রাণীনগরে বেড়িবাঁধ ভাঙছে, আতঙ্কে এলাকাবাসী

Send
আব্দুর রউফ পাভেল, নওগাঁ
প্রকাশিত : ২৩:৫৪, জুলাই ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০০, জুলাই ০৮, ২০২০

রানীনগরে ছোট যমুনায় পানি বাড়ায় ভাঙছে বেড়িবাঁধ

গত বছরের প্রবল বন্যায় নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার ছোট যমুনা নদীর নান্দাইবাড়ি-কৃষ্ণপুর বেড়িবাঁধ ভেঙে গেলেও এখনও মেরামত করা হয়নি। ফলে নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে নান্দাইবাড়ি এলাকার কয়েকটি পুকুর এরই মধ্যে ডুবে গেছে। ভেসে গেছে কয়েক লাখ টাকার মাছ। নদীর পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়দের মধ্যে বেড়িবাঁধ নিয়ে বাড়ছে আতঙ্ক। যে কোনও মুহূর্তে বন্যায় ওই এলাকার বতসবাড়ি প্লাবিত হয়ে বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা।

জানা গেছে, নওগাঁর ছোট যমুনা নদী জেলার রাণীনগর উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে আত্রাই নদীর সঙ্গে মিলেছে। প্রায় ৪০ বছর ধরে বেড়িবাঁধটি সংস্কার করা হয়নি। প্রতি বছর ওই স্থানে বাঁধ ভেঙে রাণীনগর এবং আত্রাই এলাকার হাজার হাজার হেক্টর জমির ধানসহ বিভিন্ন ফসল ও চাষকৃত মাছ ভেসে যায়। ভেঙে যায় শত শত ঘরবাড়ি। এতে কোটি কোটি টাকার ক্ষতির মুখে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা।

২০১৮ সালে বন্যায় বেড়িবাঁধটি ভেঙে গেলে নওগাঁ-আত্রাই পাকা সড়কের রাণীনগর সীমানার মিরাপুর, ঘোষগ্রাম, কৃষ্ণপুরসহ প্রায় ৫ জায়গা ভেঙে  যায়। সে বছর রাণীনগর উপজেলার প্রায় ১৫ হাজার হেক্টর জমির ধান বন্যার পানিতে তলিয়ে যায়।

গত বছর একই স্থানে বাঁধ ভেঙে প্রায় সাড়ে ৮ হাজার হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। প্রতি বছর ভেঙে যাওয়া অংশ মেরামত করা হলেও গতবার ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ এখনও মেরামত হয়নি। বর্তমানে ভারী বৃষ্টি এবং উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানিতে নদীর পানি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যে কোন মুহূর্তে প্রবল বন্যায় এলাকার বতসবাড়ি প্লাবিত হয়ে বড় ধরনের ক্ষতির আশঙ্কায় আতঙ্কিত স্থানীয়রা।

নান্দাই বাড়ি এলাকার আবু বক্কর জানান, নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ভাঙা অংশ দিয়ে পানি ঢুকে আমার তিনটি পুকুরসহ নান্দাইবাড়ির প্রায় ৮টি পুকুরের লাখ টাকার মাছ ভেসে গেছে। ফসল ও বসতি রক্ষায় দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে বেড়িবাঁধ মেরামতের দাবি জানাই।

রানীনগরে ছোট যমুনা নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙে ভেসে গেছে আশেপাশের কয়েকটি পুকুরের লাখ লাখ টাকার মাছ

রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আল মামুন বলেন, বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে যে কোন মূল্যে বাঁধের ভাঙা অংশ মেরামত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের জানিয়েছি। আশা করছি খুব শীঘ্রই বাঁধটি মেরামত হবে।

নওগাঁ জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান খাঁন বলেন, নান্দাইবাড়ি-কৃষ্ণপুর বেড়িবাঁধটি সংস্কারের জন্য ৩৯ লাখ টাকা ব্যয় ধরে টেন্ডার দেওয়া হয়েছে। ২১ জুন থেকে কাজ শুরুর কথা ছিল। কিন্তু নদীতে পানি বেড়ে যাওয়ায় ঠিকাদার কাজ শুরু করতে পারেনি। পানি কমে আসার সঙ্গে সঙ্গে বাঁধটি সংস্কার করা হবে।

 

/আরআইজে/টিএন/

লাইভ

টপ