X
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

লকডাউনে ঢাকায় থাকলে সংসার চলে না, তাই বাড়ি যাচ্ছি

আপডেট : ২৬ জুন ২০২১, ১৮:৫২

মানিকগঞ্জে চলা লকডাউন উপেক্ষা করে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ঘরমুখো মানুষের ভিড় দেখা গেছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় দুই-তিন গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে বাড়ি ফিরছে মানুষ। স্বাস্থ্যবিধি না মেনে যে যেভাবে পারছে বাড়ি যাচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন, লকডাউনে ঢাকায় থাকলে সংসার চলে না, তাই বাড়ি যাচ্ছি।

২৮ জুন থেকে সারা দেশে কঠোর বিধিনিষেধ ঘোষণার পর শনিবার (২৬ জুন) সকাল থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় মানুষ ও যানবাহনের চাপ বেড়ে যায়। ঘরে ফেরার পাশাপাশি অনেকেই ঢাকায়ও আসছেন। দূরপাল্লার পরিবহন বন্ধ থাকায় দুই-তিন গুণ বেশি ভাড়া গুনতে হয় তাদের।

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার আব্দুর রহমান ও তার স্ত্রী রাবেয়া আক্তার চাকরি করেন সাভারের জিরাবো এলাকার পোশাক কারখানায়। সেখানে যাচ্ছেন তারা। সঙ্গে রয়েছে তাদের ছয় বছরের কন্যাসন্তান জাইমা আক্তার।

গণপরিবহন বন্ধ থাকায় দুই-তিন গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে বাড়ি ফিরছে মানুষ

আব্দুর রহমান বলেন, বাড়ি থেকে বাইকে ফরিদপুরে এসেছি। সেখান থেকে সিএনজিতে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট হয়ে পাটুরিয়ায় এলাম। এখন প্রাইভেটকারে জনপ্রতি ৪০০ টাকা ভাড়া দিয়ে জিরাবোতে যাবো।

ফেরি থেকে নেমে আসা প্রায় সব যাত্রী একই ধরনের অভিজ্ঞতার কথা জানালেন। করলেন বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ। অনেকেই বললেন, জরুরি প্রয়োজনে বাড়ি ফিরছেন।

ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরা হানিফ আলী বলেন, সোমবার থেকে শুরু হওয়া লকডাউনে দোকানপাট বন্ধ থাকবে। যে কয়েকদিন লকডাউন থাকবে, সে কয়েকদিন সংসার চলবে না। কারণ এই সময়ে কাজকাম থাকে না। তাই রাজবাড়ীর কানাইপুরে গ্রামের বাড়ি চলে যাচ্ছি।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্ট থাকলেও নানা অজুহাত দেখিয়ে বাড়ি যাচ্ছে মানুষ। পাটুরিয়া ঘাটে অন্যান্য দিনের মতো ভাড়ায়চালিত প্রাইভেটকারের কমতি ছিল না শনিবারও। ছিল ভাড়াচালিত মোটরসাইকেলও।

গাবতলী থেকে প্রাইভেটকারে পাটুরিয়ায় যেতে ৪০০-৫০০ টাকা গুনতে হয় যাত্রীদের। মোটরসাইকেলে পাটুরিয়া থেকে গাবতলী যেতে গুনতে হচ্ছে জনপ্রতি ৫০০ টাকা। দুইজনের কম যাত্রী নেন না মোটরসাইকেল চালকরা।

সকাল থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় মানুষ ও যানবাহনের চাপ বেড়ে যায়

ঝিনাইদহ থেকে সপরিবারে পাটুরিয়া ঘাটে আসেন ব্যবসায়ী আব্দুল মোমিন। এ পর্যন্ত আসতে পাঁচ গুন বেশি ভাড়া গুনতে হয়েছে তার। এরপরও পাটুরিয়া ঘাটে এসে প্রাইভেটকার পেয়ে খুশি তিনি। বললেন, ভাড়া কত নিচ্ছে তা বড় বিষয় নয়; গন্তব্যে যেতে পারাই এখন বড় কথা।

ঘাটে কথা হয় ভাড়ায়চালিত প্রাইভেটারের চালক জসিম উদ্দিনের সঙ্গে। তিনি সকালে দুই হাজার টাকায় চারজন যাত্রী নিয়ে গাবতলী থেকে পাটুরিয়ায় এসেছেন। এখন একই ভাড়ায় আবার চারজন নিয়ে যাচ্ছেন ঢাকায়।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান বলেন, লকডাউন কার্যকর করতে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সকাল থেকে নজরদারিতে রয়েছে পুলিশ। সাটুরিয়া উপজেলার বারবাড়িয়া সেতু ও সিংগাইর উপজেলার ধল্লা সেতু এলাকায় পুলিশের চেকপোস্ট রয়েছে। জেলার এই দুই প্রবেশপথ দিয়ে পাটুরিয়াগামী কোনও যানবাহন ঢুকতে দিচ্ছে না পুলিশ।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্ট থাকলেও নানা অজুহাত দেখিয়ে বাড়ি যাচ্ছে মানুষ

এদিকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-পথে ছোট বড় মিলে ১৪টি ফেরির মধ্যে ১২টি ফেরি চলাচল করছে। ফেরিতে মানুষের ভিড় দেখা গেছে। স্বাস্থ্যবিধি মানেনি অনেকেই।

জরুরি সেবার আওতাভুক্ত যানবাহন পারপার করা হচ্ছে জানিয়ে বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, জরুরি যানবাহনের সঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কিছু যাত্রী ফেরেতে পার হচ্ছেন। তাদের ঠেকানোর নির্দেশনা আমরা পাইনি। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন। আমাদের নির্দেশনা দিলে আমরাও সহায়তা করবো।

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গত মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত জেলায় লকডাউন ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন। পঞ্চম দিনে ঢিলেঢালা লকডাউন চলছে।

/এএম/
সম্পর্কিত
কারখানা বন্ধের নোটিশ দেখে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ-ফাঁকা গুলি
কারখানা বন্ধের নোটিশ দেখে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ-ফাঁকা গুলি
নারায়ণগঞ্জের সেই কারখানার দুই ইউনিটে কাজ চলছে
নারায়ণগঞ্জের সেই কারখানার দুই ইউনিটে কাজ চলছে
মানিকগঞ্জে বাসচাপায় প্রাণ গেলো ৩ জনের
মানিকগঞ্জে বাসচাপায় প্রাণ গেলো ৩ জনের
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
কারখানা বন্ধের নোটিশ দেখে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ-ফাঁকা গুলি
কারখানা বন্ধের নোটিশ দেখে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ-ফাঁকা গুলি
নারায়ণগঞ্জের সেই কারখানার দুই ইউনিটে কাজ চলছে
নারায়ণগঞ্জের সেই কারখানার দুই ইউনিটে কাজ চলছে
মানিকগঞ্জে বাসচাপায় প্রাণ গেলো ৩ জনের
মানিকগঞ্জে বাসচাপায় প্রাণ গেলো ৩ জনের
৬০ একর জায়গায় ৭০টি প্রাণী, প্রয়োজন ১৮০ একরের
সাফারি পার্কে ৯ জেব্রার মৃত্যু৬০ একর জায়গায় ৭০টি প্রাণী, প্রয়োজন ১৮০ একরের
© 2022 Bangla Tribune