‘ভোটাররা না আসলে কী করবো?'

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:৩২, মার্চ ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:১৮, মার্চ ১৮, ২০১৯

দিনাজপুরের ভোটকেন্দ্রদেশের পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ১১৬ উপজেলায় ভোট চলছে। এসব উপজেলার সবখানে সকাল ৮টায় ভোট শুরু হলেও ভোটার উপস্থিতি কম বলে জানা গেছে। প্রথম এক দেড় ঘণ্টায় অনেক কেন্দ্রেই ভোটার উপস্থিতি ছিল না বললেই চলে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কোনও কোনও জায়গায় ভোটারের সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে। তবে পাহাড়ের কয়েকটি কেন্দ্র ছাড়া ব্যাপক ভোটার উপস্থিতির কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর- নওগাঁর ভোটকেন্দ্র

নওগাঁ

কোনও ধরনের সহিংসতা বা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট চলছে নওগাঁর ১০ উপজেলায়। একটি উপজেলায় সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তবে ভোটার উপস্থিতি খুবই কম।

পোরশা উপজেলায় পোরশা হাই মাদ্রাসা কাম হাইস্কুল কেন্দ্রে সকালে কিছু মহিলা ভোটারের উপস্থিতি চোখে পড়েছে। তবে কোনও পুরুষ ভোটার ছিল না। তবে এই অবস্থায়ও পোরশা হাই মাদ্রাসা কাম হাইস্কুল কেন্দ্রের কর্তব্যরত প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ফয়সাল আলম দাবি করেন, ‘সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল ১০টা পর্যন্ত ৩০ শতাংশ ভোট প্রদান করা হয়েছে।’নওগাঁর ভোটকেন্দ্র

পোরশার ২ নং কালাইবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার শফিকুল ইসলাম দাবি করেন, ‘১১টা পর্যন্ত ২৬ শতাংশ ভোট পড়েছে।’ তবে ওই কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি দেখা গেছে খুবই কম।শ্রীমঙ্গলের ভোটকেন্দ্র

মৌলভীবাজার

মৌলভীবাজার সাতটি উপজেলার ৫১৬টি কেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি নেই বলেই মোবাইল ফোনে জানিয়েছেন বিভিন্ন এলাকার  ভোটাররা। শ্রীমঙ্গলে দি  বাডস্ রেসিডেনসিয়্যাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে মোট ভোটার ২১৫১ মহিলা। বুথ ৫টি।  প্রিজাইডিং অফিসার নোমান সিদ্দীকি জানান, প্রথম দুই ঘণ্টায় ভোট  কাস্টিং হযেছে ৭৬টি। সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার বিকাশ চন্দ্র সাহা বলেন, ‘ভোটাররা না আসলে কী করবো? ভোটারের আগ্রহ নাই।’শ্রীমঙ্গলের ভোটকেন্দ্র

সকাল ১০টা নাগাদ শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ সেন্টারে ভোট কাস্টিং হয়েছে ২০০টি। ওই কেন্দ্রটি শুধু পুরুষ ভোটারের। মোট ভোটার ১৯৮৮ জন। কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. আলা উদ্দীন জানান, ভোটারের লাইন ধরার মতো পরিস্থিতি হয়নি। কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার অরুন কুমার সাহা বলেন, ‘এমনিতেই ভোটার নেই,বসে বসে কী করবো?।’শ্রীমঙ্গলের ভোটকেন্দ্র

ভোটার আবুল হোসেন বলেন, ‘ভোটারের মধ্য উৎসাহ নেই। গত নির্বাচনে ভোটারের মাঝে যে আতঙ্ক ছিল, তাই এখনই বিরাজ করছে।’

চট্টগ্রামে ভোটকেন্দ্রচট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের ভোট কেন্দ্রগুলো ফাঁকা বললেই চলে। মিরসরাই ও রাউজানে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সব প্রার্থী নির্বাচিত হয়ে যাওয়ায় সেখানে ভোট হচ্ছে না। ভোট হচ্ছে বাকি পাঁচ উপজেলায়।

ফটিকছড়ি উপজেলায় সকাল ৮টায় ভোট গ্রহণ শুরুর তিন ঘণ্টার মাথায় কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি শূন্য শতাংশে চলে এসেছে। ফটিকছড়ি  এলাকার বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে এমন চিত্রই চোখে পড়েছে। অধিকাংশ কেন্দ্র ছিল ভোটার শূন্য।পুরুষ কেন্দ্রেও ভোটার উপস্থিতি কম

ফটিকছড়ি উপজেলার শাহনগর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. ইব্রাহিম জানান, ‘সকাল ৮ টায় ভোটগ্রহণ শুরু হলেও ১০টা বাজতে না বাজতেই তা শূন্য শতাংশে চলে আসছে। তবে বেলা বাড়লে ভোটার বাড়তে পারে। এখনও কোনও সমস্যা হয়নি। আশাকরি সুন্দর, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে পারবো।’

বখতপুর দায়রা বাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, গুলজার বাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, জাহানপুর আমজাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ঘুরে একই অবস্থা দেখা যায়।Bandarban-election-news-pic--3

কাঞ্চননগর রুস্তমিয়া মনিরুল ইসলাম দাখিল মাদ্রাসা প্রিজাইডিং অফিসার আলমগীর কবির বলেন, ‘কেন্দ্রটি মহিলা ভোটকেন্দ্র। ভোট শুরু হওয়ার পর থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত কোনও ভোটার আসেননি। দুপুরের পরে হয়তো আসতে পারে। কেন্দ্রে  সকাল থেকে কোনও সমস্যা হয়নি। আইনশৃঙ্খলাও স্বাভাবিক রয়েছে। এরপরও কেন ভোটাররা আসছেন না আমার জানা নেই।’

বান্দরবান

বান্দরবানে ৭টি উপ‌জেলায় ভোট হচ্ছে। চেয়ারম্যান প‌দে ১৬ জন, ভাইস চেয়ারম্যান প‌দে ১৭ জন ও ম‌হিলা ভাইস চেয়ারম্যান প‌দে ১৪জন প্রার্থী নির্বাচন কর‌ছে। মোট ভোটার র‌য়ে‌ছে দুই লাখ ৪৬ হাজার ১৮৪ জন।

সোমবার সকা‌ল ৮টা থে‌কে ভোটাররা লাই‌নে দাঁড়ি‌য়ে তা‌দের ম‌নোনীত প্রার্থী‌কে ভোট  দিচ্ছেন। ‌বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটা‌রের সংখ্যাও বাড়ছে। ত‌বে পুরুষ ভোটা‌রের চে‌য়ে নারী ভোটা‌রের সংখ্যা ছিল অ‌নেক বে‌শি। নাইক্ষ্যংছড়ি উপ‌জেলার ম‌ডেল সরকারি প্রাথ‌মিক বিদ্যালয়, তাংরা বিছামারা সরকারি প্রাথ‌মিক বিদ্যালয়, আশারতলী সরকারি প্রাথ‌মিক বিদ্যালয়সহ বেশ ক‌য়েক‌টি কেন্দ্র ঘু‌রে প্রায়  একই  চিত্র  দেখা গে‌ছে। বান্দরবানের ভোটকেন্দ্র

ভোটার আবুল বশর নয়ন ব‌লেন, ‘আ‌মি নাইক্ষ্যংছ‌ড়ি সরকারি প্রাথ‌মিক বিদ্যাল‌য় কে‌ন্দ্রে ভোট দি‌য়ে‌ছি। খুই  শা‌ন্তিপূর্ণভাবে ভোট দি‌তে পে‌রে‌ছি। এভা‌বে ভোট চল‌লে সাধারণ ভোটাররা নির্ভ‌য়ে  ভোট দি‌তে পার‌বে ব‌লে আ‌মি ম‌নে ক‌রি।’
আ‌রেকজন ভোটার মু‌ন্নি ব‌লেন, ‘আ‌মি নাইক্ষ্যংছ‌ড়ি তাংরা বিছামারা সরকারি প্রাথ‌মিক বিদ্যাল‌য়ে  আমার ভোট দি‌য়ে‌ছি। ভোট দিতে কোনও সমস্যা হয়‌নি।’

এ ব্যাপা‌রে বান্দরবান জেলা রিটা‌র্নিং কর্মকর্তা আবুল কালাম ব‌লেন, ‘জেলার ১৭৬টি ভোট কে‌ন্দ্রের ম‌ধ্যে কোনও কেন্দ্রেই কোনও  সমস্যা হয়‌নি। সব জায়গায় শা‌ন্তিপূর্ণ নির্বাচন চল‌ছে।’রংপুরের ভোটকেন্দ্র

রংপুর

রংপুরের ছয়টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে। তবে বেশিরভাগ কেন্দ্রেই ভোটার উপস্থিতি একেবারই কম। নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আশা করছেন, বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে।

সরেজমিনে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার হাড়িয়ালকুঠি ও ডাঙ্গিরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দু’টি কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, ভোটার উপস্থিতি কম। ডাঙ্গিরহাট স্কুল কেন্দ্রে  দুই হাজার ৪৩২ ভোটারের মধ্যে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ৩৫০ ভোট পড়েছে বলে জানিয়েছেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আব্দুস সবুর। হাড়িয়ালিকুঠি কেন্দ্রে ২ হাজার ৯১ ভোটারের মধ্যে দুই শতাধিক ভোট পড়েছে বলে রিটার্নিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন। তবে এ কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি একেবারেই ছিল না। কর্তব্যরত পোলিং অফিসার জানান, ২/৪ জন ভোটার আসছেন, আর ভোট দিচ্ছেন।রংপুরের ভোটকেন্দ্র


পাবনা

পাবনার ৮টি উপজেলায় এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। তবে ভোটারের উপস্থিতি খুব কম লক্ষ্য করা গেছে। ভোট কেন্দ্রে নেই ভোটারের সেই দীর্ঘ লাইন। দুই-একজন করে ভোটার এসে ভোট দিয়ে চলে যাচ্ছেন।

চাটমোহরের বাহাদুরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডং অফিসার হাসিবুর রহমান বেলা সাড়ে ১০ টায় জানান, ‘এই সেন্টারে এখন পর্যন্ত শতকরা ১০ শতাংশ ভোট পড়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতি বাড়তে পারে।’পাবনার ভোটকেন্দ্র

আটঘরিয়া উপজেলার দেবোত্তর সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম।

পাবনার বেড়ায় সুলতানা খানম নামের এক নারী ইউপি সদস্যকে পাইকান্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে পাঁচ দিনের সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক বেড়া ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী। বেলা ১১ টায় এই রায় দেন। সুলতানা বেড়ার রুপপুর ইউপির সদস্য।

উল্লেখ্য, ১৮ মার্চকে ভোটগ্রহণের দিনক্ষণ ঠিক করে গত ৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল দেয় ইসি। ১৭টি জেলার ১২৯টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল হলেও এর মধ্যে গোপালগঞ্জ জেলার ৫টি উপজেলার ভোট দ্বিতীয় দফার পরিবর্তে তৃতীয় দফায় নেওয়া হয়েছে। জানা গেছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ১৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার টুঙ্গিপাড়া সফর থাকার কারণে তার নিরাপত্তাসহ সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে এ জেলার সব কয়টি উপজেলার ভোটের তারিখ পরিবর্তন হয়েছে। এদিকে দ্বিতীয় ধাপে থাকা দিনাজপুর সদর উপজেলার ভোটও ৪র্থ ধাপে (৩১ মার্চ) স্থানান্তর করা হয়েছে। অপরদিকে, আদালতের আদেশে দ্বিতীয় ধাপের তফসিল ঘোষিত গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ভোট স্থগিত হয়েছে। এছাড়াও ৬টি উপজেলার সবগুলো পদে একক প্রার্থী থাকায় ইতোমধ্যে এসব উপজেলার ফল ঘোষণার নির্দেশ দিয়েছে ইসি। যার কারণে এই ৬টি উপজেলায়ও ভোটগ্রহণের প্রয়োজন পড়ছে না। ফলে সব মিলিয়ে ১১৬টি উপজেলায় সোমবার ভোট হচ্ছে।

আরও পড়ুন-

১১৬ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে

দেড় ঘণ্টায় ৬ ভোট!

ভোটার উপস্থিতি কম, স্বতন্ত্র প্রার্থীর পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ

 

/এফএস/

লাইভ

টপ