দগ্ধ মা ও বড় ছেলের পর চলে গেলেন ছোট ছেলে

Send
ফেনী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:৩৬, নভেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১৬, নভেম্বর ২২, ২০২০

সাইফুল ইসলামচট্টগ্রামের কাট্টলীপাড়ায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ মা ও ব ড়ছেলের পর এবার মারা গেলেন ছোট ছেলে হাফেজ সাইফুল ইসলাম (১৯)। ঘটনার ১৩ দিন পর শনিবার (২১ নভেম্বর) রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের গ্রামের বাড়ি ফেনীর দাগনভূঞার উপজেলার সিন্দুরপুর ইউনিয়নে স্বজন ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সিন্দুরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নুর নবী বাংলা ট্রিবিউনকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এর আগে ঘটনার দিন ৯ নভেম্বর চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) মিজানুরের মা পেয়ারা বেগমের (৬০) মৃত্যু হয়। এর দুদিন পর ১১ নভেম্বর ঢাকায় চিকিৎসাধীন থেকে মিজানুর রহমানের (৪২) মৃত্যু হয়।

জানা যায়, গত ৮ নভেম্বর চট্টগ্রামে বসবাসরত উত্তর কাট্টলীতে একই পরিবারের সাত জনসহ ৯ জন দগ্ধ হন। এতে দাগনভূঞার সিন্দুরপুর ইউনিয়নের অবসরপ্রাপ্ত মৃত মাস্টার মজিবুল হকের স্ত্রী পেয়ারা বেগম (৬৫) চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। অপর দগ্ধরা হলেন- বিবি সুলতানা (৩৬), শিশু মানহা (২), মাহের, রিয়াজ (২২), জাহান (২১) ও সুমাইয়া (১৮)।

৯ নভেম্বর মা পেয়ারা বেগম, ১১ নভেম্বর বড় ছেলে মিজানুর রহমান (৪২) ও ১৩ দিন পর শনিবার ছোট ছেলে সাইফুল মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

দগ্ধ পরিবারের সদস্য নাছির উদ্দিন জানান, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটে গ্যাসলাইনে সম্প্রসারিত হয়। চট্টগ্রামের কাট্টলীপাড়ায় মরিয়ম ভবনে ভাড়া থাকতেন তার চাচাতো ভাই শিপিং করপোরেশনে চাকরিজীবী মিজানুর রহমান।

/টিটি/

লাইভ

টপ