কারখানার গেটে লেখা ‌লে-অফ, ‍আন্দোলনে শ্রমিকরা

Send
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:৫৯, এপ্রিল ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৮, এপ্রিল ০৫, ২০২০

মিলের মধ্যে আন্দোলনরত শ্রমিকরাশ্রমিকদের বেতন পরিশোধ না করেই ব‌রিশালের সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের গেটে ‌লে-অফ লিখে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মিলটির শ্রমিকরা। এই অভিযোগে রবিবার (৫ এপ্রিল) মিলের ভিত‌রে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করেন তারা। দেড় ঘণ্টা পর পু‌লি‌শের আশ্বা‌সে আন্দোলন থেকে সরে আসেন শ্রমিকরা।

 উল্লেখ্য, ‌‘লে-অফ’ বলতে শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের কাজ বন্ধ থাকার দরুন সাধারণভাবে কাজ হতে অব্যাহতি বুঝায়। একে নির্দিষ্ট কারণে কাজ বন্ধ বলা হয়ে থাকে। বাংলাদেশ শ্রম আইন ২ (৫৮) তে লে-অফ বলতে কয়লা, বিদ্যুৎ, গ্যাস অথবা কাঁচামালের ঘাটতি অথবা মালপত্র জমা হয়ে যাওয়া কিংবা কলকব্জা বিকল হয়ে যাওয়া বা ভেঙে যাওয়া বা নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণে কোনও শ্রমিককে কাজ দিতে ব্যর্থতা, অস্বীকৃতি বা অপারগতাকে বোঝানো হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মিলের সামনে পুলিশজানা যায়, রবিবার (৫ এপ্রিল) সকাল সা‌ড়ে ৯টায় নগরীর রূপাতলী এলাকায় সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের সাম‌নে জ‌ড়ো হন শ্রমিকরা। তারা মিলের গে‌টে লে-অফ লেখা বিজ্ঞ‌প্তি দেখতে পান। পাওনা পরিশোধ না ক‌রে লে-অফ দেখার বিষয়‌টি দ্রুত ছ‌ড়ি‌য়ে প‌ড়ে শ্র‌মিক‌দের ম‌ধ্যে। অল্প সম‌য়ের ম‌ধ্যে কয়েকশ' শ্র‌মিক সেখা‌নে জ‌ড়ো হন। তারা বি‌ক্ষোভ কর‌তে থা‌কেন। একপর্যা‌য়ে পু‌লিশ এলে শ্র‌মিকরা মি‌ল কম্পাউন্ডে প্র‌বেশ ক‌রেন। এরপর পু‌লিশ তা‌দের সামা‌জিক দূরত্ব বজায় রাখার তা‌গিদ দেন।

শ্র‌মিকরা আরও জনান, কা‌রও তিন, কা‌রও চার মা‌সের বেতন বন্ধ র‌য়ে‌ছে। এই অবস্থায় লে-অফ এর ঘটনায় তারা উদ্বিগ্ন। দ্রুত পাওনা প‌রি‌শো‌ধের দাবি জা‌নান শ্র‌মিকরা।

শ্রমিকরা আরও জানান, ক‌রোনাভাইরাস সংক্রমণ রো‌ধে সরকা‌রের দেওয়া নি‌র্দেশ অনুযায়ী কারখানা বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু এর মা‌ঝেই কর্তৃপক্ষ লে-অফ ঘোষণা ক‌রে‌ছে।

কোতোয়ালি পু‌লি‌শের ওসি নূরুল ‍ইসলাম মোবাইল ফো‌নে মিল কর্তৃপ‌ক্ষের স‌ঙ্গে কথা ব‌লেন। কর্তৃপক্ষ পর্যায়ক্র‌মে বেতন প‌রি‌শো‌ধের আশ্বাস দি‌লে শ্র‌মিকরা ফি‌রে যান। ত‌বে মা‌লিকপ‌ক্ষের কেউ কারখানায় আসেন‌নি।

 

 

/আইএ/

লাইভ

টপ