X
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩
১৭ মাঘ ১৪২৯

বিএনপির সাড়ে ৩০০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতার মামলা

সিলেট প্রতিনিধি
১৬ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৩০আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৩০

সিলেটের ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজারে যুবলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগে বিএনপির প্রায় সাড়ে ৩০০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে। বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকালে ওসমানীনগর থানায় মামলাটি করেন গোয়ালাবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলার শশারকান্দি গ্রামের মৃত এলাইচ মিয়ার ছেলে রিপন মিয়া (৩০)। ২৪ জনের নাম উল্লেখ করে ও বাকিদের অজ্ঞাত রেখে মামলাটি করা হয়।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন, জন্মদিন উপলক্ষে রিপন তার কয়েকজন বন্ধুদের নিয়ে মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গোয়ালাবাজারের সাজু রেস্টুরেন্টের সামনে আরও কয়েকজন বন্ধুর জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় গোয়ালাবাজারের দক্ষিণ দিক থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা লাঠিসোঁটা এবং লোহার রড নিয়ে হঠাৎ রিপন ও তার বন্ধুদের ওপর হামলা চালান। এ সময় হামলাকারীদের মারধরে রিপন আহত হন। 

এ ঘটনায় পুলিশ উপজেলার ইছামতি গ্রামের গোলাম কিবরিয়ার ছেলে ফয়ছল আহমদ লিমন (২৭) ও রবিদাস সোনারপাড়া গ্রামের আব্দুল রশিদের ছেলে মো. নুরুল ইসলাম (৩২) নামের দুজনকে গ্রেফতার করে। বুধবার তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- উপজেলার দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস টি এম ফখর উদ্দিন (৫৫), রাইকদাড়া গ্রামের মৃত ইসমাইল আলীর ছেলে মো. আব্দুর রউফ (আব্দুল), থানাগাঁও গ্রামের মৃত মৌলভী ফজলু রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহ মিছবাহ (৫০), ইছামতি গ্রামের মৃত আব্দুল খালিকের ছেলে মুক্তার হোসেন বকুল (৪৮), খালেরপাড় গ্রামের জায়ফর আলীর ছেলে ফজল আহমদ জনি, খাদিমপুর গ্রামের চেরাগ আলীর ছেলে আহবাবুল হোসেন, পশ্চিম ব্রাহ্মনগ্রামের ওয়াহিদ উল্লাহর ছেলে মো. আব্দুর রকিব (রকিব আলী), গলমুকাপন গ্রামের মাহমুদুর রহমান চৌধুরীর ছেলে কয়েছ আহমদ চৌধুরী, পশ্চিম মোবারকপুর গ্রামের মৃত আব্দুল গণির ছেলে মো. মানিক মিয়া (৪৮), মজলিশপুর গ্রামের বদরুল আলমের ছেলে মো. রায়হান আহমদ (৪৬)।

মির্জা সহিদপুর গ্রামের মো. রিপন আহমদ, নিজ করনসী গ্রামের মৃত মোজাফের বক্সের ছেলে মান্নান বক্স (৫৫), এওলাতৈল গ্রামের ফজর উদ্দিনের ছেলে ইসলাম উদ্দিন (৪০), একই গ্রামের পলক উদ্দিনের ছেলে জিয়া উদ্দিন (৩০), নিজ করনসী গ্রামের আফতাব মিয়ার ছেলে শাহজাহান আলী, একই গ্রামের আফতাব মিয়ার ছেলে খালেদ হোসেন (৩০), জহিরপুর (নূরপুর) গ্রামের কালাই উল্লাহ গ্রামের ডালিম মিয়া, নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের মো. বাদশা মিয়ার ছেলে মো. সাজ্জাদুর রহমান (৪৮), ময়না বাজার গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে সত্তার মিয়া (৫০), বরায়া নোয়াবাড়ী গ্রামের আকলুছ মিয়ার ছেলে আবির মিয়া (২৪), কাশিকাপন গ্রামের ইশ্বাদ আলীর ছেলে গৌছ আলী (৩৮) ও বুরুঙ্গা বাজার এলাকার মজনু মিয়া (৩৫)।

ওসমানীনগর থানার ওসি এস এম মাঈন উদ্দিন বলেন, গ্রেফতার দুজনকে যুবলীগ নেতার করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত আর কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। মামলায় ২৪ জনকে এজাহার নামীয় আসামি করা হয়েছে। এ ছাড়াও মামলায় অজ্ঞাত দুই থেকে তিনশ জনকে আসামি করা হয়েছে।

/এফআর/
সর্বশেষ খবর
সংবাদ প্রকাশের পর কুমিল্লার হাইওয়ে হোটেলে অভিযান
সংবাদ প্রকাশের পর কুমিল্লার হাইওয়ে হোটেলে অভিযান
ভাড়াটে খুনি দিয়ে ভাতিজাকে খুন করান সাইফুল
ভাড়াটে খুনি দিয়ে ভাতিজাকে খুন করান সাইফুল
অভিনেত্রী আঁখির অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক
অভিনেত্রী আঁখির অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক
শীতপ্রবণ তেঁতুলিয়ায় আশ্রয়ণ প্রকল্পে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প
শীতপ্রবণ তেঁতুলিয়ায় আশ্রয়ণ প্রকল্পে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প
সর্বাধিক পঠিত
অভিনেত্রী আঁখির অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক
অভিনেত্রী আঁখির অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক
এসআইবিএল থেকে মাহবুব-উল-আলমের পদত্যাগ
এসআইবিএল থেকে মাহবুব-উল-আলমের পদত্যাগ
এনআইডি’র সঙ্গে সমন্বয় করে পাসপোর্ট সমস্যা দ্রুত সমাধানের সুপারিশ
এনআইডি’র সঙ্গে সমন্বয় করে পাসপোর্ট সমস্যা দ্রুত সমাধানের সুপারিশ
রাশিয়ার সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে প্রস্তুত ন্যাটো?
রাশিয়ার সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে প্রস্তুত ন্যাটো?
আলাদা ইউনিট করে রাজউকই পূর্বাচলে নাগরিক সেবা দেবে
আলাদা ইউনিট করে রাজউকই পূর্বাচলে নাগরিক সেবা দেবে