X
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪
৩ বৈশাখ ১৪৩১

এক পা গাছে বেঁধে উল্টো করে ঝুলিয়ে কিশোরকে মারধর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৫৮আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৫৮

ব্রাহ্মণবড়িয়ার আশুগঞ্জের চরচারতলা গ্রামে এক কিশোরকে এক পায়ে রশি বেঁধে গাছে ঝুলিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েলে বিষয়টি সামনে আসে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা গা-ঢাকা দিয়েছেন।

নির্যাতনের শিকার কিশোরের বড় বোন অভিযোগ করে বলেন, তোফাজ্জলের ধানের  নৌকায় শ্রমিকের কাজ করতো আমার ভাই। কাজের মুজুরি ২৩০০ টাকার মধ্যে ১৫০০ টাকা পেয়েছে। বাকি  ৮০০ টাকা পাওনা ছিল। সেই টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয় তোফাজ্জল।

পরে তোফাজ্জল তার সহযোগী জামির, মাসুদ, শাকিল, আকাশ ও নাসির তাকে ধরে নিয়ে এক পা গাছের সঙ্গে বেঁধে উল্টোভাবে ঝুলিয়ে নির্যাতন করেন। এই সংক্রান্ত কয়েক সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রতিবেদকের হাতে রয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, তোফাজ্জল ও তার সহযোগীরা ওই কিশোরের পরিবারের সদস্যদের কল করে জানান, কিশোর তাদের হেফাজতে রয়েছে। তাকে ছাড়িয়ে নিতে হলে দুই লাখ টাকা চাঁদা দিতে হবে। এ নিয়ে কাউকে জানালে মেরে ফেলার হুমকির পাশাপাশি দুই বোনকে তুলে নেওয়ারও হুমকি দেন।

পরে পরিবারের সদস্যরা ধারদেনা করে ৩০ হাজার টাকা সংগ্রহ করে তাদের হাতেপায়ে ধরে বাকি চাঁদার টাকা পরে দেওয়ার শর্তে কিশোরকে ছাড়িয়ে আনেন। এখনও পরিবারটি আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। তবে এই প্রতিবেদকের কাছে পরিবারের সদস্যরা নির্যাতকারীদের গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

ওই কিশোরের এক স্বজন জানান, কিশোরের বাবা পেশায় একজন জেলে। মেঘনায় থেকে মাছ ধরে কোনোরকমে তাদের সংসার চলে। তার দুই বোন রয়েছে। সংসার চালাতে পড়াশোনা বাদ দিয়ে সেও বাবার সঙ্গে মেঘনায় মাছ ধরে কোনোরকমে সংসার চালায়। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার সকালে একই এলাকার চরচারতলা গ্রামের একটি ব্রয়লারের সামনে তোফাজ্জলের কাছে নৌকার কাজের পাওনা টাকা চাইতে গেলে বাগবিতণ্ডা হয়। পরে দুপুরে বাড়ি থেকে রাস্তায় বের হলে জামির (৪০), তোফাজ্জল (২৮), ছেলে মাসুদ (৩৮),শাকিল (৩০), আকাশ (৩০) ও নাসির (৪০) তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তাকে মিডল্যান্ড পাওয়ার প্লান্টের পাশে নিউ এশিয়া প্রজেক্টের খালি যায়গায় নিয়ে কড়ই গাছের ঢালে ঝুলিয়ে নির্যাতন করেন। এরপর সেখানে জামিরসহ সবাই মিলে মোটা রশি দিয়ে এলোপাথাড়ি মারতে থাকেন।

পরে কিশোরের মাকে মোবাইলে কল করে তার ছেলেকে দুই লাখ টাকা দিয়ে ছাড়িয়ে নিতে বলা হয়। এ সময় কিশোরের মা আশপাশের প্রতিবেশী নিয়ে দৌড়ে ছেলেকে উদ্ধার করতে যান। পরে সেখানে গিয়ে সে তার ছেলেকে গাছ থেকে নামিয়ে আনার জন্য সবার হাতে, পায়ে ধরে অনুরোধ করেন। টাকা না দিলে ছেলেকে নামানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন নির্যাতনকারীরা। পরে তার মা টাকা দিতে রাজি হলে গাছ থেকে নামিয়ে আনা হয়। পরে তার মা বাসায় এসে আশপাশের লোকের কাছ থেকে ধারদেনা করে ৩০ হাজার টাকা জামির ও তোফাজ্জলের কাছে দেন।

পরে এ ঘটনা কাউকে জানালে ওই কিশোরকে মেরে ফেলা হবে এবং তার দুই বোনকে তুলে নেওয়ার হুমকি দেন তারা।

ভুক্তভোগীর মা রহিমা খাতুন সাংবাদিকদের জানান, এলাকাবাসী তাকে মারতে দেখে আমাকে খবর দেন। এ সময় মাসুদের মোবাইল দিয়ে কল করে ছেলেকে ছাড়াতে দুই লাখ টাকা নিয়ে নিউ এশিয়া প্রজেক্টে যেতে বলে। না হলে ছেলেকে মেরে ফেলবে। পরে আমি গিয়ে দেখি আমার ছেলেকে গাছে ঝুলিয়ে মারধর করছে তারা। আমি তাদের হাতে পায়ে ধরে ছেলেকে নিচে নামিয়ে আনি। এ সময় মাসুদসহ সবাই আমাকে দুই লাখ টাকা দিতে বলে। পরে আমি সবার কাছে থেকে ধারদেনা করে করে ৩০ হাজার টাকা দিয়ে ছেলেকে তাদের কাছ থেকে ছাড়িয়ে আনি। বাকি টাকা পরে দেবো বলে আসি। এই বর্বর ঘটনার বিচার চাই।

এই বিষয়ে অভিযুক্ত জামিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ঘটনাটি স্বীকার করে এই প্রতিবেদকে বলেন, আমার ভুল হয়েছে। আমি ঘটনার জন্য ক্ষমা চাচ্ছি।

আশুগঞ্জ থানার ওসি নাহিদ আহমেদ বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনেছি। আমাদের কাছে এখনও কেউ আসেনি। নির্যাতনের শিকার পরিবারটি থানায় আসার জন্য খবর পাঠিয়েছি। পাশাপাশি ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের ধরার বিষয়েও পুলিশ মাঠে কাজ করছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া সাপেক্ষে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এফআর/
সম্পর্কিত
বাড়তি ভাড়া চাওয়ায় যাত্রীদের মারধরে চালক-হেলপারের মৃত্যু
কিশোর গ্যাংয়ের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মারধরে মৃত্যুশয্যায় চিকিৎসক বাবা
কুমিল্লায় অফিসে ঢুকে ২ সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগ
সর্বশেষ খবর
নারিনকে ছাপিয়ে বাটলার ঝড়ে রাজস্থানের অবিশ্বাস্য জয়
নারিনকে ছাপিয়ে বাটলার ঝড়ে রাজস্থানের অবিশ্বাস্য জয়
সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু
সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু
ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ
ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ
অপরাধে জড়িয়ে পড়া শিশু-কিশোরদের সংশোধনের উপায় কী
অপরাধে জড়িয়ে পড়া শিশু-কিশোরদের সংশোধনের উপায় কী
সর্বাধিক পঠিত
ঘরে বসে আয়ের প্রলোভন: সবাই সব জেনেও ‘চুপ’
ঘরে বসে আয়ের প্রলোভন: সবাই সব জেনেও ‘চুপ’
ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ১৩ জনের
ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ১৩ জনের
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
প্রকৃতির লীলাভূমি সিলেটে পর্যটকদের ভিড়
প্রকৃতির লীলাভূমি সিলেটে পর্যটকদের ভিড়