বগুড়া-৬ উপনির্বাচন: ঈদের আমেজের মধ্যেই মাঠে প্রার্থীরা

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:০৯, জুন ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৩, জুন ০৮, ২০১৯


গণসংযোগে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এসটিএম জামান নিকেতাঈদের আমেজ শেষ না হলেও বগুড়া-৬ (সদর) আসনে আগামী ২৪ জুন অনুষ্ঠিতব্য উপনির্বাচনের প্রার্থী ও সমর্থকরা মাঠে নেমেছেন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন তারা। নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টা করছেন।
পাশাপাশি প্রার্থীরা ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সক্রিয় রয়েছেন। বিভিন্ন স্থানে ডিজিটাল ব্যানার টানিয়ে ভোটারদের শুভেচ্ছা জানানোতেও পিছিয়ে নেই তারা।
এ উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ কংগ্রেস, মুসলিম লীগ ও স্বতন্ত্রসহ ৭ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন আওয়ামী লীগের এসএমটি জামান নিকেতা (নৌকা), বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর (লাঙ্গল), বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনসুর রহমান (ডাব), বাংলাদেশ মুসলিম লীগের রফিকুল ইসলাম (হারিকেন), মিনহাজ মন্ডল (আপেল) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু (ট্রাক)।
গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এ আসনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিজয়ী হন। তবে তিনি শপথ না নেওয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ২৪ জুন এ আসনের ১৪১টি কেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ইভিএম-এ ভোট নেওয়া হবে।
সরেজমিন দেখা গেছে, উপনির্বাচনের প্রার্থী সাতজন হলেও মাঠে তৎপর আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা। ধারণা করা হচ্ছে, লড়াই হবে মূলত এ তিন প্রার্থীর মধ্যেই। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবির আহমেদ মিঠু তার সমর্থকদের নিয়ে লিফলেট বিতরণ করছেন।
ধানের শীষের পক্ষে ভোট চেয়ে প্রচারণাপবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটি শেষ না হতেই শুক্রবার (৭ জুন) থেকেই প্রার্থী ও সমর্থকরা মাঠে নেমেছেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থী এসএমটি জামান নিকেতা দিনভর বিভিন্ন এলাকায় নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে গণসংযোগ করেন। তিনি সন্ধ্যায় শহরের সাতমাথায় বাংলার মুখের ঈদ আনন্দ উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। শনিবার (৮ জুন) বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ, মতবিনিময় শেষে বিকালে শহরে টেম্পল রোডের দলীয় কার্যালয়ে অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরে নির্বাচনি মিছিল বের হয়।
জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি বলেন, নেতাকর্মীরা সদর উপজেলা ও শহরের বিভিন্ন স্থানে নৌকার পক্ষে কাজ করছেন। সদরের বাসিন্দারা উন্নয়নের স্বার্থে এবার নৌকার পক্ষে রায় দেবেন।
বিএনপি প্রার্থী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের পক্ষে দলীয় চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু শহরের ১২ নম্বর ওয়ার্ডে এবং সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আজগর তালুকদার হেনা ইউনিয়নগুলোতে নির্বাচনি সভা ও গণসংযোগ করছেন। তারা ফাঁপোর, নুনগোলা, গোকুল, শাখারিয়াসহ কয়েকটি ইউনিয়ন ও শহরের বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষের পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ করেন।
জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা বলেন, বগুড়া বিএনপির ঘাঁটি। সদর আসনের বাসিন্দারা বিগত সময়ের মতো এবারও বিপুল ভোটে ধানের শীষের প্রার্থীকে বিজয়ী করবেন।
জাতীয় পার্টির গণসংযোগবগুড়া সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান জাপা নেতা এইচএম ইকবাল জানান, সদর আসনে উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী নুরুল ইসলাম ওমর শনিবার বগুড়া শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নাটাইপাড়া, বৌবাজার, কৈপাড়াসহ বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করেন। এর আগে শহরের ২০ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে লাঙ্গল মার্কায় ভোট চান।
স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু (ট্রাক মার্কা) বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সক্রিয় রয়েছেন।
প্রসঙ্গত, বিএনপি গত ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করায় বগুড়া-৬ (সদর) আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ওমর। তিনি সংসদে হুইপ ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপের দায়িত্ব পালন করেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ওমর মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তবে উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ প্রার্থী দিয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এতে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের ভোটাররা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। অনেকে বলছেন, স্থানীয় ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন না করায় অনেকে বিএনপি প্রার্থী সিরাজকে মেনে নিতে পারছেন না। তাই মহাজোট থেকে একক প্রার্থী থাকলে ফলাফল ভালো হতো। জাপার নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, এ ব্যাপারে আগামী ২-৩ দিনের মধ্যেই কেন্দ্র থেকে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।


/এইচআই/

লাইভ

টপ