X
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

নদ দখল করে বাড়িঘর-দোকান নির্মাণের মহোৎসব

আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৫:১৪

ময়মনসিংহের পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের শহররক্ষা বাঁধের নিচের জায়গা দখল করে বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণের মহোৎসব চলছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রভাবশালী মহলের লোকজন অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু দিয়ে নদীর জায়গা ভরাট করে বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণ করলেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

ময়মনসিংহ মহানগরীর শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালার নিচ থেকে পুলিশ লাইন হয়ে জেলাখানা চর পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্র নদের শহররক্ষা বাঁধ ধরে গেলেই দখলের মহোৎসব, বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণের দৃশ্য চোখে পড়বে। বেশিরভাগ প্রভাবশালী ইট-বালু ব্যবহার করে স্থায়ী ঘরবাড়ি করছেন। স্থানীয় প্রভাবশালীরা প্রথমে ব্রহ্মপুত্রে অবৈধ ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উঠিয়ে শহররক্ষা বাঁধের পাশে মাটি ভরাট করে ভিটে করছেন। পরে ইট-বালু, টিন ও কাঠ দিয়ে স্থায়ীভাবে ঘর তুলছেন। প্রভাবশালীদের ভয়ে আশপাশের লোকজন মুখ খুলছেন না। 

স্থানীয় অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য হাবিবুর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে ৫০০ মিটার দূরে যে যেভাবে পারছে, ব্রহ্মপুত্র নদের জায়গা দখল করে বাড়িঘর ও দোকানপাট তৈরি করছে। দখল বন্ধ করতে এখন পর্যন্ত প্রশাসনকে কোনও ব্যবস্থা নিতে দেখিনি।

তিনি বলেন, এটা নদী দখল নয়; নদীকে ধ্বংস করা হচ্ছে। নদের প্রবাহ যদি ঠিক না থাকে তাহলে পরিবেশ ঠিক থাকবে না। দখল বন্ধে প্রশাসনের উদ্যোগ দেখতে চাই।

বাড়িঘর ও দোকানপাট নির্মাণ

স্থানীয় শহররক্ষা বাঁধের ওপরে বসবাসকারী নীলা গোয়ালা বলেন, দিনদুপুরে প্রশাসনের নাকের ডগায় ব্রহ্মপুত্রের জায়গা দখল করে বাড়িঘর করা হচ্ছে। অথচ প্রশাসন একেবারেই চুপ। নদী তো সবার জন্যই। নদের জায়গা খালি পড়ে থাকলে পরিবেশ সুন্দর থাকে। দেখতেও ভালো লাগে।

স্থানীয় বাসিন্দা মাখন ভূইমালী জানান, বাঁধের পাশে নদীর জায়গা দখল হলে পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হবে এবং বর্ষায় শহররক্ষা বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এমনিতেই প্রতি বর্ষায় শহররক্ষা বাঁধের বিভিন্ন পয়েন্টে ভাঙন দেখা দেয়। বাড়িঘর ও দোকানপাট উঠে যাওয়ায় সামনের বর্ষায় বাঁধের ভাঙন শুরু হলে বাঁধের ওপরের মানুষের বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হবে। নদ ভরাটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দখলকারীদের একজন কাশরের বাসিন্দা আলী আহম্মেদ ফিরোজ জানান, তাদের বাপদাদার পৈতৃক জমি ব্রহ্মপুত্রের গর্ভে বিলীন হয়ে গিয়েছিল। এখন চর জেগে উঠায় ওই জমি ভরাট করে ঘরবাড়ি ও দোকানপাট করছেন। তাদের কাজে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও বাধা দেওয়া হয়নি।

বেশিরভাগ প্রভাবশালী ইট-বালু ব্যবহার করে স্থায়ী ঘরবাড়ি করছেন

এদিকে অপর দখলকারী দোকানি রঞ্জু মিয়া বলেন, নদীর জায়গা অনেকেই দখল করে ঘরবাড়ি করছে। আমিও জায়গা দখল করে দোকান করেছি। তবে প্রশাসন নির্দেশ দিলে আমি দোকানঘর ভেঙে ফেলবো।

ব্রহ্মপুত্র নদ দখলের মহোৎসব চলছে দাবি করে পরিবেশ রক্ষা আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শিব্বির আহমেদ লিটন বলেন, প্রশাসনের নাকের ডগায় দিনের পরদিন ব্রহ্মপুত্র নদের জায়গা দখল হলেও সংশ্লিষ্টরা নিশ্চুপ। প্রশাসনের নীরবতার সুযোগে অসাধু একটি চক্র নদের জায়গা দখল করে ঘরবাড়ি উঠিয়ে ভাড়া দিচ্ছে। অনেকে নদের জায়গা দখল করে বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এ বিষয়ে প্রশাসনের কাছে বারবার অভিযোগ দিয়েও কাজ হয়নি। তবে দ্রুত দখল বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন পরিবেশ আন্দোলনের এই নেতা। 

জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ব্রহ্মপুত্রের জায়গা দখল করে বাড়িঘর ও দোকানপাটা গড়ে তোলার কার্যক্রম দ্রুত সময়ের মধ্যে বন্ধ করা হবে। এ বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। শিগগিরই অভিযান চালানো হবে।

/এএম/
সম্পর্কিত
কুমার নদ গিলে খেলো ১০ বসতবাড়ি, ঝুঁকিতে গোটা বাজার
কুমার নদ গিলে খেলো ১০ বসতবাড়ি, ঝুঁকিতে গোটা বাজার
জামালপুরে মরিচের বাম্পার ফলন, তবু লোকসানের শঙ্কা
জামালপুরে মরিচের বাম্পার ফলন, তবু লোকসানের শঙ্কা
জামালপুরে দেড় মণ গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
জামালপুরে দেড় মণ গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
কুমার নদ গিলে খেলো ১০ বসতবাড়ি, ঝুঁকিতে গোটা বাজার
কুমার নদ গিলে খেলো ১০ বসতবাড়ি, ঝুঁকিতে গোটা বাজার
জামালপুরে মরিচের বাম্পার ফলন, তবু লোকসানের শঙ্কা
জামালপুরে মরিচের বাম্পার ফলন, তবু লোকসানের শঙ্কা
জামালপুরে দেড় মণ গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
জামালপুরে দেড় মণ গাঁজাসহ গ্রেফতার ২
ময়মনসিংহ মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে ২ জনের মৃত্যু
ময়মনসিংহ মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে ২ জনের মৃত্যু
© 2022 Bangla Tribune