X
শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪
১০ শ্রাবণ ১৪৩১

যমুনায় তিন দফা পানি বেড়ে ৫ কোটি টাকার ফসল নষ্ট

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৫:০২আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৫:০২

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণের কারণে সিরাজগঞ্জে তিন দফায় যমুনাসহ অভ্যন্তরীণ করতোয়া, ফুলজোড়, ইছামতি, হুড়া সাগর ও বড়াল নদীর পানি বেড়েছে। এতে জেলায় বড় ধরনের বন্যা না হলেও নিম্নাঞ্চলসহ ফসলি জমি তলিয়ে যায়। এতে জেলার ২০৪ হেক্টর জমির প্রায় পাঁচ কোটি টাকার ফসল নষ্ট হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে তিন দফায় পানি প্লাবিত হয় যমুনার নিম্নাঞ্চল। যমুনা অধ্যুষিত সদর, কাজিপুর, বেলকুচি, চৌহালী, শাহজাদপুর, তাড়াশ ও উল্লাপাড়ার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়।

যমুনায় তিন দফা পানি বেড়ে ৫ কোটি টাকার ফসল নষ্ট

জেলার ৯ উপজেলার মধ্যে সাত উপজেলার অন্তত ৪২টি ইউনিয়নের ফসলি জমি তলিয়ে যায়। এতে ক্ষতি হয়েছে কৃষি ও কৃষকের। রোপা আমন, বোনা আমন, আমনের বীজতলা, আগাম শীতকালীন সবজি, আউশ, মাসকালাই, কলা ও আঁখসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে বেশি। চলতি বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কাজিপুর উপজেলায় ১১১ হেক্টর জমির ফসল।

জেলার এসব জমি প্রস্তুত করা, বীজ লাগানো, সার ও কীটনাশক দেওয়া ও শ্রমিক বাবদ প্রায় আড়াই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। ৪১৫১ জনের ফসল তলিয়ে যাওয়ায় মূলধন সংকটে পড়েছেন কৃষকরা।

যমুনায় তিন দফা পানি বেড়ে ৫ কোটি টাকার ফসল নষ্ট

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক (ডিডি) বাবলু কুমার সূত্রধর বলেন, চলতি বছরের আগস্ট ও সেপ্টেম্বর দুই মাসে দফায় দফায় যমুনাসহ অভ্যন্তরীণ নদ-নদীর পানি বেড়ে ৯৫২ হেক্টর ফসলি জমি তলিয়ে যায়। এর মধ্যে ২০৪ হেক্টর জমির ফসল সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে কমপক্ষে পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হচ্ছে। আশাকরি ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের প্রণোদনার আওতায় আনা সম্ভব হবে।

/এফআর/
সম্পর্কিত
সর্বশেষ খবর
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
সর্বাধিক পঠিত
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা