অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রাতের আঁধারে জমি দখলের অভিযোগ

Send
পটুয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০২:৫৮, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৫৮, অক্টোবর ২৮, ২০২০

প্রাচীর নির্মাণ করে জমি দখল করা হয়পটুয়াখালীর বাউফলে একটি পরিবারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গভীর রাতে জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে সাবেক এক সেনা সদস্যর বিরুদ্ধে। সোমবার (২৭ অক্টোবর) গভীর রাতে পৌর শহরের ৯ নম্বর ওয়াডের গাজী সড়কের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারটি বাউফল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাউফল পৌর শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী সড়কের পাশে মো. আল মামুন তার স্ত্রী মোসা. আলফা বেগম ও এক ছেলে সন্তান নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। একই এলাকার সাবেক সেনা সদস্য মো. জাহিদ হোসেন তাদের পাশে বসবাস করেন। জাহিদ হোসেন কয়েকদিন আগে আল মামুনদের বসবাসের জায়গা দখলের চেষ্টা করেন। ওই সময় আল মামুনের স্ত্রী আলফা বেগম বাউফল থানায় অভিযোগ দিলে এসআই আশিকুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়ভাবে মীমাংসার জন্য বলেন। কিন্তু গত সোমবার (২৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত আনুমানিক ২টার দিকে জাহিদ হোসেন ভাড়া করা লোকজন নিয়ে প্রাচীর নির্মাণ করে আল মামুনদের বসবাসের জমি দখলের কাজ শুরু করেন।

অভিযোগে আরও জানা যায়, লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে আল মামুনের স্ত্রী আলফা বেগম ঘর থেকে বের হয়ে কাজ করতে নিষেধ করলে তাকে কিল ঘুষি মরা হয়। এ সময় তিনি চিৎকার করার চেষ্টা করলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বাসার ভিতরে ঢুকিয়ে বাইর থেকে তালা বন্ধ করে রাখা হয়। ঘটনার সময় পাশের ঘরে থাকা আলফা বেগমের চাচি শাহানাজ বেগম এলে তাকেও মারধর করে ঘরের ভিতরে ঢুকিয়ে দেওয়া হয় এবং চিৎকার করলে পুড়িয়ে মারার হুমকি দেওয়া হয়। পরে ওই রাতেই পাকা ওয়াল নির্মাণ করে আলফা বেগমদের ঘর থেকে বের হওয়ার জায়গা দখল করে নেন জাহিদ হোসেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানার জন্য জাহিদ হোসেনকে একাধিকবার ফোন দেওয়া হয়, কিন্তু তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমি এ রকম একটা ঘটনা শুনে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি। ভুক্তভোগীরা মামলা করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

/আইএ/

লাইভ

টপ