X
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

সাতক্ষীরায় বীজ ও সার পাচ্ছেন ৩২ হাজার কৃষক

আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০২১, ১৩:৩৮

সাতক্ষীরা জেলায় কৃষি প্রণোদনা পাচ্ছেন ৩২ হাজার ৩০০ জন কৃষক। ২০২১-২২ অর্থ বছরে জেলার সাত উপজেলায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের শস্য আবাদের জন্য বীজ ও সার বিতরণ করা হবে। ইতোমধ্যে জেলার কয়েকটি উপজেলায় বিতরণ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। 

সাতক্ষীরা জেলা কৃষি অফিস থেকে জানা যায়, জেলার ১০ হাজার কৃষককে বোরো ধানের (উফশী) বীজ ও সার দেওয়া হবে। বোরো ধান (উফশী) সদর উপজেলায় দুই হাজার জন কৃষককে, কলারোয়া উপজেলায় এক হাজার ৬০০ জনকে, তালা উপজেলায় এক হাজার ৮০০ জনকে, দেবহাটা উপজেলায় এক হাজার জনকে, কালিগঞ্জ উপজেলায় এক হাজার ৩০০ জনকে, আশাশুনি উপজেলায় এক হাজার ৩০০ জনকে এবং শ্যামনগর উপজেলায় এক হাজার জনকে পাঁচ কেজি ধানের বীজ, ১০ কেজি ড্যাব সার ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হবে।

এছাড়াও বোরো ধান (হাইব্রিড) বীজ পাবেন জেলার আরও ১৪ হাজার কৃষক। সদর উপজেলায় তিন হাজার জন, কলারোয়া উপজেলায় দুই হাজার ৫০০ জন, তালা উপজেলায় তিন হাজার জন, দেবহাটা উপজেলায় এক হাজার ৫০০ জন, কালিগঞ্জ উপজেলায় এক হাজার জন, আশাশুনি উপজেলায় দুই হাজার জন ও শ্যামনগর উপজেলায় এক হাজার জনকে দুই কেজি হাইব্রিড ধানের বীজ দেওয়া হবে।  

পাশাপাশি রবি মৌসুমে দুই হাজার কৃষককে গমের বীজ ও সার দেওয়া হবে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ৬৫০ জন, কলারোয়া উপজেলায় ৫০০ জন, তালা উপজেলায় ৪৫০ জন, দেবহাটা উপজেলায় ১০০ জন, কালিগঞ্জ উপজেলায় ১০০ জন, আশাশুনি উপজেলায় ১০০ জন ও শ্যামনগর উপজেলায় ১০০ জন কৃষককে ২০ কেজি গমের বীজ, ১০ কেজি ডেপ সার ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হবে।

একই মৌসুমে এক হাজার কৃষককে ভুট্টার বীজ ও সার দেওয়া হবে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ২৫০ জন, কলারোয়া উপজেলায় ১৫০ জন, তালা উপজেলায় ১৭০ জন, দেবহাটা উপজেলায় ৮০ জন, কালিগঞ্জ উপজেলায় ১৫০ জন, আশাশুনি উপজেলায় ১০০ জন ও শ্যামনগর উপজেলায় ১০০ জন কৃষককে দুই কেজি ভূট্টার বীজ, ২০ কেজি ডেপ সার ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হবে।

জেলার পাঁচ হাজার কৃষককে সরিষার বীজ ও সারও দেওয়া হবে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ৯৫০ জন, কলারোয়া উপজেলায় এক হাজার ৫০ জন, তালা উপজেলায় ৯০০ জন, দেবহাটা উপজেলায় ৪৫০ জন, কালিগঞ্জ উপজেলায় ৬০০ জন, আশাশুনি উপজেলায় ৫০০ জন ও শ্যামনগর উপজেলায় ৫৫০ জন কৃষককে এক কেজি সরিষার বীজ, ১০ কেজি ডেপ সার ও ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। 

একই মৌসুমে তিনশ’ কৃষককে খেসারির বীজ ও সার দেওয়া হবে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ৫০ জন, কলারোয়া উপজেলায় ৪০ জন, তালা উপজেলায় ৩০ জন, দেবহাটা উপজেলায় ৩০ জন, কালিগঞ্জ উপজেলায় ৮০জন, আশাশুনি উপজেলায় ২০ জন ও শ্যামনগর উপজেলায় ৫০ জন কৃষককে আট কেজি খেসারির বীজ, ১০ কেজি ডেপ সার ও ১০ কেজি এমওপি সার দেওয়া হবে।

সাতক্ষীরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিফতরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. নূরুল ইসলাম বলেন, দেশে ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য চাহিদা পূরণে উৎপাদন বৃদ্ধির কোনও বিকল্প নেই। কৃষিবান্ধব বর্তমান সরকার কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের দেওয়া বীজ ও সার শস্য উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ রাখবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

 

/টিটি/
সম্পর্কিত
সুন্দরবনে উদ্ধার মৃত বাঘের হবে ময়নাতদন্ত
সুন্দরবনে উদ্ধার মৃত বাঘের হবে ময়নাতদন্ত
ইয়াবাসহ ২ ইউপি সদস্য গ্রেফতার
ইয়াবাসহ ২ ইউপি সদস্য গ্রেফতার
নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহত ১
নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহত ১
স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই মোংলায়
স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই মোংলায়
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সুন্দরবনে উদ্ধার মৃত বাঘের হবে ময়নাতদন্ত
সুন্দরবনে উদ্ধার মৃত বাঘের হবে ময়নাতদন্ত
ইয়াবাসহ ২ ইউপি সদস্য গ্রেফতার
ইয়াবাসহ ২ ইউপি সদস্য গ্রেফতার
নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহত ১
নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহত ১
স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই মোংলায়
স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই মোংলায়
সাতক্ষীরায় শনাক্তের হার ৪৮.৮৩, উপসর্গ নিয়ে মৃত ৫
সাতক্ষীরায় শনাক্তের হার ৪৮.৮৩, উপসর্গ নিয়ে মৃত ৫
© 2022 Bangla Tribune