X
বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২
২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

বিএসএফের ধাওয়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ, ৩৬ ঘণ্টা পর ভাই-বোনের লাশ উদ্ধার 

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
০৩ জুলাই ২০২২, ২০:২৪আপডেট : ০৩ জুলাই ২০২২, ২০:৪৭

মা-বাবাসহ রাতের আঁধারে সীমান্ত পার হওয়ার সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ধাওয়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয় দুই শিশু। ঘটনার ৩৬ ঘণ্টা পর তাদের লাশ উদ্ধার হয়েছে। রবিবার (৩ জুলাই) দুপুরে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিয়াবাড়ী সীমান্তের ধর্মপুর জিরো লাইনের কাছে ভারতের দিগলাকুরা এলাকার নীলকমল নদী থেকে ভাই-বোনের লাশ উদ্ধার করে বিএসএফ ও ভারতীয় পুলিশ। পরে ভারতীয় সাহেবগঞ্জ থানা পুলিশের মাধ্যমে দুই শিশুর মরদেহ স্থানীয় মর্গে পাঠানো হয়। এ সময় বাংলাদেশ সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

লালমনিরহাট বিজিবি-১৫ ব্যাটালিয়নের কাশিপুর কোম্পানি কমান্ডার কবির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উদ্ধার দুই শিশুর নাম পারভীন খাতুন (৮) ও শাকিবুল হাসান (৪)। তারা কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নেওয়াশী ইউনিয়নের সরকারটারি গ্রামের রইচ উদ্দিন-সামিনা বেগম দম্পতির সন্তান। 

গত শুক্রবার ভারতের দিল্লি থেকে বাবা-মায়ের সঙ্গে ঈদ উদযাপনে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করেন তারা। এ সময় বিএসএফফের ধাওয়ার নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয় পারভীন ও হাসান। অন্ধকার থাকায় তাদের উদ্ধারে ব্যর্থ হন বাবা-মা। প্রায় ১৬ বছর আগে রইচ উদ্দিন ও তার স্ত্রী সামিনা বেগম বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পথে ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের সুলতানপুরে ইটভাটায় কাজ করতে যান। সেখানেই তাদের দুই সন্তানের জন্ম।

স্থানীয়রা জানান, বিএসএফের ধাওয়ায় নদীতে ডুবে যাওয়া ভাই-বোনের লাশ রবিবার সকালে বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে ভারতের অভ্যন্তরে নীলকমল নদীতে ভেসে ওঠে। লাশ দেখতে পেয়ে বিজিবিকে খবর দেন স্থানীয়রা। তবে নদীর ওই অংশ ভারতীয় ভূখণ্ডে হওয়ায় বিজিবি বিষয়টি বিএসএফকে জানায়। এ নিয়ে দু'দেশের মধ্যে পতাকা বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে বিজিবি-বিএসএফের যৌথ টহলে ভারতের কুচবিহার জেলার সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ মৃতদের লাশ উদ্ধার করে স্থানীয় মর্গে পাঠায়।

বিএসএফের বরাতে বিজিবি জানায়, পরিচয় সংক্রান্ত কাগজপত্র দেওয়া হলে নিহত দুই শিশুর মরদেহ হস্তান্তরের বিষয়টি বিবেচনা করবে বিএসএফ।

এদিকে দুই সন্তানের মৃত্যুতে রইচ উদ্দিন ও সামিনার পরিবার শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছে। 

সন্তানদের মরদেহ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে রইচ বলেন, আমরা বাংলাদেশি হলেও শিশুদের জন্ম হয়েছে ভারতে। এ কারণে তাদের বাংলাদেশের নাগরিকত্বের কাগজপত্র নেই। ফলে দুই সন্তানের মরদেহ ফিরিয়ে আনতে তিনি সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

লালমনিরহাট বিজিবি ১৫ ব্যাটালিয়নের কাশিপুর কোম্পানি কমান্ডার কবির হোসেন বলেন, দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধারের পর বিএসএফ ভারতীয় পুলিশের মাধ্যমে তা ওই দেশের স্থানীয় মর্গে পাঠিয়েছে।

পতাকা বৈঠকের বরাতে বিজিবির এই সদস্য জানান, বিএসএফ জানিয়েছে শিশুদের মরদেহ এক সপ্তাহ মর্গে থাকবে। তাদের বাংলাদেশি পরিচয়ের কাগজপত্র পাওয়া গেলে মরদেহ হস্তান্তরের বিষয়টি তারা বিবেচনা করবে।

/টিটি/এমওএফ/ 
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার ট্রলারডুবি, ১৩ জেলে নিখোঁজ
বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার ট্রলারডুবি, ১৩ জেলে নিখোঁজ
হারারেতে ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ
হারারেতে ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ
ভারতে শেষ দিনে ছেলেরা হারলেও জিতেছে নারী দল
ভারতে শেষ দিনে ছেলেরা হারলেও জিতেছে নারী দল
তুরাগে ভাঙারি দোকানে বিস্ফোরণ, মৃত্যু বেড়ে ৭
তুরাগে ভাঙারি দোকানে বিস্ফোরণ, মৃত্যু বেড়ে ৭
এ বিভাগের সর্বশেষ
তেল কম দেওয়ায় ২ পাম্পকে জরিমানা
তেল কম দেওয়ায় ২ পাম্পকে জরিমানা
ধ্বংস করা হলো ৮৩ লাখ টাকার মাদকদ্রব্য 
ধ্বংস করা হলো ৮৩ লাখ টাকার মাদকদ্রব্য 
দুই দিনে ভারত থেকে এলো ১১২ টন কাঁচা মরিচ
দুই দিনে ভারত থেকে এলো ১১২ টন কাঁচা মরিচ
পীরগঞ্জে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ
পীরগঞ্জে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ
ভারতের প্রথম ট্রায়াল জাহাজ মোংলায় 
ভারতের প্রথম ট্রায়াল জাহাজ মোংলায়