প্রক্টর কার্যালয়ে ছাত্রলীগের এক পক্ষের কর্মীকে অপর পক্ষের মারধর

Send
চবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:১৭, জানুয়ারি ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৩, জানুয়ারি ২০, ২০২০




চবির প্রক্টর কার্যালয়ে ছাত্রলীগের এক পক্ষের কর্মীকের মারধর করায় দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে হট্টগোলচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) প্রক্টরের সামনেই প্রতিপক্ষের এক কর্মীকে মারধর করেছে ছাত্রলীগের আরেক পক্ষের কর্মী। এ সময় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকও উপস্থিত ছিলেন। সোমবার (২০ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে চবির প্রক্টর কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার শিক্ষার্থী মোহাম্মদ শুভ ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। সে শাখা ছাত্রলীগের সাবেক উপ- বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রকিবুল হাসান দিনারের অনুসারী ও রেড সিগন্যাল গ্রুপের কর্মী।

অন্যদিকে মারধরকারী ইফরাতুল আলম পিটু ইতিহাস বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। সে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর অনুসারী ও সিক্সটি নাইন গ্রুপের কর্মী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ তার অনুসারীরা প্রক্টরের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য তার কার্যালয়ে যান। এদিকে অন্য এক ঘটনার মীমাংসার জন্য আরএস গ্রুপের কয়েকজন কর্মী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বিষয়টি মীমাংসার সময় চেয়ারে বসা নিয়ে ইফরাতুল আলম পিটুর সঙ্গে মোহাম্মদ শুভর কথা কাটাকাটি হয়। এতে পিটু ক্ষুব্ধ হয়ে শুভকে মারধর করেন।

এ বিষয়ে রেড সিগন্যাল গ্রুপের নেতা রকিবুল হাসান দিনার বলেন, উভয়ের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি থেকে এমন ঘটনা ঘটেছে।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু বলেন, শুভ সিনিয়রের সঙ্গে বেয়াদবি করেছে। এতে সবাই উত্তেজিত হয়ে পড়ে, আমি তাকে রক্ষা করেছি।

ঘটনার বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব না। তখন দুই পক্ষের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। তারা কি বিচার করছে, তা দেখে আমরা ব্যবস্থা নেবো।

/টিটি/

লাইভ

টপ