত আলমগীর হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, আমি বিক্রির জন্য বেলুন কিনতে গিয়েছিলাম। আমি দেখেছি সিলিন্ডারটি বার বার গরম হয়ে যাচ্ছিল আর আনোয়ার সিলিন্ডারটিতে পানি ঢালছিল। কিন্তু বিস্ফোরণটি হওয়ার আগ মুহূর্তে আমার মনে হচ্ছিল সে পানি দিতে দেরি করে ফেলেছিল। যে কারণে অতিরিক্ত গরম হয়ে সিলিন্ডারটির বিস্ফোরণ হয়। আর চোখের সামনেই সবাই মাটিতে পড়ে গেল। 

মৌকারা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন জানান, সে যে গ্যাস সিলিন্ডারটি এনেছিল সেটির অবস্থা খুবই নাজুক ছিল। অনেক পুরনো ও মরিচা পড়া। ঘটনার পর আমি শুনেছি এটিতে তিন থেকে চারটি জায়গায় ফাটা ছিল। পরে সে সেগুলো ঝালাই করে এনেছে। এলাকাবাসীর অজান্তেই সে এ কাজ করতো।  

বিস্ফোরণে দগ্ধ হয় আনোয়ারের ছোট মেয়ে তিনি আরও জানান, সে তার বাড়ির উঠানেই বেলুন ফোলানোর কাজটি করছিল। তার উঠোনের আশপাশে ২০ থেকে ২৫ টি ঘর বাড়ি রয়েছে যেখানে প্রায় দুইশ’ মানুষ বসবাস করে। সে যখন বেলুন ফোলাচ্ছিল তখন আশপাশের প্রায় অর্ধশত মানুষ আসে তা দেখতে। এর মাঝে শিশুও ছিল অনেক। 

নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. ফারুক হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। তবে সে গ্যাস সিলিন্ডারটি কীভাবে এনেছে বা গ্যাস তৈরি করেছে তা আমরা জানতে পারিনি। এটা জানতে পেরেছি সিলিন্ডারটি থেকে গ্যাস দিয়ে সে বেলুন ফোলাতো। আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ বিষয়ে কোনও অভিযোগ এখনও আসেনি। 
 
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বিরুলিয়া গ্রামের বেলুন ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন বেলুন ফোলানোর সময় বাড়ির মানুষজন ভিড় জমান। হঠাৎ সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ ঘটে এতে প্রায় অর্ধশতাধিক আহত হন। 

/টিটি/
সম্পর্কিত
রংপুরে একদিনে শনাক্ত ১৬৪, আইসিইউতে ৮
রংপুরে একদিনে শনাক্ত ১৬৪, আইসিইউতে ৮
ফেনীতে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৩
ফেনীতে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৩
‘ফেল’ করা ছয় শিক্ষার্থী চ্যালেঞ্জ করে পেলো জিপিএ-৫
‘ফেল’ করা ছয় শিক্ষার্থী চ্যালেঞ্জ করে পেলো জিপিএ-৫

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
রংপুরে একদিনে শনাক্ত ১৬৪, আইসিইউতে ৮
রংপুরে একদিনে শনাক্ত ১৬৪, আইসিইউতে ৮
ফেনীতে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৩
ফেনীতে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ৩
‘ফেল’ করা ছয় শিক্ষার্থী চ্যালেঞ্জ করে পেলো জিপিএ-৫
‘ফেল’ করা ছয় শিক্ষার্থী চ্যালেঞ্জ করে পেলো জিপিএ-৫
© 2022 Bangla Tribune