X
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
১৯ মাঘ ১৪২৯

‘তোমাকে ভালোবাসি মা’, ছাদ ধসে নিহত সাইফুলের চিরকুট

জসিম উদ্দিন মজুমদার, খাগড়াছড়ি
১০ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৩২আপডেট : ১০ অক্টোবর ২০২২, ০৪:৩৪

বাড়ি বাগেরহাট জেলার চিতলমারী থানার কালিগাতি গ্রামে। ভবন ধসে মারা গেলেন কয়েক শ কিলোমিটার দূরের খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে। হতভাগ্য শ্রমিকের নাম সাইফুল ইসলাম (২২)।

খাগড়াছড়িতে থাকতেন পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড শালবন এলাকায়। কাজের সন্ধানে বছরখানেক আগে খাগড়াছড়ি আসে সাইফুল। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় কাজ করতেন।

খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আরিফুর রহমান বলেন, সাইফুলের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  ভাড়া বাসায় থাকা সামগ্রীর সাথে একটি ব্যাগে সাইফুলের হাতে লেখা একটি চিরকুট পাওয়া যায়।

লেখাটি সাইফুলের বলেই মনে হচ্ছে। গত ৮ সেপ্টেম্বরের তারিখ দিয়ে চিরকুটটিতে সাইফুল নিজের নাম, পদবী ও ঠিকানা লিখেছেন। ছোট ছোট ফুল এঁকেছেন। এঁকেছেন ভালোবাসার চিহ্ন। তার ভেতরে লিখেছেন “তোমাকে অনেক ভালোবাসি মা”।

খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ জানান, কে জানতো এটা তার মাকে লেখা শেষ বাক্য হবে। সাইফুলের এই চিঠি অনেকে ফেসবুকে দিয়েছেন। মায়ের প্রতি সন্তানের ভালোবাসা দেখে মুগ্ধ সবাই।

৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল করিম বলেন, ছেলেটি খুব ভালো ছিল। পারিবারিক অনটনে খাগড়াছড়ি এসেও কাজ, টাকা পাঠানো ও পরিবারকে নিয়েই তার যত চিন্তা ছিল।

সাইফুলের বাবার নাম সোহরাব হোসেন। সাইফুল অবিবাহিত জানিয়ে আত্মীয় জয়নাল বলেন,  বাড়িতে বৃদ্ধ বাবা-মা ও ভাই-বোন আছে। পরিবার চালানো সাইফুল না ফেরার দেশে। কী হবে এই পরিবারের!

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকাল পৌনে ৪টার দিকে খাগড়াছড়ি পাবার্ত্য জেলা পরিষদ ভবনের ছাদ ধসে সাইফুল ইসলাম ও খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার সবুজবাগ এলাকার আমিনুল ইসলামের ছেলে মো. সাজ্জাদ হোসেন (২২) মারা যায়। এঘটনায় ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে। গুরুতর আহতরা খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  আহতরা হচ্ছেন সদর উপজেলার শালবন এলাকার মৃত আবদুস সামাদের ছেলে মো. রোকন (৩৮), আবদুস সালামের ছেলে হানিফ মিয়া (২৫), মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে মো. সোহেল (২০), থলিপাড়ার এলাকার লালু চান মিয়ার ছেলে মো. হাসান (২৪), মাটিরাঙার আবদুল খালেকের ছেলে হানিফ (২০)।

এদিকে, মৃত শ্রমিকদের পরিবারপ্রতি এক লাখ টাকা করে দেওয়া হয়েছে। খাগড়াছড়ি পাবার্ত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংশিপ্রু চৌধুরীর পক্ষে খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আরিফুর রহমান, খাগড়াছড়ি পাবার্ত্য জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ, জনসংযোগ কর্মকর্তা চিংলামং চৌধুরী, ৬নং পৌরওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউল করিম, ২নং পৌরওয়ার্ড কাউন্সিলর মানিক নিহত দুইজনের আত্মীয়-স্বজনের কাছে টাকা হস্তান্তর করেন। এসময় আহতদের পরিবারের কাছে ৫ হাজার টাকা নগদ দেওয়া হয়।

এছাড়া জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসের পক্ষে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেসমিন আক্তার নিহতদের পরিবারকে ২৫ হাজার এবং আহতদের ৫ হাজার টাকা করে প্রদান করেন।

/এমএস/
সর্বশেষ খবর
রাজশাহীতে ৩ জনকে হত্যা
রাজশাহীতে ৩ জনকে হত্যা
নার্সদের যৌন হয়রানি: দুই চিকিৎসককে বদলি
নার্সদের যৌন হয়রানি: দুই চিকিৎসককে বদলি
ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত পার্বত্য মন্ত্রীর এপিএস
ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত পার্বত্য মন্ত্রীর এপিএস
মধ্যরাতে জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
মধ্যরাতে জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
সর্বাধিক পঠিত
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
টিকিট কাটতে বলায় সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই চলে যান দম্পতি!
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
পিন নম্বর ছাড়াই সব কার্ডে লেনদেনের সুযোগ
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
নির্বাচন অফিসে গিয়ে আপ্যায়ন চাইলেন হিরো আলম, পেলেন মিষ্টি
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
ইয়েমেনে যাচ্ছিল ইরানের বিপুল অস্ত্র-গোলাবারুদ, আটকালো ফ্রান্স-যুক্তরাষ্ট্র
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ
সাত পদে ১১৭ জনের সরকারি চাকরির সুযোগ