সাতক্ষীরায় একই পরিবারের ৪ জনকে হত্যা: গ্রেফতার আরও ৩

Send
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৩:২৭, অক্টোবর ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:২৭, অক্টোবর ২১, ২০২০

ঘটনাস্থলে সিআইডি দলসাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার খলশী গ্রামের দুই শিশু সন্তানসহ স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যার ঘটনায় আরও তিন জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) বিকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বুধবার (২১ অক্টোবর) তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হবে।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন কলারোয়া উপজেলার খলশী গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক,  একই গ্রামের কাশেম ঢালীর ছেলে পুলিশের সোর্স আব্দুল মালেক এবং ধানঘরা গ্রামের সামছুদ্দিনের ছেলে আসাদুল ইসলাম।

হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, ‘১৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোরে কলারোয়ার খলশী গ্রামে মাছ ব্যবসায়ী শাহিনুর রহমানসহ তার পরিবারের ৪ সদস্যকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। রাতে শাহিনুরের শাশুড়ি ময়না খাতুন বাদী হয়ে কারো নাম উল্লেখ না করে কলারোয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলামকে। হত্যার দিনই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় নিহতের ছোট ভাই রায়হানুল, আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক ও সামছুদ্দিন সরদারের ছেলে আসাদুলকে। পরের দিন রায়হানুলকে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। ছেড়ে দেওয়া হয় রাজ্জাক ও আসাদুলকে। সোমবার (১৯ অক্টোবর) রায়হানুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিআইডি অফিসে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে আসা হয়।

তিনি আরও জানান, রবিবার দুপুরে মোবাইল ফোনে সিআইডি পুলিশ ডেকে নিয়ে যায় রাজ্জাক ও আসাদুলকে। সোমবার আনিছুর ও মালেককে তাদের বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় সিআইডি। সোমবার ঢাকা রেঞ্জের সিআইডির অতিরিক্ত উপমহাপুলিশ পরিদর্শক ওমর ফারুক ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে স্থানীয় ও নিহতদের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেন। মঙ্গলবারও তিনি ঘটনাস্থলে আসেন। এ দিন বিকালে তিনি জানতে পারেন, রাজ্জাক, আসাদুল ও আব্দুল মালেককে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

কলারোয়া আদালতের পুলিশ উপপরিদর্শক কায়েস মাহমুদ বলেন, ‘আসামিদের আদালতে পাঠানোর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, রিমান্ডে নেওয়া রায়হানুল হকের জবানবন্দি অনুযায়ী ওই তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বুধবার আদালতে রিমান্ড আবেদন জানানো হবে।

সিআইডি’র সাতক্ষীরার বিশেষ পুলিশ সুপার আনিচুর রহমান মঙ্গলবার রাতে বলেন, ‘গ্রেফতার ব্যক্তিদের বুধবার আদালতে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন জানানো হবে।’

/আইএ/

লাইভ

টপ