করোনা আতঙ্কে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে রাস্তায় ফেলে গেলো ট্রাক

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:১২, মার্চ ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২৬, মার্চ ২৯, ২০২০

বগুড়াকরোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে হৃদরোগে আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে ঢাকা থেকে রংপুর যাওয়ার পথে বগুড়ার শিবগঞ্জের মহাস্থান এলাকায় রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে চলে গেছে ট্রাক। শাহ আলম (৫৫) নামে ওই ব্যক্তি অসুস্থ অবস্থায় দীর্ঘক্ষণ পড়ে থাকলেও কেউ তার সাহায্যে এগিয়ে আসেনি। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।  ঢাকা থেকে রংপুরের বাড়িতে ফেরার পথে ওই ব্যক্তির শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে ট্রাক থেকে নামিয়ে দেয় চালক ও হেলপার।  রবিবার (২৯ মার্চ) সকালে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি বর্তমানে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রংপুরের ধাপ মডার্ন মোড় এলাকার মৃত জমির উদ্দিনের ছেলে শাহ আলম ঢাকায় দিনমজুরের কাজ করেন। করোনাভাইরাস আতঙ্কের কারণে তিনি শনিবার রাতে ঢাকা থেকে রংপুরগামী পণ্যবাহী একটি ট্রাকে ওঠেন। রবিবার সকালে ট্রাক বগুড়ার শিবগঞ্জের মহাস্থান বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন অজ্ঞতাবশত এ সন্দেহে ট্রাকের চালক ও হেলপার তাকে মহাসড়কের পাশে নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। শাহ আলম দীর্ঘক্ষণ মহাসড়কের পাশে পড়ে থাকলেও ভয়ে কেউ কাছে আসেনি। সকাল ৯টার দিকে এক পথচারী দেখতে পেয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করেন। নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর কবির স্থানীয় রায়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলামকে জানিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেন। চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম ঘটনাটি শিবগঞ্জ থানা পুলিশকে জানান। এরপর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ আলী তাকে ভ্যানে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. দেলোয়ার হোসেন পরীক্ষা করে নিশ্চিত হন শাহ্ আলম হৃদরোগে আক্রান্ত। তখন তাকে অ্যাম্বুলেন্সে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

শজিমেক হাসপাতালের চিকিৎসক শফিকুল আমিন জানান, শাহ্ আলমকে সিসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। 

/এমএএ/

লাইভ

টপ