রাঙামাটি সরকারি কলেজ১০ হাজার শিক্ষার্থীর আবাসিক সুবিধা নেই

Send
জিয়াউল হক, রাঙামাটি
প্রকাশিত : ১৭:২৫, আগস্ট ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩৫, আগস্ট ২৪, ২০১৯

পরিত্যক্ত ছাত্র হোস্টেল (ছবি– প্রতিনিধি)

দুই যুগ ধরে পরিত্যক্ত হয়ে পড়ে রয়েছে রাঙামাটি সরকারি কলেজের একমাত্র ছাত্র হোস্টেল। এদিকে, ছাত্রী হোস্টেল সংস্কার করা হলেও আসবাবপত্রের অভাবে তা চালু করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। কলেজ সূত্র জানায়, বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছেন। এর মধ্যে প্রায় চার হাজার শিক্ষার্থী জেলার বাইরে থেকে এসে পড়াশোনা করেন। আবাসিক সুবিধা না থাকায় নানা অসুবিধার মধ্যদিয়ে যেতে হচ্ছে এসব শিক্ষার্থীকে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ১৯৬৫ সালে রাঙামাটি সরকারি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়; যা তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে সবচেয়ে পুরনো সরকারি কলেজ। তিন পার্বত্য জেলা ও আশপাশের জেলাগুলোর প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী এ কলেজে পড়ালেখা করছেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এখানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়লেও বাড়েনি আবাসিক সুবিধা। উল্টো ১৯৯৭ সালে শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারামারির পর বন্ধ করে দেওয়া হয় একমাত্র ছাত্র হোস্টেল। পরে এটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, আবাসিক সুবিধা না থাকায় ভাড়া বাসা বা আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে থাকতে হয় তাদের। এতে পড়াশুনার পেছনে তাদের বাড়তি খরচ হয় অনেক।

হিসাব বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী মো. কামাল উদ্দিন বলেন, ‘বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে হয়। এতে বাড়তি টাকা খরচ হচ্ছে।’

ইংরেজির চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মো. সোহেল রানা বলেন, ‘আবাসিক সুবিধা থাকলে একসঙ্গে অনেকে থাকতে পারতো। এতে পড়াশুনার ব্যাপারে শেয়ারিংয়ের সুযোগ থাকতো; যা আমাদের পড়ালেখার মান বৃদ্ধিতে সাহায্য করতো।’

আসবাবপত্র নেই ছাত্রী হোস্টেলে (ছবি– প্রতিনিধি)

এদিকে, দীর্ঘদিন পরিত্যক্ত থাকার পর প্রায় ৫ বছর আগে ছাত্রী হোস্টেল সংস্কার করা হয়। কিন্তু শুধু আসবাবপত্রের অভাবে এখনও হোস্টেলটি চালু করা সম্ভব হয়নি।

রাঙ্গুনিয়া থেকে আসা এক ছাত্রী বলেন, ‘আবাসিক সুবিধা না থাকায় বাড়ি থেকে আসা-যাওয়া করতে হয়। এটা আমাদের নিরাপত্তার জন্য হুমকি।’

ব্যবসায় শিক্ষার দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী মনিকা চাকমা বলেন, ‘তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে সবচেয়ে পুরাতন কলেজ হওয়ার পরও এখানে হোস্টেল সুবিধা না থাকাটা দুঃখজনক। আমাদের দাবি, দ্রুত আসবাবপত্রের ব্যবস্থা করে ছাত্রী হোস্টেলটি চালু করা হোক।’

রাঙামাটি সরকারি কলেজ অধ্যক্ষ মো. মঈন উদ্দীন বলেন, ‘ছাত্র হোস্টেলের জায়গায় পাঁচতলা ভবন নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে জরিপের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই নির্মাণ কাজ শুরু হবে। ছাত্রী হোস্টেল চালুর জন্য মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য ফাইল পাঠানো হয়েছে। আসবাবপত্র জেলা পরিষদ সরবরাহ করবে বলে আমাকে জানিয়েছে।’

 

/এমএ/

লাইভ

টপ