স্বামী-শাশুড়ি-প্রতিবেশীর নির্যাতন থেকে বাঁচার আকুতি শ্রমজীবী নারীর

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৬:৪৪, আগস্ট ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৪৪, আগস্ট ১২, ২০২০

বগুড়াবগুড়ার শাজাহানপুরের হিন্দুপাড়ায় মাদকাসক্ত স্বামী ও শাশুড়ির শারীরিক-মানসিক নির্যাতনে অতিষ্ঠ মায়া রাজভর (২৫)। একইসঙ্গে প্রতিবেশী এক যুবকের উত্ত্যক্তের শিকার তিনি। ভুক্তভোগী ওই নারী এসব ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও ঘটনাটি মীমাংসার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

মায়া রাজভর অভিযোগ করেন, ১২ বছর আগে বগুড়ার শাজাহানপুরের আমরুল ইউনিয়নের হিন্দুপাড়ার শংকর রাজভরের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। সংসারে তাদের ১০ বছরের ছেলে ও পাঁচ বছরের মেয়ে রয়েছে। মাদকাসক্ত স্বামী কোনও কাজ করে না। সন্তানদের কষ্ট সহ্য করতে না পেরে তিনি অন্যের বাড়িতে এবং কৃষি শ্রমিকের কাজ করে থাকেন। এরপরও স্বামী শংকর রাজভর ও তার পরিবারের সদস্যদের মন রক্ষা করা সম্ভব হয় না। বাইরে কাজ করতে গেলে খারাপ সন্দেহ এবং বাড়ির সবাই মিলে নির্যাতন করে।

এছাড়া প্রতিবেশী আবুল কালামের ছেলে নয়ন মিয়া (২৪) তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছে। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে কুৎসা রটনা করে। গত ৭ আগস্ট তাকে মারপিট করা হলে শাজাহানপুর থানায় অভিযোগ দেন তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নয়নের উসকানিতে তার স্বামী ও পরিবারের সদস্যরা তার ওপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। গত ৮ আগস্ট পরিবারের সবাই মিলে তাকে বেদম মারপিট করে। পরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন তিনি। এরপর স্বামী শংকর রাজভর, শাশুড়ি টুলটুলি রাজভর ও প্রতিবেশী নয়নের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেন এই নারী। ১০ আগস্ট পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং এ ব্যাপারে মীমাংসা করতে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে দায়িত্ব দেয়। এভাবে মীমাংসা না হওয়ায় আগামী ১৫ আগস্ট দু’পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে।

মায়া রাজভর মিমাংসা নয়, আইনের মাধ্যমে নির্যাতনকারীদের বিচার চান। তিনি বলেন, ‘সবাই আমাকে খারাপ চরিত্রের প্রমাণের চেষ্টা করছে।’

এ ব্যাপারে নয়নের সঙ্গে কথা বললে তিনি দাবি করেন, তিনি কখনও মায়াকে কুপ্রস্তাব দেননি।

শাজাহানপুর থানার এসআই আবদুর রহমান জানান, বিষয়টি মীমাংসার জন্য ইউপি সদস্যকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ আগস্টের মধ্যে মীমাংসা না হলে পরদিন দু’পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে। এ ব্যাপারে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/আইএ/

লাইভ

টপ