স্পিরিট পানে ২ জনের মৃত্যু, বাকি ২ জনকে খুঁজছে পুলিশ

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:১৮, মে ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৯, মে ২৮, ২০২০

বগুড়ার ধুনটে রেকটিফায়েড স্পিরিট পান করে চার জনের মধ্যে দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে বাকি দুজনকে খুঁজছে পুলিশ। বুধবার (২৭ মে) দুপুরে চার জন একসঙ্গে পার্শ্ববর্তী সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার সোনামুখী বাজারে গিয়ে স্পিরিট পান করে। রাতে নিজ বাড়িতে ফিরে একজন ও অপরজন ভোরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে মারা যায়। তবে বাকি দুজনকে খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, বিষাক্ত স্পিরিট পানে একজন বাড়িতে ও অন্যজন হাসপাতালে মারা গেছে। তাদের লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। অসুস্থ দুজনকে খোঁজা হচ্ছে। তারা কোন দোকান থেকে স্পিরিট কিনেছিল, তা তদন্ত করে দেখা হবে।

মৃতরা হলো- ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঈশ্বরঘাট গ্রামের আবদুল্লাহর ছেলে কসাই আল আমিন (২৮) ও একই গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে গাড়ি চালক আবদুল আলিম (৩০)।

অসুস্থরা হলো- একই গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে লালন মিয়া (৩২) ও মৃত মেজাদ প্রামাণিকের ছেলে রেজাউল করিম (২৯)।

পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানান, এই চার জন বুধবার দুপুরে পার্শ্ববর্তী সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার সোনামুখী বাজারে যায়। সেখানে স্পিরিট পান করে বিকালে নিজ নিজ বাড়ি ফেরে। এরপর তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। আল আমিন রাতে নিজ বাড়িতেই মারা যায়। আলিমকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করলে বৃহস্পতিবার ভোর ৪ টার দিকে মারা যায়। তবে লালন ও রেজাউল কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছে বা তাদের শরীরের অবস্থা কেমন তা জানা যায়নি। তারা আত্মগোপনে চলে গেছে।



/এএইচ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ