কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে ঢাকামুখী যাত্রীদের ঢল

Send
মাদারীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:১০, জুন ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১৯, জুন ০৮, ২০১৯

ফেরিতে পারাপারের জন্য গাড়ির চেয়েও মানুষ বেশি

ঈদের ছুটি কাটিয়ে আবার কাজে ফিরতে রাজধানী ছুটছেন মানুষ। এ কারণে যাত্রীদের ঢল নেমেছে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে। ঈদের আগে বাড়ি ফেরার তাড়া থাকলেও এখন তাদের বেশিরভাগেরই ফিরতি গন্তব্য ঢাকা।

আজ শনিবার (৮ জুন) বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে লঞ্চ, স্পিডবোট ও ফেরিতে অতিরিক্ত যাত্রী ও যানবাহনের চাপ দেখা গেছে। যাত্রীদের দীর্ঘ সময় লাইন দাঁড়িয়ে থেকে টিকিট কেটে লঞ্চ ও স্পিডবোটে উঠতে দেখা গেছে।  দুর্ঘটনার  আশঙ্কা থাকায় অনেক যাত্রী এসব যানবাহন এড়িয়ে ফেরিতে করে পাড়ি দিচ্ছেন পদ্মানদী।

ফেরিতে পারাপারের জন্য মানুষের ভিড়। গাড়ির চেয়েও মানুষ বেশি।

এদিকে যাত্রী ও যানবাহনের অতিরিক্ত চাপের কথা মাথায় রেখে বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ, পুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস, আনসার, জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসনসহ সরকারের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সার্বক্ষণিক কাজ করছে। এছাড়া যাত্রীসেবা নির্বিঘ্ন করতে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একাধিক টিমও কাজ করছে।

লঞ্চেও গাদাগাদি করে ঢাকায় ফিরছেন মানুষ

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার জানান, দঞ্চিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ রাজধানী ঢাকার সঙ্গে যাতায়াতের জন্য কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুট ব্যবহার করেন। ঈদে যাত্রীসেবায় ২১টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ, দেড় শতাধিক স্পিডবোট রাখা হয়েছে। এছাড়া ৩ শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য সার্বক্ষণিক ঘাটগুলোতে উপস্থিত থেকে নিরাপত্তার বিষয় দেখভাল করছেন। পাশাপাশি সিসিটিভির মাধ্যমে নজরদারিতে রাখা হয়েছে পুরো কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাট। তবে, সচেতন অনেক যাত্রী লঞ্চ ও স্পিডবোটের পরিবর্তে ফেরিতে পার হচ্ছেন।

/টিএন/

লাইভ

টপ