X
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
৮ বৈশাখ ১৪৩১

ফরিদপুর-১ আসনে অর্ধশতাধিক কেন্দ্রের ভোট বাতিল করে পুনর্নির্বাচনের দাবি স্বতন্ত্র প্রার্থীর

ফরিদপুর প্রতিনিধি
১০ জানুয়ারি ২০২৪, ১৮:২২আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২৪, ১৮:২২

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-১ আসনে জাল ভোটসহ অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট পুনরায় গণনা ও অর্ধশতাধিক কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন ঈগল মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলন।

ভিডিও ও স্থিরচিত্রসহ বুধবার (১০ জানুয়ারি) আসনটির অর্ধশতাধিক কেন্দ্রে নানা অনিয়মের তথ্য-প্রমাণা তুলে ধরে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে লিখিত অভিযোগ দেন দোলন। তিনি অনিয়ম হওয়া অর্ধশতাধিক কেন্দ্রের ভোট বাতিল করে পুনর্নির্বাচন চেয়েছেন। এছাড়া আরও কিছু কেন্দ্রের ভোট পুনরায় গণনার দাবি জানান। মৃত ভোটারের ভোট দেওয়ার প্রমাণও জমা দেওয়া হয়েছে কমিশনে। 

এই প্রার্থীর দাবি, ৭ জানুয়ারির ভোটে ফরিদপুর-১ আসনে ঈগল মার্কার প্রার্থী দোলন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এগিয়ে ছিলেন। তবে ভোটের শেষ ঘণ্টায় অর্ধশতাধিক কেন্দ্রে ব্যাপক অনিয়ম, মৃত মানুষের ভোটসহ নানা উপায়ে জালভোট প্রদান ও ভোট শেষ হওয়ার পরও কেন্দ্রের ভেতরে নৌকার পক্ষে ভোট কাটা হয়। প্রিসাইডিং কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রগুলোর নির্বাচনি কর্মকর্তা ও প্রশাসনের যোগসাজশে নৌকা মার্কার পক্ষে নির্বাচনি বিধিসহ আচরণবিধি লঙ্ঘনের মতো অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ঈগল মার্কার এজেন্টদের বের করে দেওয়ার খবরও আসে।

সিইসির কাছে দেওয়া অভিযোগে আরিফুর রহমান দোলন বলেন, ফরিদপুর-১ আসনের বিভিন্ন কেন্দ্রে নির্বাচনি অনিয়ম, নন-ভোটার দিয়ে ভোট প্রদান, অনেক কেন্দ্র থেকে ঈগল প্রতীকের এজেন্টদের বের করে দেওয়া, নির্বাচনি আইন লঙ্ঘনসহ ব্যাপক জাল ভোট দিতে দেখা গেছে একজন বিশেষ প্রার্থীর (নৌকার প্রার্থী) পক্ষে। মৃত ব্যক্তি ও প্রবাসীদের নামেও ভোট দেওয়া হয়েছে। যার প্রমাণ ইসিতে দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়, বিভিন্ন কেন্দ্রে অনিয়মের বিষয়ে প্রিসাইডিং অফিসারদের অবগত করলেও সহযোগিতা পাওয়া যায়নি। রিটার্নিং অফিসার, সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে জানানোর পরও প্রতিকার মেলেনি। নির্বাচন কমিশনের সচিবকে সরাসরি মুঠোফোনে বার্তা পাঠিয়েও কোনও ফল হয়নি। জাল ভোট পড়ার বিষয়ে একাধিক কেন্দ্রে সংশ্লিষ্ট প্রিসাইডিং অফিসারকে ঈগল মার্কার এজেন্ট ও কর্মী-সমর্থকরা জানালে তারা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ না করে রহস্যজনক আচরণ করেন।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, ঈগল মার্কার এজেন্টদের ভোটগ্রহণ শুরুর এক ঘণ্টা পর কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। আবার বিকাল ৪টায় ভোট শেষ হলে একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের এজেন্টদের ভোট গণনার কক্ষে রেখে ঈগল মার্কার এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়। এর আগেই ভোটের মনগড়া ফল লেখা কাগজে জোর করে ঈগল প্রতীকের এজেন্টদের স্বাক্ষর রাখা হয়। একপর্যায়ে ভোট গণনার কক্ষ থেকে ওই বিশেষ প্রার্থীর (নৌকা) এজেন্ট ছাড়া অন্য প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়।

অভিযোগে আরিফুর রহমান দোলন আরও উল্লেখ করেন, ফরিদপুর-১ আসনের বিভিন্ন কেন্দ্রে সকাল থেকে ভোট কারচুপির উদ্দেশে একটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর সমর্থকরা অবস্থান নেন। কেন্দ্র এলাকায় তারা ঈগল মার্কার কর্মীদের মারধর ও ভয়ভীতি দেখিয়ে কেন্দ্র থেকে তাড়িয়ে দেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক দলের ওই প্রার্থীর লোকজন প্রিসাইডিং অফিসারসহ নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগসাজশে অনেকগুলো কেন্দ্রে অবৈধভাবে প্রবেশ করে ব্যালট পেপারে ওই প্রার্থীর প্রতীকে (নৌকা) সিল মারেন।

অভিযোগে দোলন আরও বলেন, ভোট শেষে রাতে ফল ঘোষণার সময় ফরিদপুর জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা কামরুল আহসান তালুকদার নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট না বলে সরাসরি ওই প্রার্থীকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন। সেসময় বিষয়টি জানতে চাইলে প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা নেই বলে জানানো হয়। প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা যদি সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে না থাকে তাহলে ওই বিশেষ প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষণা করা হলো কিসের ভিত্তিত্তে এমন প্রশ্ন রাখেন দোলন। বলেন, ‘এতে বোঝা যায় নৌকার প্রার্থী দ্বারা তিনি প্রভাবিত।’

নির্বাচনি নানা অনিয়ম এবং বিজয়ী নৌকা প্রার্থীর পক্ষে জাল ভোট পড়ার কারণে নির্বাচনে ভোটের সঠিক ফল না পাওয়ার অভিযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী দোলন। যে কারণে তিনি ফরিদপুর-১ আসনের ভোট পুনরায় গণনা এবং অনিয়ম হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দাবি করেছেন।

/এএম/
সম্পর্কিত
সার্বিক অগ্রগতির পথে প্রধান বাধা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের
‘নির্বাচনে কে কত প্রভাবশালী, তা আমরা দেখবো না’
‘এমপি হতে ১ কোটি ২৬ লাখ টাকা খরচ হয়েছে, এটা তুলবো, এটুকু অন্যায় করবো-ই’
সর্বশেষ খবর
এপিএ’র কর্মপরিকল্পনায় মানসম্মত উচ্চশিক্ষা ও গবেষণাকে গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ
এপিএ’র কর্মপরিকল্পনায় মানসম্মত উচ্চশিক্ষা ও গবেষণাকে গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ
হকিতে ক্রীড়ামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চায় মোহামেডান
হকিতে ক্রীড়ামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চায় মোহামেডান
চট্টগ্রামে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্স’ উদ্বোধন
চট্টগ্রামে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ব্যাটারি কমপ্লেক্স’ উদ্বোধন
যুক্তরাজ্যের টিভি চ্যানেলে ফারুকী-তিশার ‘অটোবায়োগ্রাফি’
যুক্তরাজ্যের টিভি চ্যানেলে ফারুকী-তিশার ‘অটোবায়োগ্রাফি’
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’
প্রবাসীদের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে কোটিপতি, দুই ভাই গ্রেফতার
প্রবাসীদের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে কোটিপতি, দুই ভাই গ্রেফতার
চট্টগ্রামে ভূমিকম্প, মাত্রা ৩ দশমিক ৭
চট্টগ্রামে ভূমিকম্প, মাত্রা ৩ দশমিক ৭
কেএনএফের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত, কেঁদে কেঁদে স্ত্রী বললেন আমার ৩ সন্তানকে কে দেখবে?
কেএনএফের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত, কেঁদে কেঁদে স্ত্রী বললেন আমার ৩ সন্তানকে কে দেখবে?