X
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪
১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

মাদক তল্লাশির নামে প্রবাসীকে মারধরের অভিযোগ, বিজিবির ৩ সদস্য প্রত্যাহার

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪০আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪০

কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভে টেকনাফের বাহারছড়ার শামলাপুর শীলখালী চেকপোস্টে মাদকদ্রব্য তল্লাশির সময় আবদুল্লাহ (৩৫) নামে এক প্রবাসীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বিজিবির তিন সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ। তিনি বলেন, ‘চেকপোস্টে একটি ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে আমরা ইতোমধ্য তিন সদস্যকে প্রত্যাহার করেছি। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এর আগে, গতকাল মঙ্গলবার (০৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে টেকনাফ উপজেলার শামলাপুর শীলখালী বিজিবি চেকপোস্টে মাদক তল্লাশির নামে টেকনাফ পৌরসভার কায়ুখালী পাড়ার মৃত শফিউজ্জামানের ছেলে প্রবাসী আব্দুল্লাহ মারধরের শিকার হন। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আহত ব্যক্তির ছবি নিয়ে পোস্ট ছড়িয়ে পড়ে।

ভুক্তভোগী আবদুল্লাহ বলেন, কিছু দিন আগে মায়ের মৃত্যুর খবর শুনে মালয়েশিয়া থেকে দেশে আসি। আমার সংসারে  দুই স্ত্রী। প্রথম স্ত্রী টেকনাফে এবং দ্বিতীয় স্ত্রী কুমিল্লায় থাকেন। কুমিল্লা থেকে টেকনাফে এসেছিলাম মায়ের কবর জিয়ারত করতে। কবর জিয়ারত শেষে প্রথম স্ত্রীর থেকে বিদায় নিয়ে সন্ধ্যায় টেকনাফ থেকে নীলদরিয়া নামে বাস করে কক্সবাজার ফিরছিলাম। পথে শীলখালী চেকপোস্টে বিজিবির একজন সদস্য আমার দেহ তল্লাশি করেন। কিছু না পেয়ে একটি গোপন কক্ষে নিয়ে উলঙ্গ করে তল্লাশি করা হয়। পরে বিজিবির সদস্যরা কিছু না পেয়ে, আমার কাছে ইয়াবা আছে বলে ব্যাপক মারধর করেন। কিছুক্ষণ মারধরের পর একটি খালি জায়গায় নিয়ে ইয়াবা আছে বলে বল প্রয়োগ করে মলত্যাগ করানো হয়। এতেও ইয়াবা না পেয়ে বিজিবির দুই সদস্য ক্ষিপ্ত হয়ে আবার মারধর করেন। পরে আমি অজ্ঞান হয়ে পড়ি। কিছুক্ষণ পর মুমূর্ষু অবস্থায় আমাকে একটা গাড়িতে তুলে দেওয়া হয়। ওই গাড়ি আমাকে টার্মিনাল এসে ফেলে দিয়ে চলে যায়।
 

/টিটি/
সম্পর্কিত
আইজিপির হুঁশিয়ারিমাদক সেবনের প্রমাণ পেলে পুলিশের চাকরি যাবে
রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেফতার ২৮
হাসপাতালে কক্ষে ঢুকে ডাক্তারকে মারধর, বাবা-ছেলে আটক
সর্বশেষ খবর
নির্বাচনে কারচুপির প্রতিবাদে পিটিআইয়ের বিক্ষোভ, পুলিশের সাথে সংঘর্ষ
নির্বাচনে কারচুপির প্রতিবাদে পিটিআইয়ের বিক্ষোভ, পুলিশের সাথে সংঘর্ষ
‘বিদেশফেরত কর্মীদের পুনঃপ্রতিষ্ঠায় প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই’
‘বিদেশফেরত কর্মীদের পুনঃপ্রতিষ্ঠায় প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই’
বিয়ের পরদিন নিখোঁজ, সপ্তাহখানেক পর মরদেহ মিললো সরিষাক্ষেতে
বিয়ের পরদিন নিখোঁজ, সপ্তাহখানেক পর মরদেহ মিললো সরিষাক্ষেতে
ডিএনএ পরীক্ষা ও আদালতের নির্দেশ ছাড়া অভিশ্রুতি বা বৃষ্টির লাশ হস্তান্তর নয়
ডিএনএ পরীক্ষা ও আদালতের নির্দেশ ছাড়া অভিশ্রুতি বা বৃষ্টির লাশ হস্তান্তর নয়
সর্বাধিক পঠিত
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী: কে কোন দফতরে
নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী: কে কোন দফতরে
মোবাইল অপারেটররা দিতে পারবে ওয়াই-ফাই সেবা, আপত্তি আইএসপি অপারেটরগুলোর
মোবাইল অপারেটররা দিতে পারবে ওয়াই-ফাই সেবা, আপত্তি আইএসপি অপারেটরগুলোর
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
আগুনে পোড়া শহরে এসে বলিউড বাদশাহ’র নীরবতা
আগুনে পোড়া শহরে এসে বলিউড বাদশাহ’র নীরবতা