নাটোরে ২০০ টন চাল ও ৯ লাখ টাকার অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ

Send
নাটোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৪৬, মার্চ ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৫৮, মার্চ ৩০, ২০২০

BT New Temp-Recoveredকরোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটে নাটোরের কর্মহীন ও দরিদ্র ১ লাখ ৫ হাজার ২শ ৩৭ পরিবার পাচ্ছে ২০০ টন চাল এবং ৯ লাখ টাকার খাদ্য সামগ্রী সহায়তা। ইতোমধ্যেই ১ হাজার ৬শ ৬০ পরিবারকে এসব সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য পরিবারের কাছেও এসব সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। সোমবার (৩০ মার্চ) জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ এবং জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা জানান, জেলা ও উপজেলা প্রশাসন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলার ৭ উপজেলা ও ৮ পৌরসভা এলাকায় বসবাসরত কর্মহীন ও হতদরিদ্র এসব পরিবারের তালিকা করেছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এই চাল এবং টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। প্রাপ্ত তালিকা বিশ্লেষণ করে মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দ করা চালের মধ্যে নাটোর সদরে ৩৮ টন, সিংড়ায় ৪৪ টন, গুরুদাসপুরে ২৩ টন, বড়াইগ্রাম ও লালপুরে ৩১ টন, বাগাতিপাড়ায় সাড়ে ১৫ টন এবং নলডাঙ্গায় সাড়ে ১৭ টন চাল জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে দেওয়া হয়েছে। প্রতি পরিবার ১০-৩০ কেজি চাল এবং তালিকার সংখ্যা অনুযায়ী প্রাপ্ত টাকার প্রয়োজনীয় সামগ্রী পাবে।

অপরদিকে, নয় লাখ নগদ টাকার মধ্যে সদর উপজেলায় এক লাখ ৭২ হাজার, সিংড়ায় এক লাখ ৯৪ হাজার, গুরুদাসপুরে এক লাখ ১২ হাজার, বড়াইগ্রামে এক লাখ ৪৪ হাজার, লালপুরে এক লাখ ৪২ হাজার, বাগাতিপাড়ায় ৬৫ হাজার এবং নলডাঙ্গায় ৭১ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সাকিব-আল-রাব্বি জানান,  রবিবার থেকে তালিকা অনুযায়ী উপজেলার ইউনিয়ন ও পৌরসভা পর্যায়ে ভিক্ষুক, ভূমিহীনদের চাল এবং নগদ টাকায় খাদ্য সামগ্রী কিনে বিতরণ করা হচ্ছে। জনপ্রতি ১৫ কেজি করে চাল এবং বরাদ্দের প্রায় সাড়ে ৬০০ টাকা থেকে আরও পাঁচ কেজি চাল, এক কেজি ডাল, তেল, আটা, আলু, পেঁয়াজ, আধা কেজি করে লবণ ও মুড়ির প্যাকেট এবং সাবান বিতরণ করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসকের উপস্থিতিতে নলডাঙ্গা রেল স্টেশন এলাকায় এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া সোমবার দিনব্যাপী উপজেলার বাসুদেবপুর এলাকায় একশটি পরিবারকে এসব সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে দাবি করেন তিনি।

সদর উপজেলার ইউএনও জাহাঙ্গীর আলম জানান,  সোমবার দুপুর থেকে সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের ৫০ জন চায়ের দোকানিকে ১০ কেজি করে চাল, এক কেজি করে ডাল, তেল ও আলু এবং একটি করে সাবান বিতরণ করেন নাটোর-২ আসনের ( নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা) সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  শফিকুল ইসলাম শিমুল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন– সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ওমর শরীফ চৌহান।

জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে কর্মহীন মানুষ ও হৃতদরিদ্রদের তালিকা অনুযায়ী যথাযথভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব কাজ মনিটরিং করা হচ্ছে।’ 

/এমএএ/

লাইভ

টপ